গণরুম থেকে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে ছাত্রীদের, অনুষ্ঠান স্থগিত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
রাবির ছাত্রী হলের একটি গণরুম, ছবি: সংগৃহীত

রাবির ছাত্রী হলের একটি গণরুম, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ছয়টি আবাসিক হলের ১৮ থেকে ২০টি গণরুমে প্রায় ১১শ ছাত্রী ঠাসাঠাসি করে থাকেন। সেখানে দু’টি বেডের মাঝখানে মাত্র এক থেকে দেড় ফুটের দূরত্ব। এক কক্ষেই থরে থরে সাজানো ২৫ থেকে ৩০টি বেড। কক্ষপ্রতি সেখানে বসবাস করেন কমপক্ষে ৫০ জন ছাত্রী। নেই স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তাও। ফলে করোনা সংক্রমণ হলে সেখানে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বিষয়টি গুরুত্বসহকারে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহানের নির্দেশনায় হল প্রাধ্যক্ষদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। সেখানে গণরুমে শঙ্কার মধ্যে দিন পার করা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন কক্ষে স্থানান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন।

পৃথক বৈঠকে আগামী ১৭ মার্চ মুজিব বর্ষের সকল অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়। আর শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসের জনসমাগমস্থল যথাসম্ভব এড়িয়ে চলার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এছাড়া জনসংযোগ দফতর থেকে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের সচেতন করতে লিফলেট বিলি করা হচ্ছে।

বুধবার (১১ মার্চ) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার ও হল প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক আব্দুল আলীম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক আব্দুল আলীম বলেন, ‘মঙ্গলবার (১০ মার্চ) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে আবাসিক হলের প্রাধ্যক্ষবৃন্দের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে ছাত্রী হলগুলোর গণরুমে ঠাসাঠাসি করে থাকা ছাত্রীদের বিভিন্ন রুমে দ্রুত সরিয়ে নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের হলগুলোতে গণরুম না থাকলেও ছাত্রীদের হলে বেশ কয়েকটি গণরুম রয়েছে। এসব রুমে অনেক ছাত্রীকে একসঙ্গে থাকতে হয়। তাই করোনা ভাইরাস থেকে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য গণরুমে অবস্থান করা ছাত্রীদের অন্য রুমে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’

এদিকে বুধবার (১১ মার্চ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘মুজিব বর্ষ উদযাপন কমিটি’র বৈঠকে মুজিব বর্ষ উদযাপনে সকল অনুষ্ঠান স্থগিত করে সীমিত পরিসরে উদযাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসমাগম বেশি হয় এমন স্থানগুলো এড়িয়ে চলার নির্দেশনা দেয় প্রক্টর দফতর।

রাবি জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার বলেন, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের আশঙ্কায় মুজিব বর্ষ উদযাপনের জন্য ঢাকায় জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডের মূল আয়োজন স্থগিত করা হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েও জনসম্পৃক্ততামূলক সকল অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছে। তবে আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ ছোট পরিসরে মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে বলে জানান তিনি।

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান বলেন, ‘মুজিব বর্ষ উদযাপন কমিটির বৈঠকে ক্যাম্পাসে জনসম্পৃক্ততামূলক অনুষ্ঠান স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বেশি জনসমাগম হয়, এমন স্থানগুলো সাময়িক সময়ের জন্য এড়িয়ে চলার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্ত আজ (বুধবার) থেকেই কার্যকর হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :