যশোরে কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত রোগীর মৃত্যু



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, যশোর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

যশোরে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত আরেক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তার নাম বিমল চন্দ্র দে (৬০)।

রোববার (১৬ মে) বিকেল তিনি যশোর উপশহরের বলাকা হোটেলে মারা যান। গত বৃহস্পতিবার যশোরেই প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা অবস্থায় আরও এক রোগী মারা যান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, বিমল চন্দ্র দে ক্যান্সারের শেষ স্টেজের রোগী ছিলেন।

বিমল চন্দ্র দে শরীয়তপুর সদরের পালং এলাকার গৌরাঙ্গ চন্দ্র দের ছেলে। কোয়ারেন্টিনে তার সঙ্গে তার স্ত্রী ও ছেলে ছিলেন।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বিমল চন্দ্র ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন। তিনি স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়েছিলেন। গত ৮ মে তারা বেনাপোল হয়ে দেশে ফেরেন। ওইদিনই তাদের যশোর উপশহরের বলাকা হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। আজ দুপুরের পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। বিকেল ৪টা ৪৫ মিনিটে তাকে বক্ষব্যাধি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তিনি মারা যান।

এর আগে ১৩ মে যশোর হাসান হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা আম্বিয়া খাতুন (৩৩) নামের এক ক্যান্সার রোগী মারা যান।