ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৩২ লাখ, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ৭৫৪ জনের



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশে আজ পর্যন্ত (০১ মার্চ) করোনার ভ্যাকসিন নিয়েছেন মোট ৩২ লাখ ২৬ হাজার ৮২৫ জন। তাদের মধ্যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে ৭৫৪ জনের। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বলতে স্বাস্থ্য অধিদফতর সামান্য জ্বর, গা ব্যথা, গলা ব্যথা, দুর্বলতা, টিকা দেওয়ার স্থান ফুলে যাওয়া বা লাল হওয়াকে বুঝিয়েছে।

সোমবার (০১ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদফতর ভ্যাকসিন বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে। মোট ভ্যাকসিন নেওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে পুরুষ ২০ লাখ ৮১ হাজার ৮১৬ জন আর নারী ১১ লাখ ৪৫ হাজার ৯ জন। সোমবার ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ১৬ হাজার ৩০০ জন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৬৯ হাজার ৬৩৫ জন আর নারী ৪৬ হাজার ৬৬৫ জন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুক্রবার এবং জাতীয়ভাবে ঘোষিত ছুটির দিন বাদে প্রতিদিন সকাল সাড়ে আটটা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত পরিচালিত হচ্ছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ঢাকা বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছে ৯ লাখ ৮৪ হাজার ৪৮৮ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ ছয় লাখ ৪২ হাজার ৪৯৩ জন আর নারী তিন লাখ ৪১ হাজার ৯৯৫ জন।

ময়মনসিংহ বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ৩৯ হাজার ২৮ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ ৮৭ হাজার ৫৩৭ জন আর নারী ৫১ হাজার ৪৯১ জন।

চট্টগ্রাম বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন সাত লাখ চার হাজার ৫৯৯ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ চার লাখ ৫৮ হাজার ১৬৯ জন আর নারী দুই লাখ ৪৬ হাজার ৪৩০ জন।

রাজশাহী বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন তিন লাখ ৫৫ হাজার ৩৮১ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ২৭ হাজার ২৭২ জন আর নারী এক লাখ ২৮ হাজার ১০৯ জন।

রংপুর বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন দুই লাখ ৯৩ হাজার ৪২৬ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৮৮ হাজার ৭২৮ জন আর নারী এক লাখ চার হাজার ৬৯৮ জন।

খুলনা বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন চার লাখ ৯০৬ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৫৩ হাজার ৪২ জন আর নারী এক লাখ ৪৭ হাজার ৮৬৪ জন।

বরিশাল বিভাগে ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ৫১ হাজার ৯৩১ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ ৯৯ হাজার ৭৯৫ জন আর নারী ৫২ হাজার ১৩৬ জন।

সিলেট বিভাগে মোট ভ্যাকসিন নিয়েছেন এক লাখ ৯৭ হাজার ৬৬ জন, তাদের মধ্যে পুরুষ এক লাখ ২৪ হাজার ৭৮০ জন আর নারী টিকা নিয়েছেন ৭২ হাজার ২৮৬ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, সোমবার বিকাল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত নিবন্ধন করেছেন ৪৪ লাখ ১৩ হাজার ৮৯২ জন।