সরকারি-রাজনৈতিক মিরসরাইয়ের সব অনুষ্ঠানে রুহেল কেন প্রধান অতিথি?



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সরকারি-রাজনৈতিক মিরসরাইয়ের সব অনুষ্ঠানে রুহেল কেন প্রধান অতিথি?

সরকারি-রাজনৈতিক মিরসরাইয়ের সব অনুষ্ঠানে রুহেল কেন প্রধান অতিথি?

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ঘর উপহার অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে বিশিষ্ট আইটি বিশেষজ্ঞ মাহাবুব রহমান রুহেল উপস্থিত ছিলেন, তা নিয়ে নানা মহলে প্রশ্ন উঠেছে। আইটি বিশেষজ্ঞ কী কোন রাজনৈতিক পদ কিনা তা নিয়ে কৌতুহল দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সমতলে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতিত) কর্মসূচির বসতঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন মীরসরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। ওই অনুষ্ঠানে মাহবুব রহমান রুহেল উদ্বোধক হন। তার পরিচয় দেওয়া হয়েছে বিশিষ্ট আইটি বিশেষজ্ঞ। সে অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের রাজনীতিক কোনো নেতার উপস্থিতি না থাকায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

জানা গেছে, আশ্রয়ণ প্রকল্পের ওই অনুষ্ঠানে স্থানীয় নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। আর এ বিষয়টিকে ‘অপমানজনক’ হিসেবে দেখছেন স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও বাসিন্দারা।

আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক পদবী না থাকলেও সাবেক মন্ত্রীপূত্র মাহাবুব রহমান রুহেলকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকতে দেখা যায়

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের প্রতি অবহেলায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন এলাকাবাসী। তারা বলছেন, বসতঘর হস্তান্তর একটা সরকারি অনুষ্ঠান। যেখানে সভাপতিত্ব করছেন মীরসরাই উপজেলার নির্বাহী অফিসার মিনহাজুর রহমান। অথচ সেখানে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের তেমন উপস্থিতি নেই। বিশিষ্ট আইটি বিশেষজ্ঞ হিসাবে পরিচিত মাহাবুব রহমান রুহেলকে হস্তান্তর অনুষ্ঠানের উদ্বোধক কেন করা হয়েছে? এ ধরনের অনুষ্ঠানে স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতিকদের উপস্থিতি নেই। এটা তাদেরকে অপমান করা নয় কি?

তারা আরও জানান, মিরসরাই ইউএনও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানিত বসতঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানটি ছিল সরকারি। সাধারণত সরকারি অনুষ্ঠানে স্থানীয় এমপি, জেলার অনুষ্ঠানে ডিসি, উপজেলার অনুষ্ঠানে ইউএনও বা উপজেলা চেয়ারম্যান প্রধান অতিথির আসনে থাকেন। কিন্তু মিরসরাইয়ের অনুষ্ঠানে এসব প্রটোকল ভেঙে কোন রাজনীতিবিদ বা সরকারি উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা না হয়েও মাহাবুব রহমান রুহেলকে করা হলো উদ্বোধক।

বসতঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠান

তবে শুধু শুক্রবারের ওই অনুষ্ঠানেই নয় বিভিন্ন সময় আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক পদবী না থাকলেও সাবেক মন্ত্রীপূত্র মাহাবুব রহমান রুহেলকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকতে দেখা যায়। কোন ক্ষমতাবলে রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে প্রধান ও বিশেষ অতিথি হন তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন রয়েছে। এছাড়াও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে উপক্ষো করে রুহলের এমন আচরণ বরাবরেই সমালোচনা করছে আসছে বিভিন্ন মহল।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ জানান, বেশ কিছুদিন ধরে এমন পরিস্থিতি দেখছি মিরসরাই আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে স্থানীয় নেতাদের উপেক্ষা করা হচ্ছে। রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে রাজনীতিবিদরা আমন্ত্রণ পান না। আমন্ত্রণ পেলেও যা নামেমাত্র দেওয়া হয়।  আসলে এসব মেনে নেওয়া যায় না।

এদিকে আশ্রয়ণ প্রকল্পের অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতাদের অনুপস্থিত মীরসরাই উপজেলার নির্বাহী অফিসার মিনহাজুর রহমান বলেন, বসতঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আমরা স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। মাহবুব রহমান রুহেল সাহেব এমপিপূত্র হওয়ায়, এমপি মহোদয়ের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। রাজনীতিতে পদবী না থাকলেও তাকে আমরা এমপির প্রতিনিধি হিসেবে আমন্ত্রণ জানিয়েছি।