Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

উত্তম কুমারের তিন প্রিয়

উত্তম কুমারের তিন প্রিয়
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট


  • Font increase
  • Font Decrease

আরও একটি ২৪ জুলাই, আবারও ক্ষতয় আঘাত।


মহানায়ক উত্তম কুমার এই দিনেই চলে গেছেন ৩৮ বছর আগে, ১৯৮০ সালে।

/uploads/files/gMz4Vs836aM266M2kLgxd8eZuhWtWxcdzCpXzd1N.jpeg

নবমিতার সঙ্গে বিয়ের সূত্রে উত্তম কুমারের নাতজামাই হন অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়।

মহানায়ককে দেখেননি তিনি।

কিন্তু তার সম্পর্কে প্রচুর ঘটনা শুনেছেন পরিবারের বড়দের মুখে।

সেইসব ঘটনার মধ্যে থেকে কিছু ঘটনা শেয়ার করেছেন ভাস্বর।

/uploads/files/UnNGNsedcUiQ17Y7Se4kleHNbnavXNWahVPfmbTl.jpeg

বলেছেন উত্তম কুমারের তিন প্রিয় সম্পর্কে।


প্রিয় খাবারঃ লুচি-তরকারি


উত্তম কুমার রোজ সকালে ভবানীপুরের বাড়িতে আসতেন তার মাকে প্রণাম করার জন্য, কাজে বেরুনোর আগে। একদিন এসে শুনেছেন যে লুচি তৈরি হচ্ছে, গন্ধ পেয়েছেন; একেবারে চারতলায় উঠে গিয়েছেন সোজা। গিয়ে বলেছেন, ‘দাও তো দুটো লুচি, খেয়ে তবেই শুটিংয়ে যাই!’


প্রিয় পোষাকঃ ধুতি/পাজামা-পাঞ্জাবি এবং শাল


বুশ শার্ট-প্যান্টেই বেশি ছবি দেখা যায় মহানায়কের। তবে ধুতি পাঞ্জাবিতে তাকে দেখতে রাজপুত্তুরের মতো লাগতো বলে ধারণা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের। উত্তম কুমার কমফোর্টেবল ছিলেন বাঙালি পোষাকে। যেসব অনুষ্ঠানে তিনি গিয়েছেন, প্রায় সব জায়গাতেই ধুতি/পাজামা-পাঞ্জাবি এবং গায়ে একটা শাল দেখা গেছে তার।


প্রিয় নারীঃ মা


প্রত্যেকদিন সকালে তো তার মাকে প্রণাম করতে আসতেনই, কাজে বেরুনোর সময়; এছাড়া আরেকটা গল্পও বলেছেন নাতজামাই। তখন উত্তম কেবল নাম করতে শুরু করেছেন। ওই সময়টাতে একদিন বাড়ির টাইলস চেঞ্জ করতে বলে গেছেন মিস্ত্রিদের। সেদিন শুটিং থেকে ফিরে এসে মহানায়ক দেখেন যে, তার নিজের ঘরের টাইলসটা ঠিকঠাক লাগানো হয়েছে কিন্তু মায়ের ঘরের টাইলস ঠিকঠাক লাগানো হয়নি। উনি তৎক্ষণাৎ গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে চলে যান ধর্মতলায়। টাইলসের দোকান থেকে মিস্ত্রি নিয়ে এসে সারারাত ধরে চেঞ্জ করে ফেলেন মায়ের ঘরের টাইলস। কারণ একটাই, তারটা আর মায়েরটা কেনো একরকম হলো না!

/uploads/files/9MUGyQP1kN7L6l9COkNc9yZRQHlKDu5xIV13w9Tu.jpeg

আরও পড়ুনঃ

‘বিনোদন যে দিনশেষে আসলে একটা ব্যবসা না, এটা কে বুঝবে!’

জ্যাম-এর শহরে ঋতুপর্ণা

মায়ের সঙ্গে লগ্নজিতা

মম গলবে না অনুরোধে!

