কাজের মাধ্যমে মন্ত্রণালয়ের নামের যথার্থতা প্রমাণ হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহর সঙ্গে আরআরএফ নেতৃবৃন্দ মতবিনিময় করছেন, ছবি: বার্তা২৪.কম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে স্বচ্ছ, জবাবদিহিতামূলক এবং দুর্নীতিমুক্ত মন্ত্রণালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে আমি আমার সর্বোচ্চ আন্তরিকতা ও পরিশ্রম কাজে লাগাবো। কাজের মধ্য দিয়ে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় তার নামের যথার্থতা প্রমাণ করবে- ইনশাআল্লাহ।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে সচিবালয়ে নিজ অফিসে রিলিজিয়াস রিপোটার্স ফোরাম (আরআরএফ) নেতৃবৃন্দ সৌজন্য সাক্ষাত ও মতবিনিময়কালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, তিনি সবার সহযোগিতায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে একটি আদর্শ মন্ত্রণালয়ে পরিণত করতে চান। এক্ষেত্রে তিনি গনমাধ্যম প্রতিনিধিদের সহযোগিতা কামনা করেন।

শেখ মো. আব্দুল্লাহ আরও বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই আমি মন্ত্রণালয় পরিচালনার বিষয়ে আমার নীতি ঘোষণা করেছি। আমি বলেছি, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় হবে সকল ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মন্ত্রণালয়। এ মন্ত্রণালয়ে কোনো অধর্মের কাজ হতে দেব না। হজযাত্রীদের চোখের পানি আমি দেখতে চাই না, যাদের কারণে হাজিদের চোখে পানি আসবে, আমি তাদের চোখ দিয়ে রক্ত ঝড়িয়ে ছাড়ব। এসব বক্তব্য প্রমাণে আমি ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছি।

তিনি বলেন, তাবলিগ জামাতের মধ্যে বিদ্যমান বিরোধ মিটিয়ে সবাইকে নিয়ে এ বছর আমরা একটি সফল বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। একসঙ্গে বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের মধ্য দিয়ে তাবলিগ জামাতের মধ্যকার দূরত্ব ঘুচাতে চাই। এক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশের সংবিধানের অন্যতম মূলনীতি হলো ধর্ম নিরপেক্ষতা। ধর্ম নিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়, ধর্ম নিরপেক্ষতা অর্থ হচ্ছে- সহাবস্থান। আমি যেভাবে স্বাধীনভাবে ধর্ম পালন করি, ঠিক সেভাবে অন্য ধর্মের লোকজনও যাতে তাদের ধর্মীয় কাজগুলো পালন করতে পারেন তার নিরাপত্তা দেওয়াই হচ্ছে ধর্ম নিরপেক্ষতা।

মতবিনিময় সভায় রিলিজিয়াস রিপোটার্স ফোরাম (আরআরএফ)-এর সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ ভূঁইয়া ও সাধারণ সম্পাদক উবায়দুল্লাহ বাদলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সাক্ষাতের শুরুতে ফোরামের পক্ষ থেকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীকে অভিনন্দনপত্র প্রদান এবং ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

ইসলাম এর আরও খবর