অবৈধ দখল ও দূষণমুক্ত নগরী গড়ে তুলব: মেয়র আতিক



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
অবৈধ দখল ও দূষণমুক্ত নগরী গড়ে তুলব: মেয়র আতিক

অবৈধ দখল ও দূষণমুক্ত নগরী গড়ে তুলব: মেয়র আতিক

  • Font increase
  • Font Decrease

সবার বাসযোগ্য অবৈধ দখল ও দূষণমুক্ত আধুনিক নগরী গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলকে আন্তরিক ভাবে কাজ করতে হবে বলে জানিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, জনতার শক্তিই বড় শক্তি। এই শক্তিকে কাজে লাগিয়ে অবৈধ দখল ও দূষণমুক্ত নগরী গড়ে তুলতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) রাজধানীর মিরপুরে ১০ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত ২য় পরিষদের ৬ষ্ঠ কর্পোরেশন সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

ডিএনসিসি মেয়র আগামী ১ মাসের মধ্যে সকল অবৈধ দখল বিশেষ করে অবৈধ দখলে থাকা খালগুলো সম্পর্কে সুস্পষ্ট তথ্য সরবারহের জন্য সকল কাউন্সিলরের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি নগরীর জলাবদ্ধতা ও উদ্ভূত সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে সাধারণ ও সংরক্ষিত মোট ৭২ জন কাউন্সিলরের প্রত্যেককে ১০ লক্ষ টাকা করে থোক বরাদ্দ প্রদানের ঘোষণা দেন।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, সম্মানিত নাগরিকদের তথ্য ও সেবা গ্রহণ, মতামত জানানো এবং অভিযোগ দাখিলের জন্য "সবার ঢাকা" মোবাইল অ্যাপস, জরুরি সেবা সংক্রান্ত ৩৩৩ নম্বর এবং ডিএনসিসির ০৯৬০২২২২৩৩৩ ও ০৯৬০২২২২৩৩৪ নম্বর হটলাইন চালু রয়েছে।

তিনি বলেন, নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন এবং দূষণ নিয়ন্ত্রণে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে ডিএনসিসি বিভিন্ন জায়গায় খাল উদ্ধার ও পরিষ্কার কার্যক্রম শুরু করেছে, জনগণের সহায়তায় তা অব্যাহত থাকবে।

মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আমি কথায় নয় কাজে বিশ্বাসী বলেই পহেলা জুন ঢাকায় দীর্ঘ সময় ধরে রেকর্ড ৮৫ মিলিমিটার পরিমাণ বৃষ্টিপাত হলেও দ্রুততম সময়ের মধ্যেই নগরবাসীকে জলজট থেকে মুক্ত করা সম্ভব হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতিতেও নগরবাসীর কল্যাণে অক্লান্ত পরিশ্রম করে আন্তরিক ভাবে কাজ করার জন্য সকলের পক্ষ থেকে ডিএনসিসির মানবিক মেয়রকে ধন্যবাদ জানানো হয়।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজাসহ উর্ধ্বতন সকল কর্মকর্তা এবং কাউন্সিলরবৃন্দ।