রংপুরে মোবাইল সিম না দেওয়ায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুরের তারাগঞ্জে ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত সৈকত রায় (১৪) নামে এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সকালে উপজেলার ইকরচালী ইউনিয়নের হাজিপুর বায়ানপাড়া গ্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সৈকত ওই গ্রামের বিমল চন্দ্র রায়ের ছেলে ও স্থানীয় ইকরচালী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও নিহতের পরিবারের লোকজন জানান, কিশোরগঞ্জ উপজেলার রনচন্ডী স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক বিমল চন্দ্র রায়ের ছেলে সৈকত রায় (১৪) বেশ কিছুদিন ধরে মোবাইল ফোনে কথা বলা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। ফোনে অতিরিক্ত কথা বলা রোধে ও ছেলেকে পড়াশুনায় মনোযোগী করতে বিমল চন্দ্র সৈকতের মোবাইলের সিম কার্ডটি মোবাইল থেকে বের করে নেন। এতে সৈকত অভিমানে বাড়ির পাশেই তার কাকা আকাশের বাড়িতে অবস্থান করেন। কয়েকদিন ধরে সিমকার্ডটি চাওয়ার পরও বিমল চন্দ্র সিমটি না দেওয়ায় বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে তার কাকার ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

তারাগঞ্জ থানার ওসি ফারুক আহম্মেদ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন করা হয়েছে। অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।