মক্কার দশ লাখ রোজাদারের জন্য ইফতারের আয়োজন



ইসলাম ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
করোনার কারণে সৌদি আরবে এভাবে ইফতার আয়োজন এবার হচ্ছে না, ছবি: সংগৃহীত

করোনার কারণে সৌদি আরবে এভাবে ইফতার আয়োজন এবার হচ্ছে না, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা মহামারির প্রকোপের মাঝে শুরু হতে চলেছে পবিত্র রমজান মাস। রমজান মাসে মক্কার বসবাসরত বিদেশি নাগরিক ও সীমিত আয়ের মানুষের জন্য ইফতারের ব্যবস্থা করবে হারামাইন অধিদপ্তর। ইফতারের এ আয়োজন করা হবে প্রায় দশ লাখ মানুষের জন্য। এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় অনুমতিও পেয়েছে তারা।

‘মিলিয়ন রোজাদারের ইফতার’ কর্মসূচির অনুমতির জন্য খাদেমুল হারামাইন বাদশাহ সালমানের উপদেষ্টা ও মক্কার গভর্নর আমির খালেদ ফয়সালের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন হারামাইন প্রেসিডেন্সির প্রধান প্রফেসর ড. শায়েখ আবদুর রহমান বিন আবদুল আজিজ আস সুদাইস।


কর্মসূচিটি মূলত: ‘মক্কার অধিবাসীদের সঙ্গে সদয় আচরণ’ প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত। এই কর্মসূচি মক্কার স্থানীয় কয়েকটি সেবা সংস্থার সহযোগিতায় পরিচালিত হবে।

এ বিষয়ে শায়েখ সুদাইস বলেন, রোজাদারের ইফতারির আয়োজনের অনুমতি ও সহযোগিতা সৌদি সরকারের ধারাবাহিক মানবিক কাজের প্রতিচ্ছবি।

করোনা মহামারির কঠিন এই সময়ে শায়েখ সুদাইস প্রত্যাশা করেন, মক্কা অঞ্চলের কেউ সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং চিকিৎসাক্ষেত্রে কোনো ধরনের সমস্যার শিকার হবেন না। বিশেষত যারা সীমিত আয়ের মানুষ এবং অসচ্ছ্বল পরিবারের। মক্কার প্রশাসন ও সৌদি সরকার এ বিষয়ে সজাগ। তারা এই কঠিন সময়ে সর্বদা মানুষের পাশে আছেন ও থাকবেন।

শায়েখ সুদাইস আরও বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু সময় থেকেই মক্কার গর্ভনর জনগণের নিরাপত্তা ও সুকিচিৎসার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে। সচেতনতা ও সতর্কতার জন্য সার্বিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে এবং এই সঙ্কট কাটিয়ে উঠার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

মক্কার প্রধান খতিব এই খেদমতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং রমজানের ইফতারি কার্যক্রম যেন সুন্দর ও সুচারুরূপে বাস্তবায়ন করা যায়- সেজন্য সহযোগিতা কামনা করেন।

এসব ইফতার মক্কার অধিবাসী ও প্রবাসীদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হবে। করোনার কারণে সৌদি আরবে কারফিউ চলছে। ইতোমধ্যে দেশটিতে জামাতে তারাবি এবং মসজিদকেন্দ্রিক রমজানের সব আয়োজন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

হারামাইন প্রেসিডেন্সির পেজ অবলম্বনে মুহিউদ্দীন ফারুকী