অসময়ে তরমুজ চাষ করে সফল ঠাকুরগাঁওয়ের কৃষকরা



রবিউল এহ্সান রিপন, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঠাকুরগাঁও
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

অসময়ে বাণিজ্যিকভাবে মাচায় তরমুজ চাষ করে সফলতা পেয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ের কৃষকেরা। কম খরচে অধিক ফলন এবং দাম ভালো পাওয়ায় লাভবান চাষি। এর আগে অসময়ে তরমুজ চাষ করে লাভবান হওয়ায় এবার অনেক কৃষক এই তরমুজ চাষ করে লাভের আশায় রয়েছে। বিশেষ জাতের গ্রীষ্মকালীন তরমুজ আবাদে কৃষকদের পরামর্শ ও সহযোগিতা দেওয়ার কথা জানায় কৃষি বিভাগ।

ঠাকুরগাঁওয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে বিশেষ জাতের ব্লাক কুইন, ইয়েলো ড্রাগন আর ব্লাক হানি জাতের তরমুজ। এসব তরমুজের ভেতরের অংশের রঙ কখনো হলুদ কখনো লাল। দেখতে যেমন সুন্দর, খেতেও সুস্বাদু, আবাদে খরচ কম। বাজার দরও বেশ চড়া থাকায় খুশি কৃষক।

ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ভাতারমাড়ি ফার্মের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, প্রায় ২৭ একর (৫৪ বিঘা) জমিতে মাচায় তরমুজ চাষ করে এলাকায় সাড়া ফেলেছেন কৃষকেরা।

তরমুজ চাষি লিপু মিয়া বলেন, আমি ইউটিউবে অসময়ে মাচায় তরমুজ চাষের ভিডিও দেখে উৎসাহিত হয়ে এইবার বাণিজ্যিকভাবে এই তরমুজের আবাদ করি। লেখাপড়ার পর আমি বেকার ছিলাম। একদিন হঠাৎ করে ইউটিউবে দেখি গ্রীষ্মকালীন তরমুজ চাষ করে লাভবান হচ্ছেন অনেকেই। তখন আমিও অসমেই তরমুজ চাষ করি। আমি এবার দুই একর জমিতে তরমুজ চাষ করেছি। এতে আমার খরচ হয়েছে প্রায় ২ লাখ টাকার মতো। আমি আশাকরি প্রায় ৫ লাখ টাকার তরমুজ বিক্রি করতে পারবো।

কথা হয় পাশের এলাকার ফয়জুল নামে এক কৃষকের সঙ্গে। তিনি বলেন, আমি প্রতিবারেই সিজিনাল যে তরমুজটা হয় সেটা করে থাকি কিন্তু এবার গ্রীষ্মকালীন যে তরমুজ সেটা চাষ করেছি। আমি প্রায় দেড় একর জমিতে তরমুজ চাষ করেছি এতে আমার খরচ হয়েছে প্রায় দেড় লাখ টাকার মতো। আমি আশা করি তিন থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা তরমুজ বিক্রি করতে পারবো।

আগে বর্ষা মৌসুমে তরমুজ চাষ করতো না কৃষক। কিন্তু প্রযুক্তির উন্নতির ফলে এখন বর্ষাকালেও মাচায় তরমুজ চাষ হচ্ছে। বৃষ্টির পানিতে বীজ যেন পচে নষ্ট না হয় সেজন্য উন্নতমানের পলিথিন ব্যবহার করা হয়েছে। যার ফলে অল্প সময়ের মধ্যে বীজ অঙ্কুরোদগম হয়ে চারা বেরিয়ে আসে। বর্তমানে মাচায় এখন অনেক তরমুজ ঝুলছে। প্রতিটি তরমুজ ৩-৪ কেজি ওজনের। লাল ও হলুদ বর্ণের এ তরমুজগুলো দেখতে যেমন সুন্দর, তেমনি খেতেও অনেক সুস্বাদু। আর অসময়ে এমন সুন্দর তরমুজ দেখতে প্রতিদিন দুরদুরান্ত থেকে সাধারণ মানুষ আসছে তরমুজ ক্ষেতে।

তরমুজ চাষ করে সফল ঠাকুরগাঁওয়ের কৃষকরা

তরমুজ ক্ষেত দেখতে আসা দর্শনার্থী লিমন বলেন, তরমুজগুলো দেখতে অনেক সুন্দর। আর এই সময়ে মাচায় তরমুজ চাষ হয় এটা দেখার জন্যই শহর থেকে ছুটে আসা। দেখার পরে অনেকটা অবাক হয়ে গেলাম। কৃষিতে প্রযুক্তি আজ কৃষিকে অনেক এগিয়ে নিয়ে গিয়েছে। আমরা এখন সারাবছর তরমুজ খেতে পারবো।

তরমুজ চাষি জয়নাল হোসেন জানান, অসময়ে মাচায় তরমুজ চাষের কথা শুনে অনেকেই পাগলামি বলে ভেবেছিল। পরে যৌথভাবে আমরা চাচা ভাতিজা মিলে বাণিজ্যিকভাবে বিক্রয়ের জন্য এই তরমুজ আবাদ করি। প্রায় ৫০ দিনের কঠোর পরিশ্রমের ফলে এখন আমরা তরমুজের ফলন ভালো দেখতে পাচ্ছি। ৬০ দিনের মাথায় তরমুজ কাঁটা শুরু করবো। বাজারজাত ভালোভাবে করতে পারলে ও বাজারে দাম ভালো পেলে লাভবান হব আশা করছি।

ঠাকুরগাঁও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, মাচায় তরমুজ চাষে উৎপাদন খরচ খুব একটা বেশি না। এই তরমুজ অনেক মিষ্টি ও সুস্বাদু। চাষিরা যাতে তরমুজ কোন অসুবিধা ছাড়াই বাজারজাত করতে পারে সেজন্য আমরা সকল ধরনের সহযোগিতা করবো। নতুন এই পদ্ধতি গোটা জেলায় প্রায় (২৭) একর জমিতে তরমুজ চাষ হয়েছে। আমরা তাদের সকল সহযোগিতা দিয়ে আসছি।

খাসিয়াদের গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশির মরদেহ হস্তান্তর



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিলেট
ছবি: সীমান্তে খাসিয়াদের গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশি

ছবি: সীমান্তে খাসিয়াদের গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশি

  • Font increase
  • Font Decrease

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ সীমান্তে খাসিয়াদের গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশি যুবকের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোমবার (১৫ জুলাই) রাত পৌনে ৮টার দিকে মরদেহ হস্তান্তর করে বিএসএফ। এর আগে দিনভর পতাকা বৈঠক করে বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী।

জানা যায়, রোববার(১৪জুলাই) বিকেলে ভারতীয় খাসিয়ার গুলিতে নিহত হয় কালাইরাগ করবলাটুক গ্রামের মৃত ফজর আলীর ছেলে আলী হুসেন ও মৃত সুন্দর আলীর ছেলে কাউছার আহমদ। তাদের মরদেহ প্রায় ২৮ ঘন্টা সেখানে পড়ে ছিল। দু-দেশের সীমান্ত জটিলতা দূর করে সন্ধ্যায় তাদের মরদেহ দুটি হস্তান্তর করে ভারত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিজিবি কালাইরাগ ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার মিজানুর রহমানসহ আরও কয়েকজন বিজিবি সদস্য।

এব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমেদ বলেন, রাত পৌনে ৮টার দিকে ওই যুবকের মরদেহ হস্তান্তর করে বিএসএফ। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রায় সময় নিহত দুই যুবক ভারতের সীমান্ত থেকে লাকড়ি কুঁড়িয়ে আনতে গিয়ে মারা যায়।

;

গাজীপুরে নৌকা ডুবে মা ছেলে নিখোঁজ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, গাজীপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

গাজীপুরে বিলে বেড়াতে গিয়ে নৌকা ডুবে মা ছেলে নিখোঁজের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটিনায় আরও তিন জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন।

সোমবার (১৫ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার সূত্রাপুর ইউনিয়নের বগাবাড়ি বিলে এ ঘটনা ঘটে৷

নিখোঁজ মা ছেলে, উপজেলা ভাওমান টালাবহ এলাকার সাইফুল ইসলামের মেয়ে সাদিয়া(২১) ও তার পুত্র মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ (৩)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বাবার বাড়িতে বেড়াতে এসে সোমবার বিকেলে পরিবারের সাথে উপজেলার সূত্রাপুর ইউনিয়নের বগাবাড়ি বিলে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যান সাদিয়া ও তার ছেলে আব্দুল্লাহ। এক পর্যায়ে বিলে নির্মিত একটি কালভার্টের কাছে গেলে নৌকাটি বানের তোড়ে ডুবে যায়। এসময় তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে তিনজনকে উদ্ধার করলেও সাদিয়া ও তার ছেলে আব্দুল্লাহকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরে স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এখনো তাদের উদ্ধার করা যায়নি।

কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তার ইফতেখার হোসেন রায়হান চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

;

আইআইইউসি ক্যাম্পাস পরিদর্শনে আরব আমিরাতের দুই কূটনীতিক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
আইআইইউসি ক্যাম্পাস পরিদর্শনে আরব আমিরাতের দুই কূটনীতিক

আইআইইউসি ক্যাম্পাস পরিদর্শনে আরব আমিরাতের দুই কূটনীতিক

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত কার্যালয়ের দুই কূটনীতিক সদস্য আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেছেন।

রোববার (১৪ জুলাই) চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড কুমিরা এলাকায় অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিদর্শন করেন। এই সময় সঙ্গে ছিলেন সাবেক সাংসদ ও আইআইইউসি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী।

কূটনীতিক দুই সদস্য হলেন- বাংলাদেশে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূতের সহযোগী সাঈফ মোহাম্মদ আব্দুলরাহমান বিন রাবিইয়া আলতানেইজি ও রাশেদ মোহাম্মেদ নাসের আলমাঈল আলজাবি।

তারা আইআইইউসিতে শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান ট্রাস্টের অর্থায়নে নির্মিত সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ফ্যাকাল্টির শেখ জায়েদ সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং কমপ্লেক্সের ক্লাসরুম ও ল্যাবসমূহ পরিদর্শন করেন ও সংস্থাটির অর্থায়নে নির্মিতব্য শেখ জায়েদ সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় একাডেমিক ভবন পরিদর্শন করেন।

ক্যাম্পাস পরিদর্শনকালে কূটনীতিকগণ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ফ্যাকাল্টি ও বিভাগসমূহ ঘুরে দেখেন এবং শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমের প্রশংসা করেন এবং শিক্ষার মান উন্নয়নে সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। পরে কূটনীতিকগণ আইআইইউসি ক্যাম্পাসে বৃক্ষরোপণ করেন।

প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী আরব আমিরাতের প্রতিনিধিদের স্বাগত জানিয়ে বলেন, এই ধরনের সফর শিক্ষার উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা পালন করে এবং শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মধ্যে আন্তর্জাতিক মানের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সুযোগ সৃষ্টি করে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আইআইইউসির উপাচার্য প্রফেসর আনোয়ারুল আজিম আরিফ, বিওটি ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, বিওটি সদস্য ও মিডিয়া, প্রেস, পাবলিকেশন্স এন্ড এডভারটাইজম্যান্ট কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ খালেদ মাহমুদ, বিওটি সদস্য ও ফাইন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. ইঞ্জিনিয়ার রশিদ আহমেদ চৌধুরী, বিওটি সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সালেহ জহুর, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মছরুরুল মাওলা, ভারপ্রাপ্ত ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ মাহি উদ্দিন, রেজিস্ট্রার আ.ফ.ম আখতারুজ্জামান কায়সার এবং ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স এন্ড স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার ডিভিশনের এর ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মুহাম্মদ মাহফুজুর রহমানসহ বিভিন্ন ফ্যাকাল্টির ডিন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর আনোয়ারুল আজিম আরিফ বলেন, আমাদের লক্ষ্য হল আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রদান করা এবং এই ধরনের সফর আমাদেরকে সেই লক্ষ্য অর্জনে সহায়তা করবে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের কূটনীতিকরা আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

;

মঙ্গলবার সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
কর্মসূচি ঘোষণা করছেন নাহিদ ইসলা /ছবি: বার্তা২৪.কম

কর্মসূচি ঘোষণা করছেন নাহিদ ইসলা /ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ও কোটা সংস্কারের দাবিতে সারাদেশে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) বিকাল ৩টায় বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দিয়েছে বৈষম্য বিরোধী ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম।

সোমবার (১৫ জুলাই) রাত ৯টা ৩৫মিনিটে দোয়েল চত্বরে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই ঘোষণা দেন।

সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম বলেন, বহিরাগত এনে হামলা করে আমাদের দুই শতাধিক শিক্ষার্থীকে আহত করেছে। সরকার ও প্রশাসন চাচ্ছে, পরিকল্পিতভাবে আন্দোলন বানচাল করতে। তারই ধারাবাহিকতায় আজকে এই ঘটনা।

তিনি বলেন, আমরা চেয়েছিলাম, প্রধানমন্ত্রী চীন থেকে এসে কোটা আন্দোলনের পক্ষে কথা বলবেন। কিন্তু তিনি তা না করে আমাদের কুটুক্তি করেছেন। আমরা চাই, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিবে।

ঢাবি শিক্ষার্থীরা আসিফ মাহমুদ বলেন, যে ভিসি ও প্রক্টর আমাদের বোনদের নিরাপত্তা দিতে পারে নাই, আমরা তাদের পদত্যাগ চাই।

;