বরিশালে উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় শ্মশান দিপালী উৎসব শুরু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, বরিশাল
বরিশাল শ্মশান ঘাট। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

বরিশাল শ্মশান ঘাট। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রতি বছরের মতো এ বছরও বেশ বড় আয়োজনে বরিশালে শুরু হয়েছে দুইদিন ব্যাপী উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ ঐতিহ্যবাহী শ্মশান দিপালী উৎসব।

শনিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুর ২টা ৩২ মিনিটে শুরু হয় এ উৎসব। যা চলবে রোববার (২৭ অক্টোবর) দুপুর ১২টা ১৪ মিনিট পর্যন্ত। নগরীর কাউনিয়ার আদি শ্মশানে শনিবার রাতে প্রয়াতের সমাধিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রার্থনা করছে স্বজনরা। আর রোববার শ্মশানে কালীপূজা পালন করবে তারা।

সনাতন ধর্মাবলম্বীরা জানায়, প্রতি বছর ভূত চতুর্দশী পুণ্য তিথিতে মহাশ্মশান হাজার হাজার মোমবাতির আলোয় উজ্জ্বল হয়ে উঠে। প্রিয়জনের স্মৃতির উদ্দেশে এই দিনে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা মহাশ্মশানে সমবেত হয়ে তাদের প্রয়াত পূর্বপুরুষ ও স্বজনদের স্মরণে সমাধি সৌধে আলো জ্বালিয়ে দেন। একই সঙ্গে কালীপূজা পালিত হয়।

ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

এ দিপালী উৎসবে সমাধি সৌধে শুধু আলো জ্বালানোই হয় না, সমাধির ওপর মৃত ব্যক্তির ছবি ফুল-চন্দন দিয়ে সাজিয়েও রাখা হয়। প্রিয়জনের উদ্দেশে খাবার দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে ধূপ জ্বেলে দেওয়া হয়। কেউ কেউ আবার ধর্মীয় গান ও খোল বাদ্যসহ কীর্তন করেন প্রিয়জনের আত্মার সন্তুষ্টির জন্য।

ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

এ ব্যাপারে দিপালী উৎসব ও বরিশাল মহাশ্মশান রক্ষা সমিতির সভাপতি মানিক মুখার্জি (কুডু) বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, প্রায় পৌনে ২০০ বছরের পুরানো এই শ্মশানে প্রতি বছর উৎসবে ভারত, নেপালসহ উপমহাদেশ এবং দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে লাখো মানুষের সমাগম ঘটে। এ শ্মশানের দিপালী উৎসব দেখতে দেশ-বিদেশ থেকেও আসেন ভক্ত অনুসারী ও পর্যটকরা। এখানে বাংলাদেশসহ উপমহাদেশের অনেক জ্ঞানী-গুণী ব্যক্তিসহ সমাজসেবীদের সমাধি রয়েছে।

এদিকে এই উৎসবকে কেন্দ্র করে নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ। এছাড়াও বাড়তি নিরাপত্তার জন্য শ্মশানের পক্ষ থেকে সিসি ক্যামেরা স্থাপনসহ একাধিক স্বেচ্ছাসেবকদের টিম রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :