কিশোরীকে আটকে রেখে রাতভর ধর্ষণের অভিযোগ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কুপ্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক রাতভর ধর্ষণ করা হয়েছে স্কুলপড়ুয়া এক কিশোরীকে। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীর অভিভাবক মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) গঙ্গাচড়া মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

ধর্ষণের এ ঘটনাটি ঘটেছে রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার গজঘণ্টা ইউনিয়নের উমরগ্রামে। বুধবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আলামত পরীক্ষা করানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গজঘণ্টার উমরগ্রামের রুহুল কুদ্দুসের ছেলে আল-আমিন (২৭) একই এলাকার স্কুলপড়ুয়া ওই কিশোরীকে বিভিন্ন সময়ে উত্যক্ত করে আসছিলেন। সম্প্রতি এক সন্তানের জনক আল-আমিন তাকে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়। এতে সাড়া না দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে ওই যুবক। গত ১৮ নভেম্বর মধ্যরাতে কিশোরী মেয়েটিকে বাড়ি থেকে মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যান। এসময় তার সঙ্গে আরও কয়েকজন ছিল। ওইদিন আল-আমিন তার নিজের শোবার ঘরে রাতভর মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের একপর্যায়ে মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে পড়লে সটকে পড়েন ওই যুবক। পরের দিন সকালে মেয়েকে বাড়িতে দেখতে না পেয়ে তার পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে আল-আমিনের ঘর থেকে উদ্ধার করে।

ওই ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাতে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এরপর বিষয়টি জানাজানি হলে আসামিরা আত্মগোপনে চলে যান।

এব্যাপারে গঙ্গাচড়া মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুশান্ত কুমার সরকার বলেন, আসামিকে গ্রেফতারে জোর প্রচেষ্টা অব্যহত রয়েছে। বুধবার রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আলামত পরীক্ষা করা হয়েছে।