ডেঙ্গুতে স্ত্রী সন্তান হারিয়ে রাষ্ট্র ও মেয়র তাপসকে দুষলেন তরুণ



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ডেঙ্গুতে স্ত্রী সন্তান হারিয়ে রাষ্ট্র ও মেয়র তাপসকে দুষলেন তরুণ

ডেঙ্গুতে স্ত্রী সন্তান হারিয়ে রাষ্ট্র ও মেয়র তাপসকে দুষলেন তরুণ

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীতে আবারও মহামারি রূপ নিচ্ছে ডেঙ্গু রোগ। গত কয়েক দিনে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। ডেঙ্গুর ভয়াবহতা নগরবাসীকে আতঙ্কিত করে তুলছে। এরকম একটি ঘটনা ঘটেছে রাজধানীর শান্তিনগর এলাকায়। শান্তিনগর যেন অশান্তির নগরে রূপ নিয়েছে। নিজের স্ত্রী ও নবজাতক সন্তানকে হারিয়ে নির্বাক হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্রকে দায়ী করে কষ্টের কথাগুলো লিখেছেন মুসলিম উদ্দিন তরুণ নামের এক লোক।

সাংবাদিক ও আইনজীবীদের উদ্দেশ্য করে ডেঙ্গুতে স্ত্রী সন্তানকে হারিয়ে মুসলিম উদ্দিন তরুণ তার ফেসবুক পেজে লিখেছেন, " আমার স্ত্রী ও সন্তানের মৃত্যুর জন্য এই রাষ্ট্রই দায়ী। প্রিয় সাংবাদিক আইনজীবীবৃন্দ। ঢাকার শান্তিনগরে একসময়ে পানির জলাবদ্ধতা চাষাবাদ করলেও এখন সেটা ডেঙ্গু চাষাবাদের পরিণত হয়েছে। এর রূপকার হলেন মিস্টার আবুল কমিশনার। যিনি ২০২০ সালে ১৩ নং ওয়ার্ডে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের  কমিশনার নির্বাচিত হয়েছেন। আর যিনি ডেঙ্গু নিয়ে অহংকার করে জনগণের সেবার কথা ভুলে গেছেন তার নাম ব্যারিস্টার তাপস। গত ছয় মাসে ১৪২ শান্তিনগর, পল্টন, ঢাকা এলাকায় ডেঙ্গু মশার কোন ওষুধ দেন নি।"

আক্ষেপ করে লিখেছেন, খুব সুন্দর সাজানো ছোট্ট একটি সংসার মুহূর্তের মধ্যে মাত্র ৬ দিনের ব্যবধানে নিঃশেষ করে দিল। গত মাসের ১৪ জুন আমার গর্ভবতী স্ত্রীর গায়ে হালকা জ্বর আসে। ১৫ জুন মগবাজার আদ-দ্বীন হাসপাতালে টেস্ট করাতে নিয়ে আসি, ১৬ জুন টেস্টের রিপোর্ট প্রকাশ করার সাথে সাথে ডাক্তার জানালেন রোগীর শরীরের প্লাটিলেট মাত্র ১৮ হাজার। একথা লিখে শান্তিনগর এলাকা ও তার স্ত্রীর কবরের ছবিও শেয়ার করেন।

মুসলিম উদ্দিন তরুণ লিখেছেন, "আল্লাহ আমার বাচ্চা ও স্ত্রীকে জান্নাতবাসী করে দাও। ডেঙ্গুজ্বর আমার ছোট সংসারটিকে সাইক্লোন ঝড়ের মতো মাত্র ৬ দিনে লণ্ডভণ্ড করে দিয়ে গেল। আমি বাবা ও স্বামী হিসেবে নিজেকে ব্যর্থ মনে করছি।