সুন্দরবনে হরিণ শিকার: ৬০ জনকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম,খুলনা 
আটক হওয়া ব্যক্তিদের জরিমানা করা হয়, ছবি: সংগৃহীত

আটক হওয়া ব্যক্তিদের জরিমানা করা হয়, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সুন্দরবনে হরিণ শিকারের বিপুল পরিমাণ ফাঁদসহ আটক হওয়া ৬০জন রাসমেলার যাত্রীর প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) বিকালে বন আইনে তাদেরকে এ জরিমানা করা হয়। এর আগে ভোরে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের জয়মনি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

বনবিভাগ জানায়, সুন্দরবনে হরিণ শিকারে যাওয়ার সময় বিপুল পরিমাণ ফাঁদ ও ৩টি ট্রলারসহ ৬০ জন রাসমেলার যাত্রীকে আটক করা হয়। আটকদের কাছ থেকে হরিণ শিকারের ফাঁদ, দা, কুড়াল ও চুলাসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে বনরক্ষীরা। আটককৃতদের সবার বাড়ি রামপাল উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায়।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘প্রতিবছরই রাসমেলাকে কেন্দ্র করে হরিণ শিকারিরা তৎপর হয়ে থাকে। শিকারিরা রাসমেলার যাত্রীদের ছদ্মবেশ ধারণ করে। এবারও তাই  হচ্ছে। রাসমেলা উপলক্ষে কয়েকজন হরিণ শিকারের জন্য সংঘবদ্ধ হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জয়মনি এলাকায় অভিযান চালায় বন রক্ষীরা। এ সময় তিনটি ট্রলারকে চ্যালেঞ্জ করলে তারা দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তাদের তাড়া করে ট্রলার জব্দ করা হয়। ট্রলার তল্লাশি করে হরিণ শিকারের ফাঁদ, দা, কুড়াল, চুলাসহ ৬০ জন শিকারিকে আটক করা হয়। তারা রাসমেলার যাত্রী হিসেবেই যাচ্ছিল। তাদের কাছে বনে প্রবেশ ও রাস মেলায় যাওয়ার ক্ষেত্রে বন বিভাগের কোনো পাস ছিল না।

তিনি আরো বলেন, ‘আটককৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে একটি সিওআর মামলা দায়েরের পর তাদের প্রত্যেককে নগদ ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। ৬০ জনকে মোট ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা আদায়ের পর তাদের মুক্ত করে দেওয়া হবে। তবে ট্রলার ৩টি আসন্ন রাসমেলা শেষে মালিকদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।'

উল্লেখ্য, প্রতিবারের ন্যায় এ বছরের আগামী ১০ নভেম্বর থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত ৩ দিনব্যাপী রাসমেলা অনুষ্ঠিত হবে। সুন্দরবনের দুবলারচরে রাসমেলাকে ঘিরে উপকূলীয় অঞ্চলে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। ইতোমধ্যে মেলায় যেতে পূণ্যার্থী ও দর্শনার্থীদের প্রস্তুতি চলছে। এ মেলাকে কেন্দ্র করে সুন্দরবন উপকূলবর্তী মানুষের মধ্যে উৎসবমূখর পরিবেশ সুষ্টি হয়েছে। মেলায় যাওয়ার জন্য লঞ্চ, ট্রলার, সাম্পান, জালি বোট, স্পিডবোট ভাড়াসহ বিভিন্ন প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :