করোনা ক্ষতি সামলাতে ৬১০ কোটি টাকা চায় ইন্টারনেট কোম্পানিগুলো

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনার ক্ষতি মোকাবিলার জন্য কর্মীদের আগামী ছয় মাসের বেতন এবং অফিস ভাড়া বাবদ ৬১০ কোটি টাকার থোক বরাদ্দ ও একই সঙ্গে বেশ কিছু আর্থিক প্রণোদনা চেয়েছে ইন্টারনেট সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ বা আইএসপিএবি।

তবে আইএসপিএবি কোন খাতে কতো টাকা লাগবে, সে বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি।

সংগঠনটির সভাপতি আমিনুল হাকিমের স্বাক্ষর করা এক চিঠিতে ইন্টারনেট সেবার সব পর্যায়ে ভ্যাট প্রত্যাহারসহ নয় দফা দাবিও তারা শনিবার (৪ এপ্রিল) তুলে ধরেছেন ডাক ও টেলেযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের কাছে।

আর্থিক প্রণোদনার মধ্যে রয়েছে, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের সঙ্গে সব ধরনের রেভিনিউ শেয়ারিং বন্ধ, এক বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ দুই শতাংশ সুদে জামানতবিহীন স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদী ঋণ প্রদান, ফাইবার অপটিক কেবলের ওপর আগামী দুই বছর আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার, আগামী এক বছর রাস্তা থেকে ঝুলন্ত তার অপসারণ বন্ধ এবং ব্যান্ডউইথ ট্রান্সমিশন মওকুফ।

তাছাড়া ইন্টারনেট সেবা কোম্পানির গ্রাহকদের কাছ থেকে বিল আহরণের ক্ষেত্রে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবা মাধ্যম – বিকাশ বা রকেট ব্যবহার করলে তার ওপর থেকে চার্জ মওকুফ।
একই সঙ্গে ইন্টারনেটকে জরুরি সেবা হিসেবে ঘোষণা করলেও ইন্টারনেট সেবা কোম্পানিগুলোর কর্মীদের সরকারি স্বাস্থ্য ঝুঁকি ভাতার আওতাধীন করার দাবি করেছে আইএসপিএবি।

এর আগে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন বা সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস বা বেসিসও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাধ্যমে একইভাবে অফিস ভাড়া এবং কর্মীদের বেতন বাবদ ৬১০ কোটি টাকার অনুদান চেয়েছে সরকারের কাছে।

আপনার মতামত লিখুন :