সাধারণ নাগরিকের অধিকার থেকেও বঞ্চিত খালেদা: মঈন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের মানববন্ধন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের মানববন্ধন।

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রাখা হয়েছে। একজন সাধারণ নাগরিকের জামিনের যে অধিকার থাকে বেগম খালেদা জিয়াকে সেই অধিকার থেকেও বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে।

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল কর্তৃক আয়োজিত খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনের প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মইন খান বলেন, বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। গণতন্ত্রকে আমরা বিশ্বাস করি। এজন্য একটি মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রাখা সত্ত্বেও নিয়মতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করে যাচ্ছি।

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে তিনি বলেন, রাজনীতিবিদরা মানুষের জন্য রাজনীতি করে। নিজেদের জন্য রাজনীতি করে না। কিন্তু আওয়ামী লীগ সেটা করতে ব্যর্থ হয়েছে। সম্প্রতি তাদের নেতাদের বাসা থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনা সেটাই প্রমাণ করে।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্যে করে বিএনপির আরেক স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ঢাকা শহরকে যারা ক্যাসিনোর শহর বানিয়েছে তাদেরকে আপনারা পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন। আপনাদের পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া তারা এতগুলো ক্যাসিনো করতে পারতো না।

নজরুল ইসলাম বলেন, যারা ক্যাসিনোর সাথে জড়িত তাদের সবাইকে ধরুন। বাংলাদেশ থেকে ক্যাসিনোর ক্যালচার দূর করুন। লুটপাটের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের সবাইকে আইনের আওতায় নিয়ে আসুন। কিন্তু আপনার এটা করতে পারবেন না। কারণ এই অনাচার যত বাড়তে থাকবে তত আপনাদের নেতারা লাভবান হবে।

তিনি বলেন, এই সংকট থেকে মুক্তির জন্য সরকার পরিবর্তন দরকার। সরকার পরিবর্তন ছাড়া গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে না। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত না হলে জনগণের অধিকারও প্রতিষ্ঠিত হবে না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের অসংখ্য নেতাকর্মী।

আপনার মতামত লিখুন :