নেত্রকোনায় দুই গ্রামের বাসিন্দাদের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নেত্রকোনা
নেত্রকোনায় দুই গ্রামের বাসিন্দাদের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

নেত্রকোনায় দুই গ্রামের বাসিন্দাদের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

  • Font increase
  • Font Decrease

নেত্রকোনায় দুই গ্রামের বাসিন্দাদের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ১০ জনকে স্থানীয় মদন উপজেলা স্থাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে এবং শরীফ নামের এক যুবককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া অন্য আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

শনিবার (৮ আগস্ট) দুপুর থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত জেলার মদন উপজেলার বাঁশরী ও নায়েকপুর গ্রামের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে স্থানীয় নায়েকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান রোমানের সাথে কথা হলে তিনি এসব তথ্য নিশ্চত করেন।

পুলিশ ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানা গেছে, সম্প্রতি বাঁশরী গ্রামের ট্রলার চালক নুরুল ইসলামের সাথে নায়েকপুর গ্রামের ট্রলার চালক জাসদের তর্কবিতর্কের একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে এ ঘটনায় গত ২ আগস্ট নায়েকপুর গ্রামের সবুজ ব্যাপারী বাদী হয়ে বাঁশরী গ্রামের হাজী জালাল উদ্দিনকে প্রধান আসামি করে ২৫ জনের বিরুদ্ধে মদন থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে বাঁশরী বাজারের ব্রিজের পাশে ওই দুই গ্রাম লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে মদন থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দীর্ঘ ৩ ঘণ্টারও বেশি সময় চেষ্টা চালিয়ে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে কথা হলে নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খালিয়াজুরি সার্কেল) জামাল উদ্দিন জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে এবং এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :