টাইগারদের বিপক্ষে সাফল্য-রহস্যটা গোপনই রাখলেন 'হিটম্যান'

আপন তারিক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, নাগপুর (ভারত) থেকে
হিটম্যান রোহিত শর্মা, ছবি: সংগৃহীত

হিটম্যান রোহিত শর্মা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ কি রোহিত শর্মার প্রিয় প্রতিপক্ষ?

উত্তরটা অবশ্য মিলল না! ভারত অধিনায়ক রহস্যটা রেখে দিলেন নিজের কাছেই! সাফল্যের রেসিপিটা বলে ফেললে তো সবশেষ।

কিন্তু পরিসংখ্যানে চোখ রাখলে আপনাতে মানতেই হবে, টাইগারদের জন্য আতঙ্কের এক নাম রোহিত শর্মা। বেশিদূর যাবেন কেন, এই সিরিজে রাজকোটের ম্যাচেই চোখ ফেরান। তার কাছেই তো হেরে গেল বাংলাদেশ। নিজের শততম টি-টোয়েন্টিতে খেললেন ৪৩ বলে ৮৫ রানের মনে রাখার মতো এক ইনিংস।

এবার চলুন চোখ রাখি ২০১৮ সালের নিদহাস ট্রফিতে। যেখানে লাল-সবুজদের বিপক্ষে বাংলাদেশকে পেয়েই শুরুতে ৪২ বলে ৫৬ রান। এরপর ৬১ বলে ৮৯। এবার আরেকটু পেছনে যেতে চাই- ২০১৬ এশিয়া কাপ। যেখানে ৫৫ বলে তুলেন ৮৩ রান।

টাইগারদের বিপক্ষে এরইমধ্যে ১০ টি-টোয়েন্টি খেলে পাঁচটিতেই ফিফটি। স্ট্রাইক রেটে ৪৫০!

আবার ওয়ানডেতেও সেই একই দৃশ্যপট সব মিলিয়ে এখন অব্দি ৫০ ওভারের ক্রিকেটে রোহিতকে প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশ পেয়েছে ১৩ বার। যারমধ্যে তুলেছেন ৬৬০ রান। গড় ৬০! তিনটি শতরান আর দুটি ফিফটি!

সেই রোহিতের বিপক্ষে ফের লড়তে হবে বাংলাদেশকে। টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে রোববার নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠে ভারতের সঙ্গে লড়াই। সন্দেহ নেই টাইগার বোলারদের বড় আতঙ্কের নাম এই রোহিত। তার আগে শনিবার প্রশ্ন ভাসল তার এমন সাফল্যের রহস্যটা কি?

ভারত অধিনায়ক হাসি মুখে উত্তর দিলেন, 'দেখুন, রহস্যটি যদি বলেই দেই, তাহলে তো ওরা (বাংলাদেশ) জেনে যাবে আর আমাকে সেভাবেই আটকাবে। এ কারণেই আমি এটি জানাবো না। যদিও বাংলাদেশই নয়, প্রতিটি দলের বিপক্ষে খেলাই উপভোগ করেছি আমি। দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারা অনেক বড় এক ব্যাপার।'

রাজকোটে একটুর জন্য শতরান পেলেন না রোহিত। ১৫ রানের জন্য কি আক্ষেপ হয়? না, এখানেও ব্যতিক্রম দলের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক। বলছিলেন, 'সেঞ্চুরি পাইনি। কিন্তু ম্যাচটা তো জিতেছি। এটাই শেষ কথা। আমি নিজের রেকর্ডের কথা ভেবে খেলি না। দলের জন্যই তো আমি।'

এভাবে ভাবতে পারেন বলেই তিনি রোহিত শর্মা। যার কাছে সবার আগে জাতীয় দল! কে জানে রোববার নাগপুরে কোন চমক নিয়ে বসে আছেন হিটম্যান?

আপনার মতামত লিখুন :