বিভাগ হলেই সিটি করপোরেশন হবে ফরিদপুর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

এখন থেকে কোনো বিভাগীয় শহর ছাড়া সিটি করপোরেশন করা হবে না বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে নিকার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়।

সেক্ষেত্রে দেশের অন্যতম পুরনো পৌরসভা ফরিদপুর বিভাগীয় সদর হলে তখন সিটি করপোরেশন করা হবে।

প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠকে ফরিদপুরকে দেশের ১৩ তম সিটি করপোরেশন করার প্রস্তাব করা হলেও শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়।

সোমবার (২১ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর তেজগাঁও কার্যালয়ে নিকার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয় বলে দুপুরে সচিবালয়ে এসব কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম।

তিনি বলেন, 'দেশের বিভিন্ন স্থানে নতুন করে সাতটি থানা ও একটি পৌরসভা গঠনের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে নিকার। বৈঠকে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে মোট ১৫টি প্রস্তাব করা হয়। এরমধ্যে জননিরাপত্তা বিভাগ প্রস্তাবিত দর্শনা, পদ্মাসেতু (উত্তর ও দক্ষিণ), ঠাকুরগাঁওের ভুল্লি, নোয়াখালীর ভাষানচর, দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া, কক্সবাজারের ঈদগাহ এলাকাকে নতুন করে থানা প্রতিষ্ঠায় সম্মতি দিয়েছে নিকার বৈঠক। এছাড়া স্থানীয় সরকার বিভাগ প্রস্তাবিত সিলেটের বিশ্বনাথকে পৌরসভা গঠনের সিদ্ধান্ত হয়।'

শফিউল আলম বলেন, 'স্থানীয় সরকার বিভাগের অন্যান্য প্রস্তাবের মধ্যে গোপালগঞ্জ, বাগেরহাট, নারায়ণগঞ্জ, সোনারগাঁও, কালিয়াকৈর পৌরসভা সম্প্রসারণের প্রস্তাবে অনুমোদন এবং কুমিল্লা সদর উপজেলা স্থানান্তরের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে নিকার।'

নতুন বিভাগ, জেলা, উপজেলা, সিটি করপোরেশন, পৌরসভা ও থানা স্থাপনের প্রস্তাব বিবেচনার জন্য সর্বোচ্চ ফোরাম হচ্ছে নিকার। প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাসের জন্য এ ফোরাম স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন সংস্থার সীমানা পুনর্নির্ধারণ সংক্রান্ত প্রস্তাবও বিবেচনা করে।

আপনার মতামত লিখুন :