নোয়াখালীতে মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর, আটক ১



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালী সদর উপজেলায় একটি মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। তবে ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককে স্থানীয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

আটক মোসলেহ উদ্দিন ওরফে শাকিল (১৮) জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার জিরতলী ইউনিয়নের আবদুর গফুরের ছেলে।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) সকালে আটক যুবককে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে। আর আগে, গতকাল সোমবার (১৬ আগস্ট) রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার মাইজদী শহরের মাষ্টারপাড়া এলাকায় একটি শিব মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল থেকে ধারণকৃত একটি ভিডিও চিত্র ইতোমধ্যে গণমাধ্যম কর্মীদের হাতে পৌঁছেছে। ওই ভিডিও চিত্রতে দেখা যায় শিব মন্দিরের ভিতরে থাকা দুটি প্রতিমার একটি প্রতিমা ভেঙ্গে সামনে পড়ে আছে। পাশে থাকা অন্য প্রতিমাটি ঠিক ছিল। আর মন্দিরের বাহিরে উত্তোজিত হিন্দু ধর্মাবলম্বী লোকজন অভিযুক্ত যুবককে মন্দিরের সামনের সড়কের পাশে থাকা একটি বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে বিভিন্ন প্রশ্ন করছে।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহেদ উদ্দিন এসব তথ্য নিশ্চিত করে। তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত যুবক শাকিল প্রতিমা ভেঙ্গে তাদেরকে বলে আমি তোমাদের ভগবানকে ভেঙ্গে ফেলেছি। তার কথাবার্তা একটু অসংলগ্ন ধরনের। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ওসি সাহেদ উদ্দিন বলেন, তাৎক্ষণিক হিন্দু ধর্মাবলম্বী লোকজন তাকে আটক করে এবং পুলিশে সোপর্দ করে। মঙ্গলবার সকালে তাকে নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।