গফরগাঁওয়ে কলেজছাত্র শিহাব হত্যায় ১১ জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ময়মনসিংহ
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার কলেজছাত্র শিহাব হাসান (২০) হত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার সাত বছর পর ১১ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদেরকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

বুধবার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে ময়মনসিংহের বিশেষ দায়রা জজ আদালতের বিচারক এহসানুল হক এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মোফাজ্জল, ইলিয়াস, মামুন, মোস্তফা কামাল ওরফে মন্তু, পলাশ, জজ মিয়া, খোকন, সবুজ, আনোয়ার, সোহাগ ও আলম। এদের মধ্যে ইলিয়াস, আনোয়ার ও আলম পলাতক রয়েছে। তাদেরকে সাজা উল্লেখপূর্বক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, শিহাব হাসান ২০১২ সালের ১৯ অক্টোবর বিকেলে বাড়ি থেকে বের হলে আর ফেরেনি। ২১ অক্টোবর বিকেল তিনটার দিকে মোবাইলে শিহাবের মা সেলিনা খাতুনকে জানানো হয় যে, তার ছেলে শিহাবের মরদেহ গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার গলাকাটা বাজারের পাশে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে পাওয়া গেছে।

ডিমের ব্যবসা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে শিহাবকে হত্যা করা হয়েছে, এমন অভিযোগ করে ঘটনার দুইদিন পর নিহতের মা বাদী হয়ে পাগলা থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

মামলার সকল প্রক্রিয়া শেষে সাত বছর পর বুধবার বিচারক এ রায় প্রদান করেন।

শিহাব গফরগাঁও উপজেলার পাগল থানার দীঘিরপাড় গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। সে কিশোরগঞ্জের গুরুদয়াল কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিল।

আপনার মতামত লিখুন :