পাকিস্তানকে হটিয়ে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে ছয়ে উঠল বাংলাদেশ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
টাইগার ক্রিকেটাররা

টাইগার ক্রিকেটাররা

  • Font increase
  • Font Decrease

আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে একধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানকে পিছনে ফেলে ছয় নম্বরে উঠে গেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। 

বাংলাদেশ ও পাকিস্তান দুই দলেরই পুঁজি সমান। ৯৩ রেটিং পয়েন্ট। তবে ভগ্নাংশের ব্যবধানে পাকিস্তান টপকে এক ধাপ ওপরে উঠে ছয়ে জায়গা করে নিয়েছে টাইগাররা।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতে রেটিং পয়েন্ট বাড়িয়ে নিয়েছে বাংলাদেশ। তবে টাইগাররা থেকে যায় র‍্যাঙ্কিয়ের সাত নম্বরে।

প্রথম ওয়ানডেতে নিজেদের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৮৮ রানে হার মানায় রেটিং পয়েন্ট কমে গেছে পাকিস্তানের। এ কারণে সাত নম্বরে নেমে গেছে তারা। আর বাংলাদেশ পৌঁছে গেছে ছয় নম্বরে।

স্লো ওভার রেটের জরিমানা দিলো টাইগাররা



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
টাইগার ক্রিকেটাররা

টাইগার ক্রিকেটাররা

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রথম টি-টোয়েন্টি ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। আর দ্বিতীয় ম্যাচে হজম করতে হয়েছে হারের তেতো স্বাদ। সিরিজ ট্রফি হাতছাড়া হওয়ার দ্বারপ্রান্তে।

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে হারের দুঃস্বপ্ন না ভুলতেই আরও একটি খারাপ খবর এসে হাজির। স্লো ওভার রেটের কারণে শাস্তি পেয়েছে ক্যাপ্টেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বোলিং শেষ করতে পারেনি। অতিথিরা শেষ ওভারটা করেছিল নির্ধারিত সময়ের পর। এ কারণে ম্যাচ রেফারি রিচি রিচার্ডসন বাংলাদেশ দলের সবাইকে ম্যাচ ফি’র ২০ শতাংশ করে জরিমানা করেছেন। 

ফিল্ড আম্পায়ার লেসলি রেইফার জুনিয়র, নাইজেল ডুগুইদ, থার্ড আম্পায়ার জর্জি ব্র্যাথওয়েইট ও চতুর্থ আম্পায়ার প্যাট্রিক গুস্তার্দ রেফারির কাছে ধীরগতির বোলিংয়ের অভিযোগ করেন।

বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ নিজেদের শাস্তিটা মেনে নিয়েছেন। যে কারণে আনুষ্ঠানিক কোনো শুনানির প্রয়োজন পড়েনি। 

আগামীকাল তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি। এই ম্যাচে হারলে সিরিজটাই খুইয়ে ফেলবে টাইগাররা।

;

উইম্বলডনের মিশ্র দ্বৈতের সেমি-ফাইনালে সানিয়া মির্জা



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সানিয়া মির্জা

সানিয়া মির্জা

  • Font increase
  • Font Decrease

আগামী নভেম্বরে ৩৬ এ পা দিতে যাচ্ছেন সানিয়া মির্জা। বয়সটা বেড়ে যাওয়ায় টেনিস ক্যারিয়ারকে বিদায় বলে দেয়ার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছেন। তাই তো এবারের পর উইম্বলডনের আর দেখা যাবে না তাকে। 

ক্যারিয়ারের শেষ উইম্বলডন আসরটা সানিয়া শেষ করতে চান শিরোপা জিতে। সেই পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলেন ভারতীয় এ টেনিস সেনসেশন।

মেয়েদে দ্বৈত ইভেন্টের প্রথম রাউন্ডে বিদায় নিয়েছেন সানিয়া। তবে মিশ্র দ্বৈতে উঠে গেছেন সেমি-ফাইনালে।

কোয়ার্টার-ফাইনালে ৬-৪, ৩-৬ ও ৭-৫ গেমে জিতেছেন সঙ্গী ক্রোয়েশিয়ার মেট পেভিকের সঙ্গে জুটি বেঁধে। উইম্বলডনের মিশ্র দ্বৈতে এটাই হায়দরাবাদ কন্যার সেরা সাফল্য।

ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে নীল স্কুপস্কি-দেসিরাই ক্রজিক জুটির বিপক্ষে লড়বেন সানিয়া ও তার পার্টনার।

;

ভারতকে হারিয়ে রেকর্ড গড়ল ইংল্যান্ড



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ট্রফির সামনে ইংলিশ ক্রিকেটাররা

ট্রফির সামনে ইংলিশ ক্রিকেটাররা

  • Font increase
  • Font Decrease

জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের সামনে লক্ষ্য ছিল ৩৭৮ রান। আপাতত দৃষ্টিতে অসম্ভব মনে হলেও সেই অসম্ভবকে সম্ভব করেছে ইংলিশরা। বার্মিংহামে ৭ উইকেটে জিতেছে।

দুরন্ত এ জয়ে রেকর্ডও করেছে ইংল্যান্ড। এত বেশি রান তাড়া করে আগে কোনো টেস্ট জেতেনি স্বাগতিকরা।

পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ২-২ এ সমতা নিয়ে শেষ করল দুদল। করোনার কারণে সিরিজে পঞ্চম ও শেষ টেস্টটি পিছিয়ে গিয়েছিল। ভারত শুধু সিরিজ আর ম্যাচ হাতছাড়া করেনি। স্লো ওভার রেটের দুই কেটে নিয়েছে আইসিসি। 

জো রুট (১৪২) ও জনি বেয়ারস্টো (১১৪) হার না মানা জোড়া সেঞ্চুরির সুবাদে ৩৭৮ রানের চ্যাম্পিয়নস লক্ষ্যটা ছুঁয়ে ফেলেছে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে। অ্যালেক্স লিস ৫৬ ও জ্যাক ক্রলি ৪৬ রান যোগ করেন দলীয় স্কোরে। ভারতের হয়ে দুটি উইকেট নেন জাসপ্রিত বুমরাহ।

ভারতের প্রথম ইনিংসের ৪১৬ রানের জবাবে ইংল্যান্ড গুটিয়ে গিয়েছিল ২৮৪ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৪৫ রান তুলে ভারত এগিয়ে যায় ৩৭৭ রানে

;

কিউই নারী ক্রিকেটাররা পাবেন পুরুষদের সমান ম্যাচ ফি



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
নিউজিল্যান্ডের নারী ক্রিকেটাররা

নিউজিল্যান্ডের নারী ক্রিকেটাররা

  • Font increase
  • Font Decrease

নতুন চুক্তি পেতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ডের নারী ক্রিকেটাররা। পাঁচ বছরের চুক্তিটা হয়ে গেলে নারী ও পুরুষ ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি'র বৈষম্য দূর হবে। এতে নিউজিল্যান্ডের নারী ক্রিকেটাররাও পুরুষদের সমান ম্যাচ ফি পাবেন।

আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে নারী ও পুরুষ ক্রিকেটাররা ফি পাবেন ৪ হাজার নিউজিল্যান্ড ডলার। টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচ ফি হবে ২৫০০ নিউজিল্যান্ড ডলার। আর ঘরোয়া পর্যায়ে ফর্ড ট্রফি কিংবা হ্যালি বার্টন জনস্টন শিল্ডের ম্যাচে ক্রিকেটারদের পকেটে যাবে ৮০০ নিউজিল্যান্ড ডলার।

সুপার স্ম্যাশে তাদের আয় হবে ৫৭৫ ডলার। টেস্টে ম্যাচ ফি হবে ১০২৫০ ডলার। আর প্লাঙ্কেট শিল্ডের ম্যাচে খেলোয়াড়রা পাবে ১৭৫০ ডলার।

এক জন নারী ক্রিকেটার বছরে আয় করতে পারবেন প্রায় ১লাখ ৬৪ হাজার ডলার করে। ঘরোয়া ক্রিকেটে একজন ক্রিকেটারের আয় হবে প্রায় ২০ হাজার ডলার।

এক জন পুরুষ ক্রিকেটার আয় করতে পারবেন সর্বোচ্চ ৫ লাখ ২৪ হাজার ডলার। নারীদের চেয়ে পুরুষদের খেলা বেশি হওয়ার কারণে নারীদের চেয়ে পুরুষের আয় বেশি। যদিও তারা ম্যাচ ফি পাবেন সমান।

;