দুর্যোগে রাজনীতি নয়, চাই জাতীয় উদ্যোগ: রওশন এরশাদ



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকারের সর্বাত্মক ও সম্মিলিত উদ্যোগে রাজনৈতিক দলগুলোকে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখা উচিত। অভিন্ন শত্রু করোনাকে পরাজিত করতে রাজনৈতিক দলগুলোকে উদারতার ও নৈতিকতার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ।

তিনি বলেছেন, ‘দুর্যোগে কোনো রাজনীতি নয়, চাই জাতীয় উদ্যোগ। এ দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের আন্তরিকতার কোনো অভাব পরিলক্ষিত হয়নি।’

বুধবার (৬ মে) এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে রওশন এরশাদ বলেন, ‘হাওরাঞ্চলে অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে ধান কাটা প্রায় শেষ হয়েছে। আগাম বন্যায় কোনো কোনো বছর হাওরের ধান নষ্ট হয়, এবার তা হয়নি। সরকারসহ জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মীরা কৃষককে সহযোগিতা করায় তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হিমশিম খাচ্ছে বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলো। আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশও সম্পূর্ণ অপরিচিত প্রাণঘাতী এই মহামারি মোকাবিলায় চিরন্তর প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি আন্তর্জাতিক সাপ্তাহিক নিউজ পেপার দ্য ইকোনমিস্ট করোনা পরিস্থিতিতে অর্থনীতির নিরাপত্তা নিয়ে গবেষণার তালিকায় দেখা যায়- চীন ও ভারত থেকে নিরাপদ বাংলাদেশের অর্থনীতি। নিঃসন্দেহে বলতেই হবে সম্মানজনক এ অর্জন।’

সংসদের বিরোধী দলীয় এই নেতা বলেন, ‘জনগণ যখন ঘরে বন্দী তখন প্রশাসন, পুলিশ,সেনাবাহিনী মানুষকে সচেতন করছে। ডাক্তাররা হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। তাদের এ কর্মপ্রয়াস অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে।’

একদিকে লকডাউন দিয়ে, অন্যদিকে দোকানপাট খুলে দেওয়ায় করোনা পরিস্থিতি যাতে বৃদ্ধি না পায় সেজন্য সরকারকে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় পার্টি যখন ক্ষমতায় ছিল বন্যাসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল। সরকারের পাশাপাশি সব রাজনৈতিক দল, সাধারণ জনগণ, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন একযোগে কাজ করলে অচিরেই দেশ থেকে করোনা নিয়ন্ত্রণে সক্ষম হওয়া যাবে।’