ইডেনে মিরাজ শুধুই ব্যাটসম্যান, বোলিং করার অধিকার নেই

স্পোর্টস এডিটর, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ব্যাট করলেও বল করার সুযোগ পাচ্ছেন না মিরাজ, ছবি: সংগৃহীত

ব্যাট করলেও বল করার সুযোগ পাচ্ছেন না মিরাজ, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পিঙ্ক টেস্টের একাদশেই ছিলেন না মেহেদি হাসান মিরাজ। কিন্তু সেই তিনি ঠিকই চলে এলেন এই টেস্টের একাদশে। লিটন দাসের ইনজুরিই তাকে সেই সুযোগটা করে দিয়েছে। মোহাম্মদ শামির বাউন্সারে মাথায় চোট পান লিটন। হেলমেটে বলটা সরাসরি লাগে তার। তবে সেই চোট নিয়েও লাঞ্চের আগ পর্যন্ত ব্যাট করে যান লিটন। কিন্তু লাঞ্চের পর আর ব্যাট করতে নামেননি। ফিজিও তাকে আর মাঠে না নামার পরামর্শ দেন। এই ধরনের চোট নিয়ে ক্রিকেট মাঠে থাকাটা নিরাপদ নয়। সেজন্যই বাড়তি সতর্কতা হিসেবে লিটন দাসকে ম্যাচ থেকেই সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। তাৎক্ষণিকভাবে আইসিসির মেডিকেল বোর্ডও সেটার অনুমোদন দেয়।

ক্রিকেটের নতুন নিয়ম অনুযায়ী বদলি খেলোয়াড় হিসেবে বাংলাদেশ মেহেদি হাসান মিরাজকে বেছে নেয়। তবে এক্ষেত্রে নিয়ম হলো ব্যাটসম্যানের বদলে ব্যাটসম্যানকেই বেছে নিতে হবে। বোলারের বদলে বোলারকে। লিটন দাস যেহেতু এই টেস্টে ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলছেন তাই মেহেদি হাসান মিরাজকেও এখানে শুধুমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে হবে। তিনি বোলিং করতে পারবেন না।

নিয়মটা তেমনই।

ইডেনের একাদশ গড়ার পর বাংলাদেশ দলের ১৪ জনের স্কোয়াডে যে আর কোনো ব্যাটসম্যানই ছিল না। সাঈফ হাসান আঙ্গুলের ইনজুরির জন্য আগেই এই টেস্টের পরিকল্পনায় নেই। একাদশের বাইরে ছিলেন কেবল মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান। এই তিনের মধ্যে ব্যাটিংটা মেহেদি হাসান মিরাজই একটু বেশি জানেন। তাই পিঙ্ক টেস্টে ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলার সুযোগটা পেলেন মেহেদি হাসান মিরাজ। অথচ শুরুতে তিনি এই টেস্টের একাদশেই ছিলেন না!

লিটনের বদলি হিসেবে ব্যাট করতে নেমে মিরাজ অবশ্য ইডেনের প্রথম ইনিংসে বেশিদূর যেতে পারেননি। ১৩ বলে দুই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৮ রান করে ইশান্ত শর্মার পঞ্চম শিকার হন।

ইডেনে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস শেষ হয় মাত্র ১০৬ রানে। জবাব দিতে নেমে ভারত প্রথম দিনের শেষ সেশনের আধঘন্টার সময়ে তুলে ২ উইকেটে ৫৬ রান। ফিরে গেছেন দুই ওপেনার। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১৪ রানে ও রোহিত শর্মা ২১ রানে আউট হন। উইকেট পেয়েছেন যথাক্রমে আল আমিন ও এবাদত হোসেন।

আপনার মতামত লিখুন :