তদন্ত কমিটিতে ডাক পড়ল সাঙ্গাকারা-জয়াবর্ধনের



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
২০১১ বিশ্বকাপের লঙ্কান ক্যাপ্টেন কুমার সাঙ্গাকারা (ডানে) ও তার ডেপুটি মাহেলা জয়াবর্ধনে

২০১১ বিশ্বকাপের লঙ্কান ক্যাপ্টেন কুমার সাঙ্গাকারা (ডানে) ও তার ডেপুটি মাহেলা জয়াবর্ধনে

  • Font increase
  • Font Decrease

জল ভালো করেই ঘোলা হচ্ছে! গুঞ্জনটা অনেক দিন ধরেই ছিল। কিন্তু গত মাসে ফের পুরো প্রসঙ্গটা টেনে এনেছেন শ্রীলঙ্কান সাবেক ক্রীড়া মন্ত্রী মাহিন্দানন্দা আলুথগামাগে। তিনি বোমা ফাটিয়ে বলেন, ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালটি ভারতের কাছে বিক্রি করে দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। ব্যস, এরপর থেমে নেই মিডিয়া, চলছে নানাভাবে ময়নাতদন্ত!

বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে মাহিন্দানন্দা আলুথগামাগে ছিলেন শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রী। এ কারণেই তার অভিযোগ হেসে উড়িয়ে দেওয়ার সুযোগ নেই। শ্রীলঙ্কান সরকার গুরুত্ব দিয়েই ঘটনার তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। এরইমধ্যে ডাক পড়েছে তখনকার প্রধান নির্বাচক অরভিন্দ ডি সিলভার। তাকে প্রায় ছয় ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করল শ্রীলঙ্কান পুলিশ।

শ্রীলঙ্কার নবগঠিত ক্রীড়া সম্পর্কিত এন্টি করাপশন ইউনিটের সুপারিটেন্ডেন্ট জগৎ ফনসেকার সামনে এবার হাজিরা দিতে হচ্ছে আরেক কিংবদন্তি ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারাকে। স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনে তলব পড়ল বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কান অধিনায়কের।

২ জুলাই, বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল নয়টায় হাজিরা দিতে হবে তাকে। সন্দেহ নেই তিনিও কঠিন জেরার মুখে পড়বেন। তদন্ত কমিটির কাছে হাজিরা দিবেন মাহেলা জয়াবর্ধনেও।

অরবিন্দ ডি সিলভাকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় সেই বিশ্বকাপ ফাইনালে ওপেনিংয়ে নামা উপুল থারাঙ্গার নাম উঠে এসেছে। ফাইনালে ২০ বলে ২ রান করে আউট হন থারাঙ্গা। তাকেও তদন্ত কমিটিতে হাজিরা দিতে হয়েছে। কলম্বো পুলিশ তাকে দুই ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে। গণমাধ্যমকে থারাঙ্গা শুধু জানান, পুলিশের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন তিনি। তবে ছয় ঘণ্টা তদন্ত কমিটির সামনে কথা বললেও সিলভা গণমাধ্যম এড়িয়ে যান। কথা বলেননি।

ফনসেকা এরইমধ্যে গোয়েন্দা রিপোর্ট নিতে শুরু করেছেন। বিশ্বকাপ ফাইনালের গুরুত্ব ও পরিধি অনেক বেশি বলেই এক বিন্দু ছাড় দিচ্ছেন না তিনি। সত্যটা বের করে আনতে চাইছেন তিনি।