আবরার হত্যা জাতিকে মেধাশূন্য করার নীলনকশা: অলি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
সংবাদ সম্মেলনে কর্নেল অলি আহমদ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সংবাদ সম্মেলনে কর্নেল অলি আহমদ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে দমন করার জন্য ছাত্রদের হাতে সরকার অস্ত্র তুলে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ।

তিনি বলেন, 'বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের নিষ্ঠুর, নির্দয় ও অমানবিক হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানাই। এটি জাতিকে মেধাশূন্য করার একটি নীল নকশা। বর্তমান সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অযোগ্য ব্যক্তিদেরকে রাজনৈতিক বিবেচনায় শিক্ষক ও ভিসি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। এছাড়াও বিরোধী রাজনৈতিক দলকে দমন করার জন্য ছাত্রদের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছে। অবৈধ টাকা দিয়েছে, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী করার পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।'

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বিকাল ৪টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে জাতীয় মুক্তিমঞ্চ।

কর্নেল অলি বলেন, 'কোমলমতি শিক্ষার্থীদের রাজনৈতিক কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এক শ্রেণির শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সঠিক পথে রাখার পরিবর্তে বিপথগামী করছে। এটা আমাদের নতুন প্রজন্ম যারা আগামী দিনে দেশ পরিচালনা করবে তাদেরকে ধ্বংস করার একটা নীলনকশা। এসব অদক্ষ শিক্ষকদেরকে চাকরি থেকে বের করে দিতে হবে। দুর্নীতিবাজ ভিসিদের আইনের আওতায় আনতে হবে।'

তিনি বলেন, 'ক্যাসিনো ও মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকে এখনো গ্রেফতার করা হয়নি। অনেক এমপি, মন্ত্রী, নেতা ক্যাসিনোর টাকার ভাগ পেয়েছেন। এখনো কেনো তারা গ্রেফতার হচ্ছে না?'

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, জাতীয় দলের চেয়ারম্যান এহসান হুদা, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আসাদ, এলডিপির স্থায়ী কমিটির সদস্য কামলা উদ্দিন প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :