দেশে প্রথমবারের মতো পেশাদারদের বক্সিং আয়োজন করছে বিবিএফ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
দেশে প্রথমবারের মতো পেশাদারদের বক্সিং আয়োজন করছে বিবিএফ

দেশে প্রথমবারের মতো পেশাদারদের বক্সিং আয়োজন করছে বিবিএফ

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পেশাদারদের জন্য আন্তর্জাতিক বক্সিং আয়োজন ‘সাউথ এশিয়ান প্রফেশনাল বক্সিং ফাইট নাইট- দ্য আল্টিমেট গ্লোরি’।

আগামী ১৯ মে বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিরপুরের শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে এই বক্সিং ফাইট অনুষ্ঠিত হবে। দেশের বক্সারদের আন্তর্জাতিক প্লাটফর্ম দিতে এবং বক্সিংকে পেশা হিসেবে বেছে নেয়ার সুযোগ করে দিতে প্রথমবারের মতো এমন আয়োজন করেছে বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশন (বিবিএফ)। পুরো আয়োজনে সহযোগিতা করছে এক্সেল স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড প্রোমোশনস।

এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে বক্সিং নিয়ে কাজ করার কথাও জানিয়েছে বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশন। বাংলাদেশ, নেপাল ও ভারতের মোট ১৪ জন বক্সার বিভিন্ন ওয়েটক্লাসে এই টুর্নামেন্টে অংশ নেবেন। সবচেয়ে প্রত্যাশিত লড়াইটি হবে বাংলাদেশের মোহাম্মদ আলামিন এবং নেপালের ভারত চাঁদের মধ্যে। ওয়েল্টারওয়েট শ্রেণির দুই জাতীয় বীরের মধ্যে চার রাউন্ডের এই পেশাদার লড়াইটি হবে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এই ধরনের প্রথম লড়াই।

মঙ্গলবার রাজধানীর বনানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে প্রফেশনাল বক্সিংয়ের আন্তর্জাতিক এই আয়োজন নিয়ে বিস্তারিত তুলে ধরে বিবিএফ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের সভাপতি আদনান হারুন, ভারতের বক্সিং কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ব্রিগেডিয়ার পিকেএম রাজা, নেপাল প্রফেশনাল বক্সিং কমিশনের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্স মনোহর বাসনেত।


সংবাদ সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের সভাপতি আদনান হারুন বলেন, ‘দেশের বক্সারদের আন্তর্জাতিক প্লাটফর্ম দিতে এবং বক্সিংকে তাদের পেশা হিসেবে বেছে নিতে সুযোগ করে দেয়ার উদ্দেশ্য নিয়েই বিবিএফ যাত্রা করেছে। আমরা চাই দেশে যারা অ্যামেচার বক্সার আছে তাদেরকে প্রফেশনাল হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবে পরিচয় করিয়ে দিতে।’

তিনি জানান, বিবিএফ-এর এই যাত্রায় প্রথম বক্সিং আয়োজনই হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার তিনটি দেশ নিয়ে। স্বাগতিক বাংলাদেশ ছাড়াও এতে থাকছে ভারত এবং নেপালের চ্যাম্পিয়ন বক্সাররা। পুরো আয়োজন হবে আন্তর্জাতিক সব প্রক্রিয়া অনুসরণ করে। এরইমধ্যে আয়োজনকে সফল করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানানো হয়।

আদনান হারুন বলেন, ‘দেশে অ্যামেচার বক্সিং থাকলেও প্রফেশনাল বক্সিং আয়োজন হয় না। অ্যামেচার বক্সিংয়ে অনেকেই দেশের সম্মান বয়ে আনেন। কিন্তু তারা যখন একটা পর্যায়ে বক্সিংকে পেশা হিসেবে বেছে নিতে চান তখন সেটা পারেন না। আমরা সেই জায়গাটিতেই কাজ করতে চাই। আমরা চাই এমন বক্সারদের তুলে এনে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আন্তর্জাতিকভাবে বক্সিং আয়োজনে পাঠাতে। সেই লক্ষে একটা দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছি।’

বাংলাদেশ বক্সিং ফেডারেশন অ্যামেচার বক্সিং নিয়ে কাজ করে। তাই যখন ফেডারেশনকে বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশন প্রফেশনাল এমন আয়োজনের কথা জানায় তখন তারাও এতে উৎসাহ দিয়েছে বলে জানান আদনান হারুন।

সংবাদ সম্মেলনে ইন্ডিয়ান বক্সিং কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ব্রিগেডিয়ার পিকেএম রাজা বলেন, ‘এখন প্রফেশনাল বক্সিং মাল্টি মিলিয়ন ডলার ইন্ডাস্ট্রি। বিশ্বে এখন এই বক্সিংয়ের অনেক কদর। বাংলাদেশে অ্যামেচার বক্সিং আয়োজন থাকলেও প্রফেশনালদের জন্য তেমন কোনো আয়োজন ছিল না। বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রসংশনীয়। এটি দেশে নতুন একটি ইকো সিস্টেম গড়ে তুলবে বলে আমাদের প্রত্যাশা। আমরা প্রথম আয়োজনে যোগ দিতে পেরে সত্যিই আনন্দিত।’

