টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ হয়ে শয্যাশায়ী মুয়াজ্জিন



উপজেলা,করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ)
আবু ছায়েদ/ ছবি: বার্তা২৪.কম

আবু ছায়েদ/ ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

টাকার অভাবে দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা বন্ধ হয়ে শয্যাশায়ী মুয়াজ্জিন। তার নাম আবু ছায়েদ (৬০)। কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার লোহাজুরী ইউনিয়নের উওর পূর্বচর পাড়াতলা গ্রামের বাসিন্দা তিনি। একই গ্রামের মসজিদে মুয়াজ্জিনের কাজ করতেন। কিন্তু তিনি অসুস্থ হয়ে শয্যাশায়ী হবার পর থেকে তার কণ্ঠে আজান শুনতে পান না গ্রামবাসী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আবু ছায়েদের কোন সন্তান নেই। গ্রামের ঈদগাহ মসজিদে ২০ বছর ধরে তিনি আজান দেন। অর্থনৈতিকভাবে অসচ্ছল তিনি। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। তার কোমড়ে ও পায়ে সমস্যা। অবস্থার উন্নতি না হওয়াতে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল হাসপাতালে ডাক্তার দেখানো হয়। পরীক্ষা নিরিক্ষার পর ডাক্তার বলেছে অপারেশন লাগবে। এতে খরচ হতে পারে ৬০-৭০ হাজার টাকা। কিন্তু তার পক্ষে এই খরচ বহন করা সম্ভব না। বর্তমানে চিকিৎসা বন্ধ রয়েছে। ওষুধ খাবার টাকাও নেই। একটি ভালো হুইল চেয়ারেরও প্রয়োজন বসার জন্য।

আবু ছায়েদ বার্তা২৪.কমকে বলেন, কখনো কারো কাছে সহায়তা চাইব ভাবতে পারিনি। আমার কোন সন্তান নেই। অসুস্থ হবার পর থেকে সংসার চালানো যাচ্ছে না। মসজিদে আজান দিতে পারছি না, মনে কষ্ট। আল্লাহ যেভাবে রাখছেন তাতে সন্তুষ্ট। কেউ নিজ ইচ্ছাতে সহায়তা করলে ভালো হয়।

আবু ছায়েদের স্ত্রী খোদেজা বেগম বলেন, চিকিৎসা চালানোর মতো টাকা আমাদের নেই। যা ছিল তা ডাক্তার দেখানো, পরীক্ষা নিরিক্ষা, ওষুধের পিছনেই শেষ। সংসার চালানো যাচ্ছে না। খুব কষ্টে আছি। কেউ সহায়তায় এগিয়ে আসলে উপকার হবে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. আবুল কাশেম বলেন, তিনি (আবু ছায়েদ) খুব ভালো মানুষ। গ্রামের মসজিদের মুয়াজ্জিন। টকার অভাবে চিকিৎসা করতে পারছেন না। আমরাও সামাজিকভাবে চেষ্টা করব কিছু সহায়তা করার।

যে কোন সহায়তার জন্য আবু ছায়েদের স্ত্রী খোদেজা বেগমের নাম্বার 01935-682054।