হলি ফ্যামিলিতে স্বাভাবিক চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির অঙ্গ প্রতিষ্ঠান দেশের স্বনামধন্য ও ঐতিহ্যবাহী হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বাভাবিক চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) থেকে নতুন আঙ্গিকে উন্নত সেবার ব্রত নিয়ে হাসপাতালের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু করে হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে।

এখন থেকে সব ধরনের রোগী এই হাসপাতালে ভর্তি, জরুরি ও বহির্বিভাগে চিকিৎসা গ্রহণ করতে পারবে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সার্বক্ষণিক খোলা রয়েছে। অতি মুমূর্ষু যেকোনো রোগী রাতদিন ২৪ ঘণ্টা সেখান থেকে চিকিৎসাসেবা গ্রহণ করতে পারবে। এছাড়াও প্রতিদিন সকালে আউটডোরে ও বিকেলে স্পেশালাইজড চিকিৎসকরা নিয়মিত রোগী দেখছে। এই হাসপাতালে জীবাণুমুক্ত পরিবেশে রোগীদের সব ধরনের চিকিৎসা ও টেস্টের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক প্রফেসর ডা. মোহাম্মদ মোর্শেদ (পিএইচডি) বলেন, অতীতে মানসম্মত সেবা নিতে মানুষ যেভাবে হলি ফ্যামিলি হাসপাতালমুখী হতেন, আমার বিশ্বাস এখনো সেভাবেই হবেন। কারণ, সেরা মানের সেবা দিতে আমরা কার্যকর পদক্ষেপ নিয়েছি।

আধুনিক ও মানসম্পন্ন সেবার নিশ্চয়তার ফলে আবারো রোগীরা হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালমুখী হবে বলে পুনরায় আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

হাসপাতালের সেবা সম্পর্কিত যেকোনো জরুরি ও অতি প্রয়োজনীয় তথ্য জানাতে চালু রয়েছে টেলিফোন সার্ভিস। চিকিৎসা সম্পর্কিত তথ্যের জন্য ফোন করতে পারেন (০২- ৪৮৩১১৭২১-৫) এই নম্বরে। কর্তৃপক্ষ জানায়, রোগীর সেবায় সর্বদাই খোলা থাকবে এই নম্বরটি।

হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে মানবসেবার উদ্দেশে চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। পাশাপাশি, এই হাসপাতালটি আন্তর্জাতিক মানের সেবা দানেও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

এদিকে এই হাসপাতালটি রাজধানীর অন্যান্য বেসরকারি হাসপাতালের চেয়ে কম খরচে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছে বলে দাবি করেছেন হাসপাতাল সংশ্লিষ্টরা।

উল্লেখ্য, গত ৫ মাস যাবৎ এই হাসপাতালটি সরকার পরিচালিত সর্ববৃহৎ বেসরকারি কোভিড হাসপাতাল হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে সেবা প্রদান করেছে, যা ইতোমধ্যে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বেশ প্রশংসিত হয়েছে।