আপনার মতামত লিখুন :

১৫ বছর পর আবারও স্ত্রীকে গান উৎসর্গ করলেন আসিফ

১৫ বছর পর আবারও স্ত্রীকে গান উৎসর্গ করলেন আসিফ
কণ্ঠশিল্পী আসিফ ও তার স্ত্রী সালমা আসিফ মিতু

 

কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের প্রেম কাহিনী কম বেশি সবার জানা। বহু কাঠখড় পুড়িয়ে দীর্ঘদিন প্রেম করে বিয়ে করেছেন স্ত্রী মিতুকে। সেই মানুষটাকে ২০০৪ সালে নিজের প্রথম কোন গান উৎসর্গ করেছিলেন আসিফ আকবর।

গানটি ছিল আসিফের ১১তম একক অ্যালবাম ‘তবুও ভালোবাসি’র ৪নম্বর  ট্র্যাক ‘কোন একদিন যদি চলে যাই, তারাদের চেয়েও আরও দূরে’। শফিক তুহিনের কথায় গানটির সুর করেছিলেন রাজেশ। এরপর চলে গেছে ১৫টি বছর। কিন্তু প্রিয় সেই মানুষকে আর কোন গান উৎসর্গ করা হয়নি আসিফের।

তবে এবার আর ভুল করলেন না আসিফ। প্রায় ১৫ বছর পর আবারও স্ত্রী মিতুকে উৎসর্গ করে গান গাইলেন আসিফ আকবর। গানের শিরোনাম ‘ভালো থাকার জন্য’। আহমেদ রিজভী’র কথা ও সুরে গানটির সঙ্গীতায়োজন করেছেন কিশোর দাস। গানটি প্রকাশ করে আর্ব এন্টারটেইনমেন্ট।

গানটি প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বলেন, 'মিতু আর আমি এক আত্মা। আমার দীর্ঘ ক্যারিয়ারে আমাকে গুছিয়ে রেখেছে মিতু।  ওকে শুধু ভালোবাসি বললে কম হয়ে যায়। এর থেকে বড় কোন শব্দ যদি প্রেমে থেকে থাকে তাহলে সেটা মিতুর জন্যই প্রযোজ্য।'

সালমা আসিফ মিতু বলেন, 'আসিফ একটু পাগলাটে। তবে আমি মানিয়ে নিয়েছি। ওর ব্যক্তিত্ব আমাকে বরাবরই মুগ্ধ করে। ওর সব গানই আমার প্রিয়। তবে যে গানটা একান্তই আমাকে নিয়ে করা , সেই গানের প্রতি একটু বেশিই মুগ্ধতা থাকে। আমরা ভালো আছি। এভাবেই ভালো থাকতে চাই। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।' 

 

টরেন্টোতে 'মেড ইন বাংলাদেশ'র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার

টরেন্টোতে 'মেড ইন বাংলাদেশ'র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার
নির্মাতা রুবাইয়াত হোসেন, ছবি: সংগৃহীত

কানাডার টরেন্টোতে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ৪৪তম আসর বসছে ৫ থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। প্রতিবছর কানাডাতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে থাকে। আয়োজনে থাকে বিশ্বের বিখ্যাত সব চলচিত্রের প্রদর্শনী। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এবার বাংলাদেশের সিনেমা 'মেড ইন বাংলাদেশ' এর ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হতে যাচ্ছে।

রুবাইয়াত হোসেন পরিচালিত সিনেমাটি উৎসবে কনটেম্পোরারি ওয়ার্ল্ড সিনেমা বিভাগে অংশগ্রহণ করছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566113947619.jpg
'মেড ইন বাংলাদেশ' সিনেমার দৃশ্য

 

'মেড ইন বাংলাদেশ' সিনেমাতে অভিনয় করেছেন রিকিতা নন্দিনী, দীপান্বিতা মার্টিন, মুস্তাফা মনোয়ার, শতাব্দী ওয়াদুদ, জয়রাজ, মোমেনা চৌধুরী, ওয়াহিদা মল্লিক জলি ও সামিনা লুৎফা প্রমুখ। এছাড়া সিনেমাটির অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিতা চৌধুরী ও ভারতের শাহানা গোস্বামী।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566114026664.jpg

 

সিনেমাটিতে বলে হয়েছে পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের সংগ্রাম ও সাফল্যের গল্প বলা হয়েছে। বাংলাদেশের খনা টকিজ ও ফ্রান্সের লা ফিল্মস দ্য এপ্রেস-মিডির ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটির প্রযোজনা করেছে ফ্রান্স, ডেনমার্ক, পর্তুগাল ও বাংলাদেশ।

এর আগে রুবাইয়াত হোসেন 'মেহেরজান' ও 'আন্ডার কনস্ট্রাকশন' শিরোনামের দুইটি সিনেমা নির্মাণ করেছেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র