করোনা নিয়ে রাজনীতি করবেন না: সরকারকে মওদুদ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মানিকগঞ্জ
অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন মওদুদ আহমদ/ছবি: বার্তা২৪.কম

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন মওদুদ আহমদ/ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস নিয়ে সরকারকে রাজনীতি না করার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

তিনি বলেন, করোনা নিয়ে আপনারা (সরকার) রাজনীতি করবেন না। আপনারা রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন, আপনাদের কাছ থেকে আমরা এতটুকু আশা করবো।

শুক্রবার (১৩ মার্চ) সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘করোনাভাইরাস: বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মওদুদ আহমদ বলেন, করোনা একটি ভয়ঙ্কর রোগ। আজকে যদি এটা ব্যাপক আকার ধারণ করে তাহলে সরকার এটা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হবে। এটা দেশের মানুষ বিশ্বাস করে। কারণ সরকারের করোনার ব্যাপারে প্রথমে উদাসীন ছিলেন। এখন তারা যেটা করছে তা পত্রিকার কাগজ বিজ্ঞাপনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। কতটুকু প্রস্তুতি তাদের আছে তা কেউ বলতে পারবে না।

মওদুদ বলেন, করোনা কোথা থেকে এসেছে? কিভাবে এসেছে? কি কারণে এসেছে? সেটা এখন পর্যন্ত কেউ আবিষ্কার করতে পারেনি। তবে এতটুকু আমরা জানি যে এই রোগ প্রথম ধরা পড়ে চীন দেশে। তারপরেই এটি বিশ্বের প্রায় ১২০টি দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

তিনি বলেন, বিশ্বের উচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তিরা এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। কেউ বলতে পারবে না যে আমি আক্রান্ত হবো না। এটি এমন একটি ভয়াবহ রোগ। যেটি যে কোনো সময়, যে কোনো দেশে ব্যাপক আকার ধারণ করতে পারে। আমাদের মত দেশে যেখানে ঘনবসতি খুব বেশি সেখানে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনাও অনেক বেশি।

বিএনপির সিনিয়র এই নেতা বলেন, আমি মনে করি না যে সরকার করোনাভাইরাস প্রতিরোধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। তারা এয়ারপোর্টে যে ব্যবস্থা নিয়েছে তা একেবারেই অপ্রতুল। সেখানে দায়সারা একটি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এই সরকার জবাবদিহিহীন সরকার, একটি অনির্বাচিত সরকার। সেটা আমাদের মনে রাখতে হবে। সেজন্য তারা যখন কিছু বলে বা কিছু করে সেখানে সবসময় আমাদের সন্দেহ থাকে। সন্দেহ থাকে এই কারণে যে প্রত্যেকটি রাষ্ট্রীয় বিষয়ে তারা দুর্নীতির আশ্রয় গ্রহণ করে।

মওদুদ আহমদ আরও বলেন, আমার মনে হয় বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, স্কুলগুলো বন্ধ ঘোষণা করা উচিত। কারণ কেউ বলতে পারে না সে ঝুঁকিমুক্ত। সরকারের এই ঝুঁকি নেওয়া উচিত হচ্ছে না। সব ধরনের সর্তকতা অবলম্বন করা উচিৎ।

বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার আন্দোলনের চেয়ারম্যান কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশের সভাপতিত্বে সভায় নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।