ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার রাবি সাংবাদিকের মুক্তির দাবি



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
মানববন্ধন। ছবি: বার্তা২৪.কম

মানববন্ধন। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক যুগান্তরের প্রতিনিধি মানিক রাইহান বাপ্পী’র নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানানো হয়েছে।

রোববার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ’ ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা নামের যে আইনটি বাংলাদেশে চালু রয়েছে সেটি শুধু সাংবাদিকদের কণ্ঠ রোধে ব্যবহার করা হয়। বাপ্পী’র বিরুদ্ধে যে শিক্ষক এ মামলা দায়ের করেছেন তিনি নিজেও এই আইনের বলি হয়েছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা তাদের ছাত্র ও সাংবাদিকদের নিজের কাজে ব্যবহার করতে পারদর্শী। তবে তাদের স্বার্থে যখন আঘাত আসে তখনই তারা উল্টে বসেন।

তারা আরও বলেন, এ ধরণের মামলা গোটা সাংবাদিক মহলের জন্য হুমকি স্বরূপ। মূলত অভিযুক্তদের কর্মকাণ্ড আড়াল করার চেষ্টায় এসব মামলা করা হয়। সাংবাদিকেরা পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে যদি হয়রানির শিকার হতে হয় তবে অন্যান্য ক্যাম্পাসগুলোতেও সাংবাদিকতার পথ আরো সংকুচিত হয়ে যাবে। কাজের পরিবেশ রুদ্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হবে।

মানববন্ধন থেকে মানিক রাইহান বাপ্পী, দৈনিক যুগান্তরের সম্পাদক সাইফুল আলম, রাজশাহীর স্থানীয় দৈনিক সোনালী সংবাদের সম্পাদক লিয়াকত আলীসহ ৮ সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।

রাবি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসাইন বিপ্লবের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন রাবি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আরাফাত রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহমেদ ফরিদ, রাবিসাসের সাবেক সভাপতি সুজন আলী, সম্পাদক শাহীন আলম, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আকরাম হোসেন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সংবাদ প্রকাশের জের ধরে ২০১৫ সালের ২৪ অক্টোবর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের এক শিক্ষকের দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হন দৈনিক যুগান্তরের রাবি প্রতিনিধি মানিক রাইহান বাপ্পী।