ভিসা জটিলতায় কমছে খেলোয়াড়, জৌলুশ হারাচ্ছে টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ

স্টাফ করেসপন্ডেট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, রাজশাহী
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন আয়োজকরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন আয়োজকরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহীর জাফর ইমাম টেনিস কমপ্লেক্সে মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) থেকে বসছে ইন্টারন্যাশনাল জুনিয়র টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপের ২৮তম আসর। ছোটদের টেনিসের এ বড় আসরে স্বাগতিক বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, চীন, মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া, কাতার ও জাপানসহ ১২টি দেশের ৭০ জন খেলোয়াড় অংশ নিচ্ছে। যা বিগত সময়ের চেয়ে সংখ্যায় অর্ধেক।

বাংলাদেশে আসার জন্য ভিসা পেতে নানা জটিলতার কারণে খেলোয়াড় সংখ্যা কমেছে বলে অভিযোগ আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের (আইটিএফ) প্রতিনিধি জয় মুখার্জির।

টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নানা সীমাবদ্ধতার কারণে দিন দিন জৌলুশ হারাচ্ছে রাজশাহীর এ ভেন্যু। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সম্ভাবনাময় টেনিসের সুদিন ফেরাতে ক্রীড়া ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান তাদের।

আইটিএফ প্রতিনিধি জয় মুখার্জি বলেন, আমন্ত্রণ পাওয়ার পরও বাংলাদেশ দূতাবাস খেলোয়াড়দের ভিসা ছাড় করছে না। তারা যুব ও ক্রীড়া এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েরও প্রত্যয়নপত্র চাইছে। কিন্তু তা দ্রুত সময়ের মধ্যে যোগাড় করতে না পারায় ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও অনেক খেলোয়াড় এবার আসতে পারেনি। আমি পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র ভারত থেকে এসেছি। সেখান থেকে আরও খেলোয়াড় এসেছে। আমিসহ তাদের প্রত্যেককে ভিসা পেতে বেগ পেতে হয়েছে।

জাফর ইমাম টেনিস কমপ্লেক্স, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

আগামীতে এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার ও আয়োজকদের নজর রাখার আহ্বান জানান তিনি।

জাফর ইমাম টেনিস কমপ্লেক্সের চেয়ারম্যান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার তাপু বলেন, বিগত বছরগুলোতে আমরা ১৫০ জনেরও বেশি বিদেশি খেলোয়াড় পেয়েছি। তবে এবার দেশি-বিদেশি মিলিয়ে অংশ নিতে পারছে মাত্র ৭০ জন। অনেক বিদেশি খেলোয়াড় আসতে চাইলেও নানা কারণে শেষ মুহূর্তে তাদের অংশগ্রহণ বাতিল করেছেন। তারা ভিসা প্রক্রিয়ায় জটিলতার অভিযোগ করেছেন।

অনূর্ধ্ব ১৭ ইন্টারন্যাশনাল এ টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বা ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের কোনো আর্থিক প্রণোদনা নেই। জাফর ইমাম টেনিস কমপ্লেক্সের উদ্যোগেই অর্থ সংগ্রহ করতে হয়েছে। প্রতি বছর এ কাজটি করা কঠিন। আর্থিক সহায়তা না পেলে ভেন্যুর মর্যাদা ধরে রাখাই অসম্ভব হয়ে পড়বে বলে হত্যাশা প্রকাশ করেন তিনি।

আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, ২৮তম আসরে স্বাগতিক বাংলাদেশের ছয়জন, ভারতের ৩৭, চীনের ছয়, মালয়েশিয়ার এক, দক্ষিণ কোরিয়ার পাঁচ, যুক্তরাষ্ট্রের এক, নেপালের এক, চাইনিজ তাইপের (তাইওয়ান) তিন, জাপানের চার, কাতারের এক, শ্রীলংকার এক, যুক্তরাজ্যের দুই এবং অস্ট্রেলিয়া থেকে দু’জন অংশ নিতে রাজশাহী পৌঁছেছেন।

রোববার (১০ নভেম্বর) ও সোমবার (১১ নভেম্বর) চলছে বাছাই পর্ব এবং মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) মূল পর্বের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। খেলায় রেফারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন ভারতের জয় মুখার্জি। আগামী ১৭ নভেম্বর টুর্নামেন্টের পর্দা নামবে।

আপনার মতামত লিখুন :