করোনার জরিপের নামে বাড়িতে ঢুকে মোবাইল চুরি



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: প্রতীকী।

ছবি: প্রতীকী।

  • Font increase
  • Font Decrease

 

রাজশাহীর তানোরে করোনাভাইরাস বিষয়ে জরিপ করার নাম করে বাড়িতে ঢুকে দুটি মোবাইল (স্মার্টফোন) চুরির ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুন) দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার কলমা গ্রামের মো. জহিরুদ্দীনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মো. জহিরুদ্দীন বার্তা২৪.কমকে জানান, দুপুরে তিনি এবং তার স্ত্রী বাড়ি থেকে কিছু দূরে ধান শুকাতে গিয়েছিলেন। তার ছেলে রাসেল বিজিবিতে চাকরি করেন। বাড়িতে ছিলেন তার পুত্রবধূ, ১৪ বছর বয়সী প্রতিবন্ধী মেয়ে ও পাঁচ বছর বয়সী নাতি। পুত্রবধূ গোসলে ঢুকলে দুইজন অজ্ঞাত ব্যক্তি বাড়িতে ঢোকেন। গোসলখানা থেকেই তাদের কথা শুনছিলেন তার পুত্রবধূ।

পুত্রবধূর বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ‘ওই দুইজন ব্যক্তি আমার প্রতিবন্ধী মেয়ে ও নাতির সঙ্গে গল্প শুরু করেন। তাদের হাতে কাগজ ছিল। তারা বাড়িতে ঢুকে প্রতিবন্ধী মেয়েটি ও শিশুর জিহ্বা দেখছিলেন এবং জানান তারা করোনা ভাইরাস নিয়ে জরিপ করতে এসেছেন। ওই সময় তাদের একজন ঘরে ঢুকেন। তবে দ্রুত গোসল শেষ করে আমার পুত্রবধূ বের হয়ে দেখেন তারা বাড়ি থেকে চলে গেছেন।’

জহিরুদ্দীন আরও বলেন, ‘পুত্রবধূ গোসলখানা থেকে বের হওয়ার পর তার কাছে গিয়ে আমার নাতি জানায় যে দুই লোক এসেছিলেন তারা ঘর থেকে মোবাইল নিয়ে চলে গেছেন। তখন আমার পুত্রবধূ দৌঁড়ে বাইরে গিয়েও তাদের আর দেখা পায়নি। বিষয়টি তানোর থানা পুলিশকে জানানো হবে।’

জহিরুদ্দীনের প্রতিবেশীরা জানান, ওই দুই ব্যক্তি এলাকার অন্যদের বাড়িতেও ঢুকেছিলেন এবং করোনাভাইরাস নিয়ে সচেতনতার কথা বলেছেন। তারা করোনা নিয়ে জরিপ করতে এসেছেন বলে সবাইকে জানিয়েছেন। তবে কোন সংগঠন বা কোথা থেকে তারা এসেছেন সেসব বিষয়ে কাউকে কিছু বলেননি। গ্রামের কেউ তাদেরকে চেনেনও না।

এদিকে এ ঘটনার পর গ্রামজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। করোনাভাইরাসের জরিপের কথা বলে গ্রামে চোরের উপদ্রবের কথা জানিয়েছেন গ্রামবাসী।

তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, ‘বাড়িতে ঢুকে মোবাইল চুরির বিষয়ে আমাদের কাছে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’