র‌্যাবের অভিযানে ভেজাল ওষুধ প্রস্তুতকারী গ্রেফতার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মহামারি করোনার সুযোগে ভেজাল ওষুধ প্রস্তুতকারী আতিয়ার রহমান নামে এক অসাধু ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ ঘটনায় ওই ব্যবসায়ীকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ ট্যাবলেটসহ ভেজাল ওষুধ জব্দ করা হয়।

শুক্রবার (৮ মে) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১৩ রংপুর এর মিডিয়া অফিসার এএসপি সিদ্দিক আহমদ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (৭ মে) রাতে নীলফামারীর সৈয়দপুর বাস টার্মিনাল এলাকায় বিউটি হ্যাভেন সোসাইটিতে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-১৩ রংপুর ও র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহ। এসময় লাইসেন্স ও অনুমোদনবিহীন বিপুল সংখ্যক ট্যাবলেটসহ ভেজাল ওষুধ প্রস্ততকারক ও ব্যবসায়ী আতিয়ার রহমানকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আতিয়ার রহমান (৪৬) পাবনা জেলার সদর এলাকার কুটিপাড়া গ্রামের মৃত সামছুদ্দিন মন্ডলের ছেলে। সে নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরের একটি ফ্লাটে থেকে এ/পি-বিউটি হ্যাভেন সোসাইটি নামে প্রতিষ্ঠানের আড়ালে ভেজাল ওষুধ প্রস্তুত ও বাজারজাত করতেন।

পরে নীলফামারীর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার ভ্রমমাণ আদালতের মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ভেজাল ওষুধ প্রস্তুত ও বিক্রয়ের অভিযোগে গ্রেফতার আতিয়ার রহমানকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডসহ নগদ দশ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অনাদায়ে আরো এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের শাস্তি প্রদান করেন। উদ্ধারকৃত অনুমোদনবিহীন ভেজাল ওষুধ জনসম্মুখে ধ্বংস করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :