সেদিন ছাত্রাবাসের ছাদ ধসে ৪০ জন নিহত হয়েছিলেন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা ২৪
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

সেদিন তুমুল বৃষ্টির মধ্যে রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জগন্নাথ হলের ছাদ ধসে পড়ে, আর মারা যান ৪০ জন, আহত হন শতাধিক। ওই সময়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের কাছে সেই রাতটি আজও অক্টোবরের ট্রাজেডি।

১৯৮৫ সালের ১৫ অক্টোবর জগন্নাথ হলে রাত ৯টায় ঘটে সেই মর্মান্তিক ঘটনা। সেদিন হলের টেলিভিশন রুমে বসে নাটক দেখার সময় ছাদ ধসে পড়ে। নিহতদের মধ্যে ২৬ জন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং ১৪ জন কর্মচারী ও অতিথি ছিলেন। সেই ঘটনার স্মরণে প্রতি বছর ১৫ অক্টোবর শোক দিবস পালন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার।

এ উপলক্ষে আজ শুক্রবার নানা কর্মসূচি পালন করবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত পরিসরে দিবসটি পালিত হবে।

কর্মসূচির বিষয়ে জনসংযোগ দপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শুক্রবার সকাল ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান ভবন, সব হল ও হোস্টেলে কালো পতাকা উত্তোলন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। সকাল সাড়ে ৭টায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের নেতৃত্বে জগন্নাথ হল স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। এরপর সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে জগন্নাথ হল প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা হবে। দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্নিষ্ট সবাই কালো ব্যাজ ধারণ করবেন।

এ ছাড়া নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করে সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত হল প্রাঙ্গণে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের প্রার্থনা সভা এবং বাদ আসর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদসহ সব হলের মসজিদে দোয়া হবে।