বরিশালে স্বেচ্ছায় তৈরি হচ্ছে মাস্ক-হ্যান্ড স্যানিটাইজার

জহির রায়হান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বরিশাল
নিজ উদ্যোগে তৈরি করা হচ্ছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ছবি: সংগৃহীত

নিজ উদ্যোগে তৈরি করা হচ্ছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বরিশালের খুচরা ও পাইকারি বাজারে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সংকট দেখা দিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বরিশালে স্বেচ্ছায় মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে বিতরণ করছেন ব্যক্তি, এনজিও, শিক্ষার্থী ও কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সমর্থকরা। কেউ কেউ আবার মাস্ক ও স্যানিটাইজার ক্রয় করে বিনামূল্যে এসব পণ্য জনসাধারণের মাঝে বিতরণ করছে।

জানা গেছে, ঝালকাঠী সরকারি হরচন্দ্র বালিকা বিদ্যালয়ের ল্যাবরেটরিতে প্রাথমিকভাবে ৫০ মিলি গ্রামের পাঁচ হাজার বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে তিন হাজার পিস বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা হয়েছে। শুধু উৎপাদিত খরচ অনুযায়ী মাত্র ৫০ টাকা দরে এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রি করছে স্কুল-কলেজ ও মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা।

বরিশালে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) উদ্যোগে জীবাণুনাশক স্প্রে ও হাত ধোয়ার তরল সাবান স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে ম্যানুয়ালি তৈরি করে বিনামূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে।

এনজিও 'আভাস' এর উদ্যোগে দুইশ বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে রিকশা চালক, শ্রমজীবীসহ বস্তিবাসীদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদল কর্মী জান্নাতুল নওরিন নিজ উদ্যোগে ৫০০ বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করেছেন। যা তার বড় বোন কেন্দ্রীয় জাতীয়তাবাদী মহিলাদলের সহ-মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক ফাতেমা তুজ জোহরা মিতু এগুলো গরিব ও দুস্থদের মাঝে বিতরণ করেন।

এছাড়াও করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকার দলীয় পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও বরিশাল সদর আসনের সংসদ সদস্য কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুকের উদ্যোগে বরিশাল নগরী ও সদর উপজেলায় বিভিন্ন প্রচারণা চালানো হয়েছে। এসময় নগর ও উপজেলার শ্রমজীবী মানুষের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়।

এদিকে, ঝালকাঠি জেলার নলছিটির পাওতা গ্রামে হেরিয়া নামের এক গৃহবধূ তার পরিবারসহ আত্মীয়-স্বজনকে বিনামূল্যে মাস্ক তৈরি করে দিচ্ছেন।

হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা তাসিন আহম্মেদ অনীক নামের এক শিক্ষার্থী বার্তা২৪.কমকে বলেন, ঝালকাঠিতে শিক্ষার্থীরা মিলে চাঁদা তুলে পাঁচ হাজার বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার নামমাত্র মূল্যে বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছি। ইতোমধ্যে অনেক বোতল তৈরি করে বিক্রি করা হয়েছে। এখন কারো আর্থিক সহযোগিতা পেলে আরও কয়েক হাজার বোতল স্যানিটাইজার তৈরি করে বিতরণ করা হবে।

বরিশাল জেলা বাসদের সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্তী বার্তা২৪.কম কে জানান, দেশে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে আতঙ্কিত না হয়ে, জনসচেতনতার লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে বাসদ। দলীয় নেতা-কর্মীদের চেষ্টায় সাধারণ মানুষ বিশেষ করে শ্রমজীবী মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও জীবাণুনাশক স্প্রে বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রথমদিনেই তারা তিনশ’র বেশি মানুষকে এ সহায়তা দিয়েছেন। পরে আরও মানুষকে এ সহায়তা দেওয়া হবে।

আভাসের নির্বাহী পরিচালক রাহিমা সুলতানা কাজল বার্তা২৪.কমকে জানান, শ্রমজীবী ও বস্তিবাসীদের কথা চিন্তা করে আভাসের উদ্যোগে দুইশ বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে বিতরণ করা হচ্ছে৷

আপনার মতামত লিখুন :