নেপাল প্রফেশনাল বক্সিং কমিশনের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্স মনোহর বলেন, ‘নেপালে আমরা প্রফেশনাল বক্সিং শুরু করেছি খুব সম্প্রতি। বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের এই আয়োজনে আসতে পেরে আমরা আনন্দিত। এই আয়োজন দক্ষিণ এশিয়ার বক্সিংকে অনেক দূর এগিয়ে নেবে।’

বৃহস্পতিবারের আয়োজনে বাংলাদেশ থেকে ১১ জন বক্সার, ভারতের একজন এবং নেপালের দুই জন অংশ নেবে। সেখানে মোট সাতটি ফাইট অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের এই পেশাদার বক্সিংয়ে যাদের অভিষেক হবে তারা পার্স মানি হিসেবে পাবেন ৫ হাজার টাকা করে। আর চ্যাম্পিয়ন পর্যায়ের ফাইটে পার্স মানি থাকছে ২০ হাজার টাকা করে।

টি-টোয়েন্টি সিরিজেও থাকছেন তাসকিন-মিরাজ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
তাসকিন আহমেদ ও মেহেদী হাসান মিরাজ

তাসকিন আহমেদ ও মেহেদী হাসান মিরাজ

  • Font increase
  • Font Decrease

উইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাসকিন আহমেদ। আজ বৃহস্পতিবার খবরটি নিশ্চিত করেছে বিসিবি।

ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বি, শহীদুল ইসলাম ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন দর্শক হয়ে আছেন টি-টোয়েন্টি দলে। এ কারণে স্পিনিং অলরাউন্ডার মিরাজ ও পেসার তাসকিন সুযোগ পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে।

মিরাজ দেশের হয়ে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেন ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে। তাসকিন অবশ্য কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে নিয়মিত সদস্য।

আগামী শনিবার, ২ জুলাই হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। পরদিন ৩ জুলাই দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুটি ম্যাচই হবে ডমিনিকায়। ৭ জুলাই গায়ানায় হবে শেষ টি-টোয়েন্টি।

টি-টোয়েন্টি দল: মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মুনিম শাহরিয়ার, লিটন দাস, এনামুল হক বিজয়, সাকিব আল হাসান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নুরুল হাসান সোহান, শেখ মেহেদী হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, মেহেদী হাসান মিরাজ ও তাসকিন আহমেদ।

;

ক্যারিবিয়ান সফরে ওয়ানডে সিরিজে খেলবেন না সাকিব



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সাকিব আল হাসান

সাকিব আল হাসান

  • Font increase
  • Font Decrease

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে নেতৃত্ব দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। সামনে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও খেলবেন। তবে ক্যারিবীয় সফরে এ বাঁহাতি অলরাউন্ডার খেলবেন না ওয়ানডে সিরিজে। 

টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলে সাকিব যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন। ছুটি কাটাবেন স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে। এ কারণে টেস্ট দলের বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম ওয়েস্ট ইন্ডিজে থেকে যাচ্ছেন। 

একদিনের সিরিজটি বিশ্বকাপ ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ হিসেবে খেলবে না বাংলাদেশ। এ কারণেই ছুটি চেয়েছেন সাকিব। যদিও তিন সংস্করণেই রয়েছে এ বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডারের নাম।

সাকিবের ছুটি চাওয়া নিয়ে পাপন বলেন, 'সাকিব যাওয়ার আগে বলেছিল টেস্ট খেলবে না, ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি খেলবে। আমার সাথে বসার পর বলল খেলবে টেস্ট এবং ওকে তো অধিনায়কই করা হলো। শুনেছি জালাল ভাইকে (জালাল ইউনুস, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান) বলেছে, ও ওয়ানডে সিরিজে নাও খেলতে পারে। আগেই বলেছে। যেহেতু এখনো বোর্ডের সাথে কথা বলেনি (আনুষ্ঠানিকভাবে), হয়ত আজ-কালকের মধ্যে জানলে বুঝতে পারব।’ 

পাপন আরো যোগ করেন, ‘এটাকে আনুষ্ঠানিক ধরতেও পারেন। ও (সাকিব) নাকি মৌখিকভাবে জালাল ভাইকে বলেছে, এটা জালাল ভাই বলেছে আমাকে।’

