অপহরণের ৭২ ঘণ্টা পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার, আটক ৩



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, লক্ষ্মীপুর
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৫) অপহরণের পর ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর প্রধান অভিযুক্তসহ দুই সহযোগীকে গ্রেফতার ও ভিকটিমকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

অপহরণের ৭২ ঘণ্টা পর ঢাকার সাভারের আশুলিয়া থানার কবিরপুর এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে ওই স্কুলছাত্রীকে বৃহস্পতিবার রাতে উদ্ধার করা হয়। একইসাথে অপহরণে জড়িতদের আটক করা হয়। আটককৃতদের শুক্রবার (১৩ মে) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

আটকরা হলেন- মূল আসামি নজরুল ইসলাম (২২), তার সহযোগি মোঃ আবদুল আজিজ অরিন (২২) ও রবিউল ইসলাম রাব্বি (২৩) । তাদের সকলের বাড়ি রায়পুর পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড কাঞ্চনপুর ও দেনায়েতপুর গ্রামে।

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিপন বড়ুয়া বলেন, এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে (১৩ মে) ওই ছাত্রীর বাবা মুহুরি আলম বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন।

মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, তার মেয়ে স্থানীয় রাখালিয়া গ্রামের প্রিন্সিপাল কাজি ফারুখি স্কুল এন্ড কলেজে ৭ম শ্রেণীতে পড়ে। স্কুলে যাওয়া-আসার পথে পৌরসভার টিএনটি সড়কের কাঞ্চনপুর গ্রামের সিএনজি চালক আক্তার হোসেনের ছেলে ডিসলাইন কর্মচারি নজরুল ইসলাম প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো। এই কাজে সহযোগিতা করতো একই গ্রামের বখাটে রবিউল ও অরিন। গত ১০ মে সকাল  ৯টার দিকে স্কুল থেকে বাসায় ফেরার পথে নজরুল তার দুই সহযোগিকে নিয়ে তার মেয়েকে অপহরণ করে ঢাকার আশুলিয়ার কবিরপুর শহরে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে আটকে রেখে ধর্ষণ করে নজরুল।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা আরাফাত হোসেন বলেন, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শুক্রবার (১৩ মে) বিকাল পাঁচটার সময় আটকদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বাল্কহেড ডুবি



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ভোলা
ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বাল্কহেড ডুবি

ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বাল্কহেড ডুবি

  • Font increase
  • Font Decrease

ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে বালু বোঝাই বাল্কহেড ডুবির ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার (২১ মে) সকালে ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া তুলাতুলী মাছ ঘাট এলাকায় মেঘনা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় মো. মনজু ও নাছিম জানান, ভোর থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে হঠাৎ নদী উত্তাল হয়ে ওঠে। এক পর্যায় ঝড়ের কবলে পড়ে নদীতে থাকা এমভি তামিম-শামিম নামে একটি বালু বোঝাই বাল্কহেড ডুবে যায়। এসময় বাল্কহেডে থাকা ৬ জনকে উদ্ধার করা হয়।

ডুবে যাওয়া এমভি তামিম-শামিম বাল্কহেডের নাবিক মো. মনির বলেন, নদী ভাঙনের ইমারজেন্সি কাজের জন্য বালু নিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ে আমাদের বাল্কহেড ডুবে যায়। পরে আমার নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ি। এসময় স্থানীয়রা আমাদের উদ্ধার করে।

ভোলার ইলিশ নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাজালা বাদশা জানান, ভোলার মেঘনা নদী ভাঙন রোধে ইমারজেন্সি কাজে ব্যবহারের জন্য বালু বোঝাই করে এমভি তামিম-শামিম নামে একটি বাল্কহেড যাচ্ছিল। তুলাতুলী মাছ ঘাট মেঘনা নদীতে বাল্কহেডটি কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায়। তবে ওই সময় বলগেটে থাকা শ্রমিকরা স্থানীয়দের সহায়তায় তীরে উঠে যাওয়ায় কেউ হতাহত হননি।

এছাড়াও কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে ভোলার ৭ উপজেলায় বেশ কয়েকটি ঘড় বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

;

চলন্ত ভ্যানে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে চালকসহ নিহত ২



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ময়মনসিংহ
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহে চলন্ত ভ্যানগাড়িতে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে চালকসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২১ মে) সকাল ৭টার দিকে মহানগরীর ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের চাইনামোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতদের একজনের নাম মিন্টু মিয়া (৩৫)। সে চর ঈশ্বরদিয়া হারুন অর রশিদের ছেলে। অপরজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

ময়মনসিংহ ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আতিকুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ভ্যানগাড়ি চালক একজন যাত্রী নিয়ে চাইনামোড় এলাকা দিয়ে যাচ্ছিলেন। ওই সময় বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়ে ভ্যানগাড়িটি উল্টে যায়। এসময় ভ্যানচালক মিন্টু তারে জড়িয়ে ছটফট করতে থাকেন। এসময় তাকে বাঁচাতে গিয়ে যাত্রীও বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত দুই জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এবিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

;

মৌলভীবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় এসআই নিহত, আহত ৫ পুলিশ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মৌলভীবাজার
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

মৌলভীবাজারের রাজনগরে আসামি ধরে ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশের এক এসআই নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন পুলিশের আরও পাঁচ সদস্য।

শনিবার (২১ মে) ভোর ৫টায় মৌলভীবাজার-ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কের মহাসহস্র নামক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত পুলিশ সদস্য হলেন- রাজনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সমিরন চন্দ্র দাশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে রাজনগরের মহাসহস্র নামক এলাকায় আসামি ধরে ফেরার পথে পুলিশের গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রাজনগর থানার এসআই সমিরন, এস শওকত মাসুদ ভূইয়া, এসআই সোলেমান আহমদ, এএসআই জাহাঙ্গীর আলম, কনস্টেবল মাসুদ মিয়া, কনস্টেবল আজিজ হোসেন আহত হন। এসময় স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে পাঠান। পরে দায়িত্বরত চিকিৎসক পুলিশের এসআই সমিরন চন্দ্র দাশকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসআই শওকত মাসুদ ভূইয়া, কনস্টেবল মাসুদ মিয়া ও কনস্টেবল আজিজ হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, রাজনগর থানার এসআই সমিরনসহ ছয় পুলিশ সদস্য আসামি নিয়ে ফেরার পথে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে পুলিশের এসআই সমিরন নিহত হয়েছেন। তিনজন গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

;

আজ রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

গ্যাস পাইপলাইনে জরুরি মেরামত কাজের জন্য আজ (২১ মে) রাজধানীর কয়েকটি এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। শনিবার (২১ মে) সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মোট ১২ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে গ্যাস সরবরাহ।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি কাজের জন্য আজ (২১ মে) সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মোট ১২ ঘণ্টা রাজধানীর মিরপুর ১, ২, ৬, ৭, ১০, ১১, ১২, ১৩, ইস্টার্ন হাউজিং, রূপনগর, আরামবাগ, আলুবদি, মিরপুর ডিওএসএইচ পর্যন্ত এলাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। সেই সঙ্গে আশপাশের এলাকায় গ্যাসের স্বল্প চাপ থাকতে পারে।

গ্রাহকদের সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড।

;