অবশেষে দৌলতদিয়া ঘাটের চারটি পল্টুনই সচল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজবাড়ী
দৌলতদিয়া ফেরিঘাট

দৌলতদিয়া ফেরিঘাট

  • Font increase
  • Font Decrease

অবশেষে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের চারটি পল্টুনই চালু করতে সক্ষম হয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

বুধবার (২৯ জুলাই) ভোর রাত থেকে সবগুলো পল্টুনই সচল করা হয়েছে বলে বার্তা২৪.কম-কে নিশ্চিত করেছেন ঘাট কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার ঘাটের চারটি পল্টুনের মধ্যে ৩ নং পল্টুনের সংযোগ সড়কে পানি উঠে গেলে সেখানে গো-খাদ্যবাহী একটি ট্রাক উল্টে গেলে বন্ধ হয়ে যায় ঘাটটি। অপরদিকে ৬ নং পল্টুনের সংযোগ সড়ক পানিতে তলিয়ে গেলে ঘাট কর্তপক্ষ দুর্ঘটনা এড়াতে তা সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করেন। দুটি ঘাট বন্ধ থাকায় চরম বিপাকে পড়েন কোরবানি ঈদের গরুবাহী ট্রাক চালক ও ব্যবসায়ীরা। সেই সাথে ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ যাত্রীরা।

পদ্মায় অব্যাহত পানি বৃদ্ধির কারণে গত কয়েক দিন ধরেই চরম বিপর্যস্ত দেশের এই গুরুত্বপূর্ণ নৌরুটটি। ঘাটের সার্বিক এই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে মঙ্গলবার দুপুরে পরিদর্শনে আসেন বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক।

ঘাট পরিদর্শনে এসে তিনি ঘাটের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ শেষে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সাময়িক বন্ধ থাকা ঘাট সংস্কার করে তা সচল করার নির্দেশ দেন সংশ্লিষ্টদেরকে। চেয়ারম্যানের নির্দেশের পরই আজ তা সচল হলো।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহনের (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ্ রনি বার্তা২৪.কম-কে বলেন, বর্তমান দৌলতদিয়ার সবগুলো পল্টুনই সচল রয়েছে। বড় ধরনের কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে ইনশাল্লাহ এবার ঈদে ঘরমুখো মানুষ কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়াই তারা নির্বিঘ্নে ঘরে ফিরতে পারবে।

এ সময় তিনি আরও জানান, বর্তমানে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ১৫টি ফেরি চলাচল করছে। এরমধ্যে ৮টি বড়, ১টি ছোট ও ৬টি মাঝারি।