কাট-কপি-পেস্ট'র জনকের মৃত্যু



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
কম্পিউটার বিজ্ঞানী লরেন্স ল্যারি টেসলার, ছবি: সংগৃহীত

কম্পিউটার বিজ্ঞানী লরেন্স ল্যারি টেসলার, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কম্পিউটারে বহুল ব্যবহৃত কাট-কপি-পেস্ট এর জনক বিজ্ঞানী লরেন্স ল্যারি টেসলার ৭৪ বছর বয়সে মারা গেছেন। সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) তিনি মারা যান। আর বুধবার তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টুইট করেছে টেসলারের সাবেক কর্মক্ষেত্র জেরক্স।

জেরক্স এক টুইট পোস্টে জানায়, কাট/কপি এবং পেস্ট, ফাউন্ড এবং রিপ্লেসের উদ্ভাবক ছিলেন ল্যারি টেসলার। জেরক্সের সাবেক গবেষক তিনি। তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত।

নিজের কর্মজীবনে টেসলার অ্যামাজন, অ্যাপল, ইয়াহু ও জেরক্স পালো অলটো রিসার্চ সেন্টারের মত বড় প্রযুক্তি ফার্মেও কাজ করেছেন। ১৭ বছর অ্যাপলের প্রধান বিজ্ঞানী হিসেবে কাজ করেছেন তিনি।

১৯৪৫ সালে নিউইয়র্কে জন্ম গ্রহণ করেন লরেন্স। তিনি ক্যালিফোর্নিয়ার স্টানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন। লরেন্স ১৯৬০ এর শুরুর দিকে সিলিকন ভ্যালিতে কাজ শুরু করেন। তখন কম্পিউটার মানুষের কাছে দুর্বোধ্য ছিল।

২০১২ সালে তিনি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসিকে জানান, কাজ করে টাকা কামিয়ে অবসর নেওয়া উচিত নয়। আপনি আপনার সময় অন্যান্য সংস্থাগুলোর অর্থায়নে ব্যয় করেন। আপনি যা শিখেছেন তা পরবর্তী প্রজন্মের সঙ্গে ভাগাভাগি করা নেওয়াটা অনেক উত্তেজনামূলক।

ওমিক্রনে নিজের বিয়ে বাতিল করলেন নিউজিলান্ডের প্রধানমন্ত্রী



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নও তার বাগদত্তা গেফোর্ডে

প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নও তার বাগদত্তা গেফোর্ডে

  • Font increase
  • Font Decrease

সারা বিশ্বে বাড়ছে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন। করোনার এই নতুন ধরনের লাগাম টেনে ধরতে নানা বিধিনিষেধ জারি করেছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। নিউজিল্যান্ডে ওমিক্রনের বিস্তার রোধে নতুন বিধিনিষেধ জারি করেছে দেশটির সরকার। আর এ কারণে নিজের বিয়ে বাতিল করেছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। খবর রয়টার্স।

নিউজিল্যান্ডে উত্তর-দক্ষিণে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে ৯ জনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এরপর থেকে মাস্ক বাধ্যতামূলক ও জনসমাবেশ সীমিতকরাসহ নানা বিধিনিষেধ আরোপ করে দেশটির সরকার। রোববার মধ্যরাত থেকে এই বিধিনিষেধ কার্যকর হবে।

নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে প্লেনে করে সাউথ আইল্যান্ডের নেলসনে ফিরে আসে একটি পরিবার। পরে ওই পরিবার ও তাদের ভ্রমণ করা ফ্লাইটের একজন অ্যাটেনডেন্ট করোনায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত হন।

নিউজিল্যান্ড করোনাভাইরাস প্রতিরোধে লাল রঙ চিহ্নিত কাঠামো চালু করবে। এতে করে আরও বেশি করে মাস্ক পরতে হবে। সেই সঙ্গে বার, রেস্টুরেন্ট এবং বিয়ের অনুষ্ঠানে ১০০ জনের মতো উপস্থিত থাকতে পারবে। তবে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এসব অনুষ্ঠানে টিকা সনদ ব্যবহার না করলে তা ২৫ জনের নামিয়ে আনা হবে।

নিজের বিয়ের আয়োজন প্রসঙ্গে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমার বিয়ের অনুষ্ঠানও হচ্ছে না। যদিও জেসিন্ডা আরডার্ন তার বিয়ের কোন তারিখ প্রকাশ করেননি। তবে তারিখে নিয়ে গুজব ছিল।

দীর্ঘদিনের সঙ্গী এবং ফিসিং-শো হোস্ট ক্লার্ক গেফোর্ডের সাথে তার বিয়ে বাতিলের বিষয়ে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে জেসিন্ডা আরডার্ন উত্তরে বলেন, ‘জীবন এমনই।’

তিনি আরো যোগ করে বলেন, আমি এর থেকে আলাদা নই। এই মহামারী হাজারো নিউজিল্যান্ডবাসী ওপর মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর হলো গুরুতর অসুস্থ হলে কখনও কখনও প্রিয়জনের সাথে থাকতে না পারা। এটা আমার কাছে সবচেয়ে দুঃখজনক।

;

হাসপাতালে মাহাথির মোহাম্মদ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদকে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (২২ জানুয়ারি) তার এক মুখপাত্র এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

মুখপাত্র জানান, মাহাথিরকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের কার্ডিয়াক কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

