প্রিমিয়ার লিগে মরিনহোর টটেনহ্যামের দশম হার



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ম্যানইউ’র কাছে হারল টটেনহ্যাম

ম্যানইউ’র কাছে হারল টটেনহ্যাম

  • Font increase
  • Font Decrease

শিরোপা স্বপ্নটা সেই কবেই জলাঞ্জলি দিয়ে ফেলেছে টটেনহ্যাম হটস্পার। লক্ষ্য এখন একটাই। কোনোমতে শীর্ষে চারে থেকে প্রিমিয়ার লিগের মৌসুমটা শেষ করা। যাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের একটি স্পট অন্তত নিজেদের হাতে থাকে।

কিন্তু স্পারদের সেই প্রত্যাশাটা আরও মলিন করে দিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। টটেনহ্যামের মাঠে পিছিয়ে পড়েও ৩-১ গোলের প্রাপ্য জয়ই ছিনিয়ে নিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

এ জয়ে ৩১ ম্যাচ শেষে ওল্ড ট্রাফোর্ডের পুঁজি দাঁড়িয়েছে ৬৩ পয়েন্ট। এক ম্যাচ বেশি খেলে ১১ পয়েন্টে এগিয়ে এখন কোচ পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি (৭৪ পয়েন্ট)।

পুরো ক্যারিয়ারে এর চেয়ে খারাপ সময় আর কখনো যায়নি স্পার কোচ হোসে মরিনহোর। এক মৌসুমে এই প্রথম লিগে ১০ ম্যাচ হারের তেতো স্বাদ হজম করলেন এ পর্তুগিজ স্পেশাল ওয়ান কোচ।

এ ম্যাচ জিতলে চ্যাম্পিয়নস লিগের টিকিটের লড়াইয়ে টিকে থাকতে পারত টটেনহ্যাম। কিন্তু আরও একটি বিবর্ণ পারফরম্যান্সে সেই লড়াই থেকে অনেকটা দূরেই রয়ে গেল তারা। দূরত্বটা এখন ছয় পয়েন্টের। ৩১ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্টে নিয়ে সপ্তম স্থানে এখন টটেনহ্যাম।

প্রথমার্ধে রেড ডেভিলদের এগিয়ে দিয়েছিলেন এডিনসন কাভানি। কিন্তু রেফারি আর ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তে গোলটি শেষে বাতিল হয়ে যায়। সন হেউং-মিনকে বাধা দিয়েছিলেন স্কট ম্যাকটমিনে। ঠিক একারণেই বৈধতা পায়নি গোলটি।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে সন হেউং-মিনের গোলে অবশ্য এগিয়ে যায় কোচ হোসে মরিনহোর টটেনহ্যামই। বিরতির পর ম্যানইউ’কে সমতায় ফেরান ফ্রেড। ম্যাচ শেষের ১১ মিনিট আগে এবার ঠিকই গোলের দেখা পান কাভানি। ইনজুরি টাইমে (৯০+৬ মিনিটে) জয়ের ব্যবধান বাড়িয়ে দেন ম্যাসন গ্রীনউড।