হেফজখানা খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত



ইসলাম ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
একটি হেফজখানার চিত্র, ছবি: সংগৃহীত

একটি হেফজখানার চিত্র, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা পরিস্থিতিতে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। তার পরও বিশেষ বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার শর্তে শুধুমাত্র হেফজখানাগুলো খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রাত সাড়ে দশটার পর জাতীয় দীনী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের সহ-সভাপতি ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের উপ-পরিচালক (অনুবাদ ও সংকলন বিভাগ) ড. মুশতাক আহমদ বিষয়টি বার্তা২৪.কমকে নিশ্চিত করেছেন।

ড. মুশতাক আহমদ বলেন, ২ জুলাই বৃহস্পতিবার জাতীয় দীনী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের পক্ষ থেকে মুফতি মোহাম্মদ আলী, মাওলানা ইয়াহয়া মাহমদ, মাও মজিবুর রহমান ও আমি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর কওমি মাদরাসার হিফজখানাসমূহ খুলে দেওয়ার আবেদন করি। ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী টেলিফোনে হেফজখানা খুলে দেওয়ার বিষয়ে সরকারের সম্মতির কথা জানান। তবে মাদরাসাগুলোকে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এ সময় তিনি হেফজখানা খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তের জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

তবে কবে থেকে মাদরাসাগুলোকে ক্লাস শুরু হবে সে বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এখনও দেওয়া হয়নি। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সম্পর্কে প্রয়োজনীয় প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। পরে কওমি মাদরাসার বোর্ডগুলো বসে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে।