চসিক নির্বাচনে বিদ্রোহীদের কড়া বার্তা আ.লীগ-বিএনপির



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম থেকে
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

  • Font increase
  • Font Decrease

দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নির্বাচনে প্রার্থী হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেই সভা থেকে এমন হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবানও জানানো হয়েছে।

সভায় দুই দলের শীর্ষ নেতারা বলেন, দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করলে ও আগামীত ৮ মার্চের মধ্যে প্রার্থীতা প্রত্যাহার না করলে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে বিএনপির প্রার্থীরা শান্ত থাকলেও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা তাদের সিদ্ধান্তে অনঢ়।

বর্ধিত সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও চসিক নির্বাচনে সমন্বয়ক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, এ নির্বাচনে যারা দলের সমর্থন পেয়েছেন, তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। দলের হাইকমান্ডের দেওয়া এ সিদ্ধান্ত মেনে নিতে হবে। তাদের সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়ার কোন সুযোগ কারও নেই।।

বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবে আলম শামীম বলেন, দলের সিদ্ধান্ত যেটা, তার বাইরে গিয়ে কেউ নির্বাচন করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। পাশাপাশি সবাই দলের সিদ্ধান্ত মেনে সকল অমনোনীত প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেবেন।

উল্লেখ্য, আগামী ২৯ মার্চ অনুষ্ঠেয় চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নগরীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন হলে বিএনপি ও ইনস্টিটিউ অব থিয়েটারের আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।