বাংলাদেশে খাদ্য সংরক্ষণ খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী সার্বিয়া



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে খাদ্যশস্যের সংরক্ষণ খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী সার্বিয়া। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) এফবিসিসিআই’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবুর সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাতে এ আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন ঢাকা সফররত দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিকোলা সেলাকোভিক।

রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সৌজন্য সাক্ষাতে সার্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, খাদ্য সংরক্ষণে তার দেশের কোম্পানিগুলো বিশ্বের অন্যতম সেরা । সার্বিয়ান অনেক প্রতিষ্ঠান আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে ব্যবসা সম্প্রসারণ করেছে। বাংলাদেশেও এই খাতে সার্বিয়ার বিনিয়োগের মাধ্যমে লাভবান হতে পারে।

সার্বিয়ার সাথে ইউরোপ, ইউরেশিয় অর্থনৈতিক ইউনিয়ন ও তুরস্কের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি রয়েছে। তাই সার্বিয়া ও বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের জয়েন্ট ভেঞ্চারের মাধ্যমে ওই দেশগুলোতে শুন্য শুল্কের পণ্য রফতানির সুবিধা গ্রহণের আহ্বান জানান মন্ত্রী।

দুই দেশের বাণিজ্য বাড়াতে সরকারি পর্যায়ে দ্বৈত কর পরিহার ও বিনিয়োগ সুরক্ষা সংক্রান্ত দুটি চুক্তি করা, বাংলাদেশ থেকে নির্মাণ ও কৃষিখাতে দক্ষ ও আধা দক্ষ জনবল নেওয়ার ব্যাপারেও আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি।

একই সাথে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সার্বিয়া থেকে কৃষি প্রকৌশলী বিষয়ে শিক্ষা গ্রহণের আহ্বান জানান মন্ত্রী।

সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু জানান, বাংলাদেশে মোড়কীকরণ, পরিবহন ও সংরক্ষণের অভাবে বছরে ৩০ শতাংশ কৃষিপণ্য নষ্ট হয়। দেশে শুধুমাত্র আলু সংরক্ষণের জন্যই হিমাগার রয়েছে। অন্যান্য ফসলের ক্ষেত্রে এমন কোন সুবিধা নেই। তাই দেশে খাদ্য সংরক্ষণ খাতে সার্বিয়ার বিনিয়োগ করলে প্রযুক্তি স্থানান্তরের সুযোগও পাবে বাংলাদেশ।

বৈঠকে সার্বিয়ান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও এফবিসিসিআই’র মধ্যে শিগগিরই সমঝোতা চুক্তি সইয়ের ব্যাপারেও সম্মত হয় দুই পক্ষ। এছাড়াও সূর্যমুখী বীজ আমদানি, সার্বিয়ার গমের চুক্তিভিত্তিক চাষাবাদ এবং ঢাকায় সার্বিয়ার দূতাবাস স্থাপনের ব্যাপারে আলোচনা হয় বৈঠকে।

সৌজন্য সাক্ষাতে আরও উপস্থিত ছিলেন সার্বিয়ার অ্যাসিসট্যান্ট মিনিস্টার ফর বাইল্যাটেরাল রিলেশন্স ভ্লাদিমির ম্যারিক, পররাষ্টমন্ত্রীর উপদেষ্টা ইভান জ্যাকসিক, এফবিসিসিআই’র সহ-সভাপতি হাবীব উল্ল্যাহ ডন, পরিচালক আমজাদ হোসাইন, শমী কায়সার, ড. নাদিয়া বিনতে আমীন, আবুল কাশেম খান ও মহাসচিব মোহাম্মদ মাহফুজুল হক।

পদ্মাকন্যাকে স্বাগত জানাতে পদ্মায় ভাসল রঙিন নৌকা

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
পদ্মাকন্যাকে স্বাগত জানাতে পদ্মায় ভাসল রঙিন নৌকা

পদ্মাকন্যাকে স্বাগত জানাতে পদ্মায় ভাসল রঙিন নৌকা

  • Font increase
  • Font Decrease

উৎসবের জন্য প্রস্তুত পদ্মার পাড়। পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে সাজ সাজ রব পড়েছে। সেজেছে বর্ণিল রূপে। অল্প কিছুক্ষণ পরই পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পদ্মকন্যা উপাধি পাওয়া প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে প্রমত্তা পদ্মায় লাল-সবুজের ৫০টি নৌকা প্রস্তুত রয়েছে।

রংবেরঙের বেলুন আর জাতীয় পতাকা দিয়ে সাজানো হয়েছে নৌকাগুলো। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে শনিবার (২৫ জুন) সকাল থেকেই নৌকাগুলো পদ্মা সেতুর নিচে ভাসতে থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে পদ্মাপাড়ের জেলেদের নিয়ে এমন আয়োজন করেছে শিবচর পৌরসভা।

শিবচর পৌরসভার মেয়র আওলাদ হোসেন খান বলেন, ‘পদ্মার পাড়ে থাকা জেলে ভাইদের চিরচেনা রূপ ধরে রাখতে আমাদের এই আয়োজন। বাংলার ঐতিহ্য ধরে রাখতে এবং পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে পদ্মার বুকে সুসজ্জিত ৫০টি নৌকা সারা দিন ভাসতে থাকবে।’

এদিকে মহেন্দ্রক্ষণের সাক্ষী হতে মাওয়া প্রান্তের সমাবেশস্থলে হাজির হচ্ছেন মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, রাজনৈতিক ব্যক্তি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ সরকারের আমন্ত্রিত অতিথিসহ সাধারণ মানুষ।

