লক্ষ্মীপুরে আমন ধানের বাম্পার ফলন, ন্যায্য দামের শঙ্কায় কৃষক



মীর ফরহাদ হোসেন সুমন, বার্তা২৪.কম, লক্ষ্মীপুর
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

লক্ষ্মীপুরে আমন ধানের ফলন ভালো হয়েছে। এবছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবং সঠিক পরিচর্যার ফলে আশানুরূপ ফলনে কৃষকদের মুখে হাসি ফুটেছে। তবে ধানের ন্যায্য দাম নিয়ে হতাশায় রয়েছেন কৃষকরা।

কৃষকরা বলছেন, বাজারে ন্যায্যমূল্য পেলে ধানের ভর্তুকি দিতে হবে না। কৃষি বিভাগ বলছে, ধানের বাজারমূল্য ভালো রয়েছে। খাদ্য বিভাগের সাথে যোগাযোগ করে ধান বিক্রি করলে লাভবান হবে কৃষক।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, লক্ষ্মীপুরে ৮১ হাজার ২৬৫ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ হয়েছে। এরমধ্যে সদরে ২২ হাজার ৫০০ হেক্টর, রামগঞ্জে ৩ হাজার ১০, রামগতিতে ২৩ হাজার ৫০০, কমলনগর ১৯ হাজার ৩৬৫, রায়পুরে ১২ হাজার ৮৯০ হেক্টর। এছাড়া ১৯৬টি প্রদর্শনীর মাধ্যমে আগাম জাতের আমনের চাষ হয়েছে ১০ হেক্টর জমিতে। এধরনের জাতের মধ্যে রয়েছে ব্রিধান-৭১, ব্রিধান-৭২, ব্রিধান-৭৪, ব্রিধান-৮৭, বিনা-৭ ও ১৬ জাতের ধান।

barta24

সরেজমিনে দেখা যায়, জমিতে আমন ধানের ফলন ভালো হয়েছে। গাছের শীষ ধানে নুইয়ে পড়ছে। কৃষকরা ধান কাটা শুরু করে দিয়েছে। কেউবা ধান ঘরে তোলা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

কৃষকরা জানান, আমন ধানের রোগবালাই খুব কম। ফলন আশার চেয়ে বেশি হয়েছে। সাধারণত অগ্রহায়ণ মাসের শেষ দিকে আমন ধান কাটা হয়। এবার অগ্রাহায়ণের শুরুতেই ধান কাটতে পারছে কৃষক। ন্যায্যমূল্য পেলে সব খরচ বাদ দিয়ে লাভবান হবেন বলে আশা করছেন কৃষকরা। তাদের অভিযোগ, বাজারে নকল কীটনাশকে ভরপুর। নকল কীটনাশক ব্যবহার করে অনেক কৃষক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন। এসব বিষয়ে প্রশাসনের তদারকি না থাকায় হতাশা ব্যক্ত করেন তারা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক ড. মো. জাকির হোসেন বলেন, আমন মৌসুমে কম সময়ে অধিক ফলন হয়। আমন জাতের ধানের আবাদ বৃদ্ধির জন্য কাজ করছি। নতুন জাতগুলোর ১৯৬টি প্রদর্শনী দেওয়া হয়েছে। ফলনও ভালো হয়েছে। জমিতে বোরো চাষের আগে আলু-সরিষাসহ রবিশস্য উৎপাদন করতে পারবে। এটি কৃষকদের বোনাস ফসল। কৃষকের উৎপাদন আয় দুটোই বাড়বে। এছাড়া বাজারে নকল কিটনাশক ছড়াছড়ি। এনিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানান তিনি।

মহানায়কের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সেমিনার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম,টাঙ্গাইল
ছবি: মহানায়কের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সেমিনার

ছবি: মহানায়কের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সেমিনার

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে অনলাইন সেমিনার করেছে সরকারি সা'দত কলেজ করটিয়ার ইতিহাস বিভাগ।

