এবার পেশাদার বক্সিং এ বাংলাদেশের গর্ব সুরো কৃষ্ণ চাকমা-হৃদয়



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪
এবার পেশাদার বক্সিং এ বাংলাদেশের গর্ব সুরো কৃষ্ণ চাকমা-হৃদয়

এবার পেশাদার বক্সিং এ বাংলাদেশের গর্ব সুরো কৃষ্ণ চাকমা-হৃদয়

  • Font increase
  • Font Decrease

আন্তর্জাতিক পেশাদার বক্সিং টুর্নামেন্ট, ‘বেক্সিমকো এক্সবিসি ফাইট নাইট’ ২১ মার্চ মঙ্গলবার ঢাকার ইন্টারকন্টিনেন্টালে অনুষ্ঠিত হয়। মোট ১৪ জন অংশগ্রহণকারী ৭টি বিভিন্ন বিভাগের রিংয়ে লড়াই করে। এই বিভাগ বা ক্যাটাগরিগুলো ছিল ফেদারওয়েট, লাইট হেভিওয়েট, ব্যান্টামওয়েট, ক্রুজারওয়েট, ফ্লাই ওয়েট, লাইটওয়েট এবং ওয়েল্টারওয়েট।

ফেদারওয়েট বিভাগে ছয় রাউন্ডের বাউটে দুই বাংলাদেশি বক্সার – উৎসব আহমেদ এবং আমিনুল ইসলামের মধ্যকার লড়াই দিয়ে টুর্নামেন্টটি শুরু হয়। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ৬ রাউন্ডের বাউটে আমিনুলের বিরুদ্ধে জয়লাভ করেন উৎসব। লাইট হেভিওয়েট ক্যাটাগরিতে, টিকেও (টেকনিক্যাল নকআউট) এ ৩ রাউন্ডের খেলায় শাহরিয়ার শান্তকে পরাজিত করে জাহিদুল ইসলাম অব্যাহত রাখেন তার অপরাজিত রান।

স্থানীয় নায়ক আবু তালহা হৃদয় ব্যান্টামওয়েট বিভাগে ৪ রাউন্ডের লড়াইয়ের পর ভারতীয় বক্সার আশিস কুমারকে পরাজিত করে বাংলাদেশকে গর্বিত করেন। অপরদিকে, ফরাসি বক্সার এলিয়ট মিশেল ক্রুজারওয়েট ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশি বক্সার মোঃ কাওসার আলীকে হারিয়ে বিজয়ী হন।

রাতের পঞ্চম লড়াইয়ে,ডব্লিউবিইউ ইন্টারকন্টিনেন্টাল খেতাবের জন্য ব্রিটিশ-বাংলাদেশি সুপারস্টার রুকসানা বেগম ফ্লাইওয়েট বিভাগে প্রতিভাবান বাংলাদেশি বক্সার তানজিলার বিপক্ষে মুখোমুখি হন।

দুই নারী বক্সারের মধ্যেকার ম্যাচটিই সবচেয়ে বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়ে উঠে যেখানে ১০ রাউন্ডে দুর্দান্ত লড়াইয়ের পর তানজিলার বিপরীতে রুকসানা বেগম ডব্লিউবিইউ ইন্টারকন্টিনেন্টাল শিরোপা জিতে নেয়। বিজয় উদযাপন করতে রুকসানা বাংলাদেশি এবং যুক্তরাজ্যের পতাকা জড়িয়ে ধরেন। আর সে সময় বাংলাদেশ বক্সিং ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, আদনান হারুন, রুকসানার হাতে তুলে দেন ডব্লিউবিইউ ইন্টারকন্টিনেন্টাল চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা।

লাইটওয়েট বিভাগে রাতের ষষ্ঠ বাউটে থাইল্যান্ডের আনান পংখেতের প্রতিপক্ষ হয়ে লড়াই করেন বাংলাদেশি বক্সিং সুপারস্টার সুরো কৃষ্ণ চাকমা। দ্রুততম হাতের অধিকারী হিসেবে পরিচিত, রাঙ্গামাটির ছেলে সুরো লাইটওয়েট বিভাগে আনান পংখেতকে দুই রাউন্ডে নক আউট করে বিজয়ী হন।

রাতের সপ্তম এবং শেষ লড়াইয়ে, বাংলাদেশি বক্সার 'দ্য বুল' আল-আমিন ওয়েল্টারওয়েট বিভাগে তার ভারতীয় প্রতিপক্ষ দুষ্যন্ত শ্রীবাস্তবের বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলেন। ছয় রাউন্ডের এই বাউটিং এ দুষ্যন্ত শ্রীবাস্তবের জয়ের মধ্য দিয়েই ফাইট নাইটটি সমাপ্ত হয়।

   

‘সেই’ উসমানকে নিয়ে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দল ঘোষণা



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আর ঠিক এক সপ্তাহ বাকি। বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়া ২০ দলের ১৯ দল এরই মধ্যে টুর্নামেন্টের জন্য তাদের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে। বাকি ছিল পাকিস্তান, অবশেষে তারাও বিশ্বকাপ মিশনের ১৫ অভিযাত্রীর নাম জানিয়ে দিয়েছে।

পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলের নেতৃত্বে রয়েছেন বাবর আজম। এছাড়া প্রায় সব পরিচিত মুখকেই দলে রেখেছে তারা। তবে সবচেয়ে বড় চমক হয়ে এসেছে উসমান খানের নাম। পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এই ক্রিকেটার সংযুক্ত আরব আমিরাতের দলে খেলার চেষ্টায় ছিলেন।

আরব আমিরাতের তালিকাভুক্ত ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন টি-টোয়েন্টি লিগেও খেলেছেন। কিন্তু পাকিস্তান দল তাকে নিয়ে আগ্রহ দেখাতেই আরব আমিরাত ছাড়েন উসমান। সেজন্য আমিরাতি ক্রিকেট বোর্ড তাকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধও করেছে।

তবে পাকিস্তান তাকে দু’হাত প্রসারিত করে জাতীয় দলে স্বাগত জানিয়েছে। এবার দেশটির জার্সিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দেখা যাবে তাকে।

এছাড়াও পাকিস্তান দলে জায়গা হয়েছে আলোচিত পেসার মোহাম্মদ আমিরের। শাহিন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ, হারিস রউফদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র-ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেটে আগুন ঝরাতে প্রস্তুত এই পেসার।

পাকিস্তানের ১৫ সদস্যের দল

বাবর আজম (অধিনায়ক), আবরার আহমেদ, আজম খান, ফখর জামান, হারিস রউফ, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, আব্বাস আফ্রিদি, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মদ রিজওয়ান, নাসিম শাহ, সাইম আইয়ুব, শাদাব খান ,শাহিন শাহ আফ্রিদি ও উসমান খান

;

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দূত আফ্রিদি



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আর সপ্তাহখানেক পরেই যুক্তরাষ্ট্র-ওয়েস্ট ইন্ডিজে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের মহাযজ্ঞ। সে টুর্নামেন্টের প্রহর গুনছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। টুর্নামেন্টের আবেদন আরো বাড়াতে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ও অন্য খেলার ক্রীড়াবিদদের বিশ্বকাপ দূত হিসেবে নিযুক্ত করেছে আইসিসি। এই তালিকায় সবশেষ সংযোজন পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ‘ইউনিভার্স বস’খ্যাত মারকুটে ব্যাটার ক্রিস গেইল, ভারতের কিংবদন্তি অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং এবং বিশ্বের দ্রুততম মানব উসাইন বোল্টকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দূত হিসেবে নিযুক্ত হন।

আফ্রিদি পাকিস্তানের ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট দল এবং ২০০৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন। ২০০৭ বিশ্বকাপে তো টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়ও নির্বাচিত হয়েছিলেন সে সময়ের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দূত হতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছেন আফ্রিদি, ‘এই টুর্নামেন্ট আমার হৃদয়ের খুব কাছের। প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টুর্নামেন্টসেরা হওয়া থেকে শুরু করে ২০০৯ সালে ট্রফি উঁচিয়ে ধরা- এই মঞ্চে খেলেই আমার ক্যারিয়ারের পছন্দের বেশকিছু মুহূর্তের দেখা পেয়েছি।’

আগামী ১-২৯ জুন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর।

;

জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার প্রতিযোগিতা শুরু শনিবার



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় ও সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেডের পৃষ্ঠপোষকতায় আগামী ২৫-২৮ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘সাইফ পাওয়ারটেক ৩৬তম জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার ও ডাইভিং প্রতিযোগিতা’। মিরপুরের সৈয়দ নজরুল ইসলাম জাতীয় সুইমিং কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হবে এই প্রতিযোগিতা।

গতকাল বৃহস্পতিবার এ সম্পর্কিত সংবাদ সম্মেলনএ বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনর সাধারণ সম্পাদক এম বি সাইফ জানান, বয়সভিত্তিক সাঁতার প্রতিযোগিতায় বালক-বালিকা ৫টি গ্রুপে (অনুর্ধ ১০, ১১-১২, ১৩-১৪, ১৫-১৭ ও ১৮-২০ যুবক-যুবতী) সাঁতারুরা অংশগ্রহণ করবে। বয়সভিত্তিক সাঁতার প্রতিযোগিতায় ৪ দিনে সাঁতারে ১০০ টি ইভেন্ট ও ডাইভিং এ ৩টি ইভেন্ট (১ মি: স্প্রিং বোর্ড, ৩ মি: স্প্রিং বোর্ড ও ৫ মি: প্লাটফর্ম ডাইভিং) মোট ১০৩টি ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। মিরপুর সুইমিং কমপ্লেক্সে ডাইভিং পুলে ডাইভিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

বিজয়ী সাঁতারুদের স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদক প্রদান করা হবে। দলগত চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলকে ট্রফি প্রদান করা হবে। এছাড়াও সেরা সাঁতারু বালক ও বালিকাকে ব্যক্তিগত ট্রফি প্রদান করা হবে এবং আর্থিক পুরস্কার প্রদান করা হবে। এ প্রতিযোগিতায় বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা, জেলা ক্রীড়া সংস্থা, সুইমিং ক্লাব, বিকেএসপি ও বাংলাদেশ আনসারসহ মোট ৬৫টি দলের প্রায় ৫৫০ জন খেলোয়াড়, ৮৫ জন টিম অফিসিয়াল ও ১০০জন মিট অফিসিয়ালসহ প্রায় ৭৩৫ জন অংশগ্রহণ করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড ২০১৩ সাল থেকে জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার ও ডাইভিং প্রতিযোগিতায় নিয়মিত পৃষ্টপোষকতা করে আসছেন। এবারও সাইফ পাওয়ারটেক ৩৬তম জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার ও ডাইভিং প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতা করতে এগিয়ে আসায় সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সহ-সভাপতি তরফদার মোঃ রুহুল আমিনকে বাংলাদেশ সাঁতার ফেডারেশনের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি আশা করেন ভবিষ্যতেও সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড সাঁতারের বিভিন্ন কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত থাকবেন।

;

বঙ্গবন্ধু কাপ কাবাডির ট্রফি উন্মোচন কাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মঞ্চ প্রস্তুত, চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। বর্ণিল সাজ পাচ্ছে মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়াম। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে রোববার পর্দা উঠবে বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টের চতুর্থ আসরের।

১২ জাতির কাবাডির এই আসরে অংশ নিতে বিদেশি দলগুলো ঢাকায় পৌঁছাতে শুরু করেছে। প্রথম দল হিসেবে ঢাকা এসেছে মালয়েশিয়া, এরপর নেপাল, থাইল্যান্ড, পোল্যান্ড, ইরাক, উগান্ডা ও কেনিয়া। আজ শুক্রবার রাতের মধ্যে চলে আসার কথা কোরিয়া, জাপান ও শ্রীলঙ্কার। গত তিন আসরের চ্যাম্পিয়ন স্বাগতিক বাংলাদেশ দল উঠে পড়েছে টিম হোটেলে।

আগামীকাল শনিবার বিকাল ৪টায় মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টের ট্রফি উন্মোচন ও ১২ দেশের অধিনায়ক জানাবেন আসর নিয়ে তাদের পরিকল্পনার কথা।

প্রধান অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান। উপস্থিত থাকবেন বিভিন্ন দেশের কাবাডির নেতৃস্থানীয় কর্মকর্তাবৃন্দ।

;