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা; এর পদ্মা বুকে গৌরবের প্রতীক পদ্মা সেতুর দুয়ার খুলে যাবে। এই স্বপ্নের দুয়ার খোলার সঙ্গে সঙ্গে গোটা দেশ মেতে উঠতে উৎসবে। পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের মহেন্দ্রক্ষণকে রাঙাতে ঝাঁকে ঝাঁকে মানুষ আসছে পদ্মার পাড়ে। সেতুর দ্বার উন্মোচনের পর সেতুর দক্ষিণ প্রান্তে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে জনসভা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভার মঞ্চ তৈরি হয়েছে সেতুর আদলেই। প্রায় ১০ লক্ষাধিক মানুষের সমাবেশ হবে সেখানে। ভোর থেকেই সেখানে জড়ো হচ্ছেন মানুষ।

;

পদ্মা সেতু দেশের গৌরব: কাদের সিদ্দিকী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, পদ্মা সেতু কারো ব্যক্তিগত নয়, সার্বিকভাবে এটা আমাদের দেশের সেতু এবং দেশের গৌরব।

শনিবার (২৫ জুন) সকালে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে আয়োজিত সুধী সমাবেশস্থলে পৌঁছে এসব কথা বলেন তিনি।

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, কেউ ভালো কাজ ফল পাবে না, এটাতো হয় না। কিন্তু এ সেতু নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করা ঠিক নয়। পদ্মা সেতু কারো ব্যক্তিগত নয়, সার্বিকভাবে এটা আমাদের দেশের সেতু এবং দেশের গৌরব।

কাদের সিদ্দিকি বলেন, এটা প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় পদক্ষেপের সুফল। এজন্য দেশের মানুষ তাকে সাধুবাদও জানাবে। আমার অনুরোধ থাকবে এই সেতু করা নিয়ে যারা সন্দেহ প্রকাশ করেছে তাদের নিয়ে অহেতুক সমালোচনা করে সময় ক্ষেপণ করা সময় নেই।

তিনি আরও বলেন, যারা বলেছে পদ্মা সেতু হবে না, তাদের বিশ্বাস ছিলো না পদ্মা সেতু হবে। কাজ শুরু হওয়ার আগেই দুর্নীতির অভিযোগে সৈয়দ আবুল হোসেন এর মতো একজন সাহসী সৎ মানুষের পদত্যাগ করতে হয়েছে।

;

হেলিকপ্টারযোগে পদ্মা সেতুর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

আর কিছুক্ষণ পরই স্বপ্ন রূপ নিতে যাচ্ছে বাস্তবে। উদ্বোধন হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের গর্ব ও অহংকার স্বপ্নের পদ্মা সেতু। ইতিমধ্যে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত জনসভাস্থল লোকে লোকারণ্য। স্বপ্নের সেতু উদ্বোধন করতে এরই মধ্যে পদ্মার মাওয়া প্রান্তের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২৫ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দর থেকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। এসময় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পদস্থ কর্মকর্তারা তার সঙ্গে ছিলেন।

সেতুটির জমকালো উদ্বোধন উপলক্ষে বিশেষ করে যোগাযোগের সরাসরি সুবিধা লাভ করবে এমন দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোসহ সারাদেশে একটি উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

সকাল ১০টায় মুন্সীগঞ্জের মাওয়া পয়েন্টে পদ্মা সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশের বৃহত্তম স্ব-অর্থায়নকৃত মেগা প্রকল্পের জমকালো উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচির সময়সূচী অনুযায়ী মাওয়া পয়েন্টে সকাল ১১টায় তিনি স্মারক ডাকটিকিট, স্যুভেনির শীট, উদ্বোধনী খাম এবং বিশেষ সিলমোহর উন্মোচন করবেন। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের ফলে ১.২ থেকে ২ শতাংশ পর্যন্ত জিডিপি বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সকাল ১১টা ১২ মিনিটে মাওয়া পয়েন্টে টোল পরিশোধের পর উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-১ উন্মোচনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি সেখানে মোনাজাতেও যোগ দেবেন।

তিনি সকাল ১১টা ২৩ মিনিটে মাওয়া পয়েন্ট থেকে শরীয়তপুরের জাজিরা পয়েন্টের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবেন। প্রধানমন্ত্রী সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে জাজিরা পয়েন্টে পৌঁছে সেতু ও ম্যুরাল-২ এর উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন করবেন। সেখানে মোনাজাতেও যোগ দেবেন তিনি।

দুপুর ১২টায় মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়িতে সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত দলের জনসভায় যোগ দেবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বিকেল সাড়ে ৫টায় হেলিকপ্টারে জাজিরা পয়েন্ট থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করবেন।

;

৯ মামলার পলাতক আসামি পিচ্চি রাসেল গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
৯ মামলার পলাতক আসামি পিচ্চি রাসেল গ্রেফতার

৯ মামলার পলাতক আসামি পিচ্চি রাসেল গ্রেফতার

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালী সদর উপজেলায় ৯ মামলার পলাতক আসামি মো. রাসেল ওরফে পিচ্চি রাসেলকে (২২) আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত রাসেল নোয়াখালী পৌরসভার মাস্টার পাড়া এলাকার পাটোয়ারী বাড়ির মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার (২৪ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে একটি দেশিয় তৈরি এলজি বন্দুকসহ পিচ্চি রাসেলকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামিকে আজ নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

;