শনিবার(২২ জানুয়ারি) বেলা ১১ টা থেকে ঘন্টা ব্যাপী অনলাইন প্লাটফর্ম জুমের মাধ্যমে ইতিহাস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড.তাহমিনা খানের সভাপতিত্বে এই সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। ইতিহাস বিভাগ আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে ইতিহাস বিভাগের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনাকালে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে বাঙালির বিজয় পূর্ণতা পেয়েছিল বলে বক্তারা উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সরকারি সা'দত কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর মৃদুল চন্দ্র পোদ্দার শুরুতেই হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি তার বক্তব্যে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকালে জাতির পিতার যুক্তরাজ্য ও ভারত সফরের মাধ্যমে সূচিত বাংলাদেশের কূটনৈতিক ও রাজনৈতিক বিজয়ের প্রসঙ্গ তুলে ধরেন। বাংলাদেশের স্বাধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সকল প্রকার শোষণ-নিপীড়ন-বঞ্চনার ইতি টেনে বাঙ্গালী জাতির আর্থ সামাজিক মুক্তির লক্ষ্যে এই মহানায়কের সূচিত অগ্রযাত্রার এক ঐতিহাসিক আলেখ্য তিনি উপস্থিত সকলের সামনে তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সরকারি সা'দত কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মো. মোশারফ হোসেন প্রাবন্ধিক উপস্থাপন করেন ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক মো.হান্নান মিয়া,মূখ্য আলোচক ছিলেন ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সানজিদা আক্তার কেয়া ।
অনুষ্ঠানে সঞ্চালক ছিলেন ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক দিলরুবা নার্গিস ।

;

প্রশ্নপত্র জালিয়াতি চক্রের ১০ সদস্য গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সরকারি নিয়ােগ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ও প্রশ্নের উত্তর সরবরাহকারী চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীর মিরপুর, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল ও কাকরাইল এলাকা হতে তাদের গ্রেফতার করা হয় ।

এসময় তাদের কাছ থেকে ৬টি ইয়ার ডিভাইস, মাস্টার কার্ড, মােবাইল সিম, ব্যাংকের চেক ৫ টি, নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প ৭টি, স্মার্ট ফোন ১০টি, বাটন মােবাইল ৬টি, প্রবেশপত্র ১৮টি ও চলমান পরীক্ষার ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র ৩ সেট জব্দ করা হয়।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রধান) এ কে এম হাফিজ আক্তার এ তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নােমান সিদ্দিকী, মাহমুদুল হাসান আজাদ, আল আমিন রনি, নাহিদ হাসান, শহীদ উল্লাহ, তানজির আহমেদ, মাহবুবা নাসরীন রুপা, রাজু আহমেদ, হাসিবুল হাসান ও রাকিবুল হাসান।

হাফিজ আক্তার বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মাহমুদুল হাসান আজাদ সিজিএ অফিসের সরকারী কর্মকর্তা এবং মাহবুবা নাসরীন রুপা বগুড়ার ধুপচাঁচিয়া উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান।

গােয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশ কাকরাইলে অবস্থিত নিউ শাহিন হােটেল থেকে অসাধু উপায়ে অবলম্বনকারী দু'জন পরীক্ষার্থীকে গ্রেফতার করেন।
তাদের দেওয়া তথ্যমতে কাফরুল থানার সেনপাড়া এলাকার একটি অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ডিভাইস, প্রশ্নপত্র এবং উত্তর পত্রের খসড়াসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

ডিবি পুলিশের অপর দল বিজি প্রেস উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে অভিযান চালিয়ে পরীক্ষার্থী এবং পরিকল্পনাকারী মাহবুবা নাসরীন রুপাকে টাকা, ডিজিটাল ডিভাইসসহ গ্রেফতার করেন। পরবর্তীতে তার দেওয়া তথ্যমতে অপর আসামিদেরকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান তিনি।