৯৬ বছর বয়সী এ নেতা এর আগে ৭ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসা শেষে ১৩ জানুয়ারি হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন।

মালয়েশিয়ায় সবচেয়ে বেশি সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন মাহাথির। এর আগে তার বাইপাস সার্জারিও করতে হয়েছিল । তবে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর শরীরে কোন কোন উপসর্গ দেখা দিয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

;

বিদেশ থেকে কর্মী সংস্থান করবে জার্মানি



আন্তর্জাতিক ডেস্ক,বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কোভিড পরিস্থিতি-সহ নানা কারণে জার্মানির বিভিন্ন ক্ষেত্রে কর্মী সংখ্যার যথেষ্ট অভাব দেখা দিয়েছে। সেই অভাব পূরণ করতে দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংস্থাগুলোতে প্রতি বছর ৪ লাখ দক্ষ কর্মী নিয়োগের পরিকল্পনা করছে জার্মানির নতুন জোট সরকার।

বিদেশ থেকেই সেই কর্মী আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

জার্মান ইকোনোমিক ইনস্টিটিউট-এর সমীক্ষা অনুযায়ী, বয়স্ক কর্মীর সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে দেশটিতে। যাদের বেশির ভাগই অবসর নেবেন এ বছর। ফলে বিপুল সংখ্যক কর্মীর চাহিদা দেখা দেবে। ওই সমীক্ষায় আরও দাবি করা হয়েছে এ বছরেই তিন লক্ষেরও বেশি কর্মীর অভাব দেখা দেবে। ২০২৯-এর মধ্যে সেই সংখ্যাটা সাড়ে ৬ লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে। ফলে কর্মীর অভাব এড়াতে শীঘ্রই সেই বিদেশ থেকে দক্ষ কর্মীর আনার পরিকল্পনা করছে সরকার।

সরকারের ফ্রি ডেমোক্র্যাটস (এফডিপি)-এর নেতা ক্রিশ্চিয়ান দুয়ের বলেন, “দক্ষ কর্মীর অভাব চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। এর ফলে দেশের অর্থনীতি ক্রমেই মন্থর হয়ে পড়ছে। যা খুবই উদ্বেগের বিষয়। তাই নবনির্বাচিত সরকার বিদেশ থেকে কর্মী আনার কথা চিন্তা করছে।”

নতুন অভিবাসন নীতিকে কাজে লাগিয়েই এই সমস্যা সমাধানের একটা পথ খোঁজা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন দুয়ের। যত দ্রুত সম্ভব ওই নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করা হবে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

;

মিয়ানমারে সু চির দলের সংসদ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
অং সান সু চির দল এনএলডির নেতা ও সাবেক এমপি ফিও জেয়র থা

অং সান সু চির দল এনএলডির নেতা ও সাবেক এমপি ফিও জেয়র থা

  • Font increase
  • Font Decrease

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চির দল এনএলডির নেতা ও সাবেক এমপি ফিও জেয়র থাও এবং গণতন্ত্রপন্থী নেতা কিয়াউ মিন ইউকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন দেশটির সামরিক আদালত।

মিয়ানমার জান্তা সরকার বলেছে, নভেম্বরে গ্রেফতার হওয়া ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির সদস্য ফিও জেয়ার থাওকে 'সন্ত্রাস বিরোধী আইনে আজ শুক্রবার মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে। এর সঙ্গে কিয়াউ মিন ইউকেও একই সাজা দেওয়া হয়েছে।

বিবৃতির সঙ্গে ফিয়াউ জেয়ার থাও এবং কিয়াউ মিন ইউর হাতকড়া পরা ছবিও প্রকাশ করে মিয়ানমারের সামরিক সরকারের মিডিয়া টিম।

মিয়ানমার জান্তা ভিন্নমতের বিরুদ্ধে দমন-পীড়নের অংশ হিসেবে কয়েক ডজন অভ্যুত্থানবিরোধী কর্মীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে। কিন্তু মিয়ানমারে কয়েক দশক ধরে কোন মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয়নি।

এর আগে গত নভেম্বরে ইয়াঙ্গুনের একটি ফ্ল্যাট থেকে দুটি পিস্তল, একটি বন্দুক ও বেশকিছু গুলিসহ এনএলডি নেতা ও জনপ্রিয় হিপহপ সংগীতশিল্পী ফিও জেয়ার থাওকে গ্রেফতারের কথা জানায় জান্তা সরকার।

২০১৫ সালে সু চির দল এনএলডির হয়ে এমপি নির্বাচিত হন ফিও জেয়ার থাও। সেবারই বেসামরিক গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থায় ফিরে আসে মিয়ানমার। এর আগেও সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে গাওয়া তার হিপহপ সংগীত ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে। ২০০৮ অবৈধ সংগঠনে জড়িত থাকা এবং বিদেশি মুদ্রা রাখার দায়ে কারাদণ্ড ভোগ করেন তিনি।এ ছাড়া সম্প্রতি অং সান সু চিকেও ৬ বছরের কারাদণ্ড দেন মিয়ানমারের সামরিক আদালত।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী দেশটির  নেত্রী অং সান সুচিকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে বন্দী করে। এরপর থেকে সেখানে চলছে জান্তাবিরোধী রক্তক্ষয়ী প্রতিবাদ-বিক্ষোভ। এ বিক্ষোভে  এখন পর্যন্ত এক হাজার ৪০০ জনের বেশি আন্দোলনকারীকে হত্যা করা হয়।

;