সাকিবের সঙ্গে তামিমের মতো সিনিয়রদের বিশ্রাম দিয়ে তরুণদের পরখ করে নিতে চায় বিসিবি। এ নিয়ে পাপন বলেন, ‘যেগুলো র‍্যাঙ্কিংয়ের (আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ, ওয়ানডে সুপার লিগ অর্থে) অংশ না, এসব সিরিজে সিনিয়র ক্রিকেটাররা ছুটি চাইলে ভালো। আমরাও তখন নতুন ছেলেদের সুযোগ দেওয়ার সুযোগ পাব।’

আগামী শনিবার, ২ জুলাই হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। পরদিন ৩ জুলাই দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুটি ম্যাচই হবে ডমিনিকায়। ৭ জুলাই গায়ানায় হবে শেষ টি-টোয়েন্টি।

গায়ানায় হবে ওয়ানডে সিরিজ। ১০, ১৩ ও ১৬ জুলাই হবে এক দিনের ম্যাচ তিনটি।

;

বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই আন্দ্রে রাসেল-হেটমায়ার



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
আন্দ্রে রাসেল ও শিমরন হেটমায়ার

আন্দ্রে রাসেল ও শিমরন হেটমায়ার

  • Font increase
  • Font Decrease

টেস্ট সিরিজ শেষ। লড়াই এবার টি-টোয়েন্টির। ২ জুলাই মাঠে গড়়াচ্ছে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার টি-টোয়েন্টি সিরিজ। কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য এ সিরিজ খেললেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে নেয়নি আন্দ্রে রাসেল ও শিমরন হেটমায়ারকে। 

সিরিজে ক্যারিবীয়দের সহ-অধিনায়ক হিসেবে থাকছেন রভম্যান পাওয়েল। স্কোয়াডে ফিরেছেন ডেভন টমাস আর অলরাউন্ডার কিমো পল। চোট কাটিয়ে দলে জায়গা করে নিয়েছেন ওবেদ ম্যাকয়। টি-টোয়েন্টির সঙ্গে উইন্ডিজ ঘোষণা করেছে ওয়ানডে দলও। টেস্টে খেলা গুদাকেশ মোতি রয়েছেন ওয়ানডে স্কোয়াডে।

আগামী শনিবার, ২ জুলাই হবে প্রথম টি-টোয়েন্টি। পরদিন ৩ জুলাই দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুটি ম্যাচই হবে ডমিনিকায়। ৭ জুলাই গায়ানায় হবে শেষ টি-টোয়েন্টি।

গায়ানায় হবে ওয়ানডে সিরিজ। ১০, ১৩ ও ১৬ জুলাই হবে এক দিনের ম্যাচ তিনটি।

টি-টোয়েন্টি দল: নিকলাস পুরান (অধিনায়ক), রভম্যান পাওয়েল, শামরাহ ব্রুকস, আকিল হোসাইন, আলজারি জোসেফ, ব্রেন্ডন কিং, কাইল মায়ার্স, ওবেদ ম্যাকয়, কিমো পল, রোমারিও শেফার্ড, ওডিন স্মিথ, ডেভন টমাস ও হেইডেন ওয়ালশ জুনিয়র।

ওয়ানডে দল: নিকলাস পুরান, শাই হোপ, শামরাহ ব্রুকস, কেচি কার্টি, আকিল হোসাইন, আলজারি জোসেফ, ব্রেন্ডন কিং, কাইল মায়ার্স, গুদাকেস মোতি, কিমো পল, অ্যান্ডারসন ফিলিপ, রভম্যান পাওয়েল ও জেডেন সিলস।

;

নাদালের জয়, সেরেনার বিদায়



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
রাফায়েল নাদাল ও সেরেনা উইলিয়ামস

রাফায়েল নাদাল ও সেরেনা উইলিয়ামস

  • Font increase
  • Font Decrease

সেরেনা উইলিয়ামস উইম্বলডন থেকে গত বছর ছিটকে গিয়েছিলেন চোট নিয়ে। পরে খেলেননি অন্য গ্র্যান্ড স্ল্যামে। এবার ফিরলেন লন্ডনের এই আসর দিয়েই। তবে তার প্রত্যাবর্তনটা সুখকর হলো না মোটেই। 

প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিলেন এ মার্কিন কন্যা। ওয়াইল্ড কার্ড নিয়ে খেলতে আসা সেরেনা ফরাসি প্রতিপক্ষ হারমনি ট্যানের কাছে পরাজিত হয়েছেন ৫-৭, ৬-১ ও ৬-৭ (৭-১০) গেমে।

সেরেনা বিদায় নিলেও জয় পেয়েছেন রাফায়েল নাদাল। তবে সেজন্য স্প্যানিশ এ তারকাকে ঘাম ঝরাতে হয়েছে। 

আর্জেন্টাইন প্রতিপক্ষ ফ্রান্সিসকো সেরুন্দোলোকে ৬-৪, ৬-৩, ৩-৬ ও ৬-৪ গেমে হারিয়ে দ্বিতীয় বাছাই নাদাল পৌঁছে গেছে দ্বিতীয় রাউন্ডে। 

;