অর্থের লোভে ম্যারাডোনাকে অপহরণ করেছিলেন কন্যারা!



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
দুই কন্যা দালমা ও জিয়ানিন্নার মাঝে প্রয়াত ম্যারাডোনা

দুই কন্যা দালমা ও জিয়ানিন্নার মাঝে প্রয়াত ম্যারাডোনা

  • Font increase
  • Font Decrease

ডিয়েগো ম্যারাডোনার মৃত্যু রহস্য নিয়ে বিভিন্ন সময়ে নানা গুঞ্জন রটেছে। আর্জেন্টাইন এ ফুটবল কিংবদন্তির মৃত্যুর জন্য শুরুতে অনেকে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকের অবহেলাকে দায়ী করেন। 

সময় গড়াতেই ম্যারাডোনার মৃত্যু রহস্য নতুন মোড় নিল। এবার বিস্ফোরক তথ্য দিয়ে আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বরের আইনজীবী তার মৃত্যুর জন্য দায়ী করেছেন তার অতি স্নেহের দুই কন্যা দালমা ও জিয়ানিন্নাকে।

আইনজীবী মাতিয়াস মোরালার দাবি, দুই কন্যা এক কোটি ৮০ লাখ ডলারের লোভে ম্যারাডোনাকে অপহরণ করেছিলেন। সেই কষ্টের ধকল কাটাতে না পেরেই গত ২৫ নভেম্বর না ফেরার দেশে চলে গেছেন ম্যারাডোনা। 

চাঞ্চল্যকর খবরটি দিয়ে ম্যাডোনার আইনজীবী বলেন, মৃত্যুর আগে ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী ম্যারাডোনা ছিলেন তার বোন লিলির বাসায়। অর্থের লোভে সেখানেই হানা দেয় তার দুই কন্যা। প্রতিদিন ম্যাডোনার সঙ্গে ঝগড়া করতেন। তার কাছ থেকে ক্রেডিট কার্ড হাতিয়ে নিতে বাবাকে অপহরণ করেছিলেন দালমা ও জিয়ানিন্না।

ম্যারাডোনার সম্পত্তি ও মৃত্যু রহস্য নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হলে একাধিক কমিটি গঠন করা হয়। তাতে রহস্যের কোনো সুরাহা তো হচ্ছেই না। বরং নতুন নতুন চাঞ্চল্যকর তথ্যে রহস্যটা আরও ঘোলাটে হচ্ছে। ম্যারাডোনার মৃত্যুর জন্য তার দুই কন্যাকে দায়ী করা সেটাই প্রমাণ করে।