আট বছর নিষিদ্ধ সাঁতারু সান ইয়াং



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ডোপ টেস্ট মিস করায় নিষিদ্ধ হলেন অলিম্পিয়ান সাঁতারু সান ইয়াং, ছবি: সংগৃহীত

ডোপ টেস্ট মিস করায় নিষিদ্ধ হলেন অলিম্পিয়ান সাঁতারু সান ইয়াং, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনবারের অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন সান ইয়াং। শাস্তিটা বড় হলেও চীনা এই সাঁতারু কিন্তু ডোপ টেস্টে পজিটিভ ধরা পড়েননি। তাহলে তার অপরাধটা কী? ডোপ পরীক্ষা মিস করেছিলেন তিনি।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে ডোপ পরীক্ষাটা মিস করেন সান ইয়াং। আন্তর্জাতিক সুইমিং ফেডারেশন ফিনা অবশ্য প্রাথমিকভাবে ২৮ বছরের এ অ্যাথলিটকে অভিযোগ থেকে মুক্তি দিয়েছিল।

কিন্তু ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা) বিশ্বের সর্বোচ্চ ক্রীড়া আদালত কোর্ট অব আর্বিট্রেশন ফর স্পোর্টে (সিএএস) আপিল করতেই সিদ্ধান্তটা পাল্টে যায়। ইয়াংকে আট বছর নিষিদ্ধ করার কারণ দ্বিতীয়বারের মতো ডোপ টেস্ট মিস করেন সান।

নভেম্বরে আপিল শুনানিতে সান পরীক্ষা মিসের কারণ ব্যাখ্যা করে বলেন, তার বাড়ি গিয়ে পরীক্ষকরা তাদের পরিচয় প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন। নিজের ব্লাড স্যাম্পলে ভরা কন্টেইনার হাতুড়ি দিয়ে গুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগও অস্বীকার করেন।

শক্তিবর্ধক ট্রিমেটাজিডিন সেবনের দায়ে ২০১৪ সালে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়ে ছিলেন সান।

২০১৬ রিও অলিম্পিকে ২০০মিটার ফ্রিস্টাইলে স্বর্ণপদক জেতেন সান। ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইল ও ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইলেও চ্যাম্পিয়ন হন তিনি।