ডিবির এই কর্মকর্তা বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামিদের মধ্যে মাহমুদুল হাসান আজাদ, নাহিদ হাসান, আল আমিন সিদ্দিকী ইতিপূর্বেও প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্তে ২০১৩, ২০১৬ এবং ২০১৯ সালে গ্রেফতার হয়েছিল।

উল্লেখ্য, শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) দুপুর ৩টা থেকে বিকেল ৪টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত প্রতিরক্ষা মহাহিসাব নিরীক্ষকের কার্যালয়ের অধীন ডিফেন্স ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের ৫৫০টি অডিটর পদে নিয়ােগের জন্য ৭০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন অঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের হলগুলােতে অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা মহানগর ডিবি পুলিশের নিকট তথ্য ছিল পূর্বে বিভিন্ন সময় গ্রেফতার হওয়া কতিপয় ব্যক্তি ইলেকট্রনিক ডিভাইস, মােবাইল অ্যাপস এবং ব্যক্তি পরিবর্তন করে পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস, উত্তর/সমাধান সরবরাহসহ অসদুপায় অবলম্বন করতে পারে। ওই গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

;

যাত্রাবাড়ীতে গাজাসহ দুই মাদক চোরাকারবারি গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ১৪ কেজি গাজাসহ ২ মাদক চোরাকারবারিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মো. সোহাগ (২২) ও মো. জাহাঙ্গীর (২৮)। এসময় তাদের নিকট থেকে ২টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। 

শনিবার (২২ জানুয়ারি) র‍্যাব-১০ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি এনায়েত কবির শোয়েব এ তথ্য জানান। 

তিনি জানান, শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) রাতে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ী থানার ধলপুর এলাকায় অভিযান করে আনুমানিক ৪ লাখ বিশ হাজার টাকা মূল্যের ১৪ কেজি গাঁজাসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী বলে স্বীকার করে। তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ যাত্রাবাড়ীসহ ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় গাজাসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল বলে জানায় এই কর্মকর্তা।

;

যশোরে দেখা মেলেনি সূর্যের



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, যশোর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

যশোরে আজ শনিবার সকাল থেকে দেখা মেলেনি সূর্যের। ভোর থেকে কুয়াশাচ্ছান্ন হয়ে আছে পুরো শহর। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি শীতের তীব্রতা বাড়িয়ে দিচ্ছে আরও দ্বিগুন। ফলে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে এ জেলার খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষ।

যশোর আবহাওয়া অফিস সুত্রে জানা যায়, আজ সকাল থেকে যশোরের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ২৪° সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে আবহাওয়া অফিস সুত্রে জানা যায় আজ সহ আগামী তিন দিন যশোর সহ খুলনা বিভাগে বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

এদিকে গত ৩-৪ দিন ধরে যশোর শহর সহ পুরো জেলা জুড়ে বইছে শৌতপ্রবাহ। ফলে শ্রমজীবী মানুষ জীবিকা নির্বাহে ঘরের বাহিরে যেতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ঠান্ডা জ্বর কাশিতে বৃদ্ধ থেকে শিশুরাও আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল সহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসকের দারস্থ হচ্ছে।

শহরের বেজপাড়ার রিকশা চালক ফজলে করিম বলেন,  সকালে রিকশা নিয়ে বের হতে পরিনি। বাতাস বইছে। এই আবহাওয়ায় রিকশা চালানো কষ্টকর। সারাদিন আয় রোজগার বন্ধ।

নির্মান শ্রমিক মফিজ বলেন, সকালে কাজে বের হতে পারিনি এই আবহাওয়ায় সিমেন্ট পানির কাজ করা য়ায় না। তার উপরে আকাশ মেঘলা। বৃষ্টি হলে তো আরও সমস্যা।

শহরের দড়াটানা মোড়ে অবস্থিত চায়ের দোকানদার ইশায়াক আলী বলেন, গত ৩-৪ দিন ধরে এই অবস্থা সারাদিনে ১০ টা বিক্রি করাই মুশকীল। মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। বেচাকেনা বন্ধ।

;