আশুলিয়ায় অপহৃত শিশু সিরাজগঞ্জে উদ্ধার, গ্রেফতার ১



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সাভার (ঢাকা)
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকার আশুলিয়া থেকে অপহরণের দুইদিন পর সিরাজগঞ্জ থেকে এক শিশুকে (০৩) উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৪)। রোববার (২৪ অক্টোবর) প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ তথ্য জানান র‍্যাব-৪ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মো. মোজাম্মেল হক।

তিনি বলেন, মুক্তিপণ নেয়ার উদ্দেশ্যেই শিশু আফিয়াকে অপহরণ করে রানা। এর আগে রানা ধার দেনা করে সঠিক কাগজপত্র না নিয়ে বিদেশে কাজ করতে যায়। পরবর্তীতে বিদেশে অবস্থান করতে না পেরে ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে দেশে ফিরে আসে রানা। এই ঋণ পরিশোধের উদ্দেশ্যেই শিশু আফিয়াকে অপহরণ করেন রানা।

রানা আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুত এলাকায় শিশু আফিয়ার নানীর বাড়িতে ভাড়া থাকতো এবং রিক্সা চালিয়ে ও কয়েল কারখানায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুৎ কবরস্থান রোড এলাকা থেকে ৩ বছরের শিশু আফিয়াকে অপহরণ করে গ্রেফতারকৃত রানা। পরে পরিবারের কাছে ৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয় এবং মুক্তিপণ না দিলে শিশুটিকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করা হয়।

র‍্যাব জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব জানতে পারে অপহরণকারী সিরাজগঞ্জ জেলার শাহাজাদপুর থানায় দূর্গম চরাঞ্চলে অবস্থান করছে। পরে দুই দিন ধরে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানায় দুদিনের সাঁড়াশি অভিযান শেষে রোববার (২৪ অক্টোবর) ভোরে কৈজুড়ি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সুইসগেট এলাকার একটি বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার ও অপহরণকারী মো. রানা আহমেদ বাকি (৩৪) কে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব জানায়, ভুক্তভোগী শিশুর বাবা আবুল কালাম আজাদ (২৮) ও মা সোনিয়া বেগম (২৭) দুজনই গার্মেন্টসে চাকরি করত। এ কারণে মেয়েকে দীর্ঘ দিনের পরিচিত আনোয়ারা নামে সম্পর্কে এক বয়োবৃদ্ধ নানির বাসায় রেখে অফিসে যেত। এই নানির পাশের রুমে অপহরণকারী রানা ১০০০ টাকা ভাড়ায় বসবাস করত। উক্ত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানায় র‌্যাব।