ঢাবিতে শিক্ষার্থীকে গেস্টরুমে ডেকে নির্যাতনের অভিযোগ



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজয় একাত্তর হলে আখতার হোসেন (১৯) নামের এক শিক্ষার্থীকে গেস্টরুমে ঢেকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের ৬ কর্মীর বিরুদ্ধে। নির্যাতিত শিক্ষার্থী গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০২০-২১ বর্ষের শিক্ষার্থী।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) রাত ১১টার দিকে নির্যাতনের এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আখতার আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে হল প্রশাসন বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।

জানা যায়, গত বুধবার রাতে আকতার গেস্টরুমে গেলে সে অসুস্থতার কথা বললে ১ ঘণ্টা তাঁকে বৈদ্যুতিক বাল্বের দিকে তাকিয়ে থাকতে বলা হলে, ১০ মিনিট তাকিয়ে থাকার পর তিনি অজ্ঞান হয়ে যান।

ঘটনায় অভিযুক্তরা হলেন- ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী হৃদয় আহমেদ কাজল, সমাজকল্যাণ বিভাগের শিক্ষার্থী ইয়ামিন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী কামরুজ্জামান রাজু, মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী শুভ, লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম রোহান। এরা প্রত্যেকে ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী এবং হল শাখা ছাত্রলীগে পদপ্রত্যাশী আবু ইউনুস ও রবিউল ইসলাম রানার অনুসারী।

অভিযুক্তদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাঁদের কাউকেই পাওয়া সম্ভব হয়নি।

এবিষয়ে হল ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশী আবু ইউনুস বলেন, তারা যে গেস্টরুম নিচ্ছে সে বিষয়ে আমরা কিছুই জানি না। হল প্রশাসনের প্রতি উদাত্ত আহ্বান থাকবে যে দোষীদের যেন সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হয়।

এ ব্যাপারে বিজয় একাত্তর হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক আবদুল বাছির বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। ইতিমধ্যে আমরা তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা সাপেক্ষে অভিযোগ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হবে।

নিরাপদ ক্যাম্পাস, গণতান্ত্রিক চর্চার পরিবেশ সৃষ্টিতে ডাকসু নির্বাচনের দাবি



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
নিরাপদ ক্যাম্পাস, গণতান্ত্রিক চর্চার পরিবেশ সৃষ্টিতে ডাকসু নির্বাচনের দাবি

নিরাপদ ক্যাম্পাস, গণতান্ত্রিক চর্চার পরিবেশ সৃষ্টিতে ডাকসু নির্বাচনের দাবি

  • Font increase
  • Font Decrease

শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ ক্যাম্পাস, গণতান্ত্রিক চর্চা ও সুষ্ঠু ধারার রাজনীতির পরিবেশ সৃষ্টিতে অবিলম্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন দাবি করেছে ছাত্র অধিকার পরিষদ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি জানানো হয়। বিবৃতিটি পাঠিয়েছেন ছাত্র অধিকার পরিষদের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ সানাউল্লাহ।

বিবৃতিতে বলা হয়, দীর্ঘ ২৮ বছর পর ২০১৯ সালে ডাকসু নির্বাচন হয়। এই নির্বাচনের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সব দল ও মতের কিছুটা সহাবস্থান নিশ্চিত হয়েছিল। কিন্তু অংশগ্রহণমূলক ও গণতান্ত্রিক প্রতিযোগিতার সেই ধারাকে নস্যাৎ করতে পেশিশক্তি-কালোটাকানির্ভর দখলদার বাহিনী ধারাবাহিকভাবে শিক্ষাঙ্গনকে ভয়ের অভয়ারণ্যে পরিণত করছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলার নিন্দা জানিয়ে ছাত্র অধিকার পরিষদের বিবৃতিতে বলা হয়, আগ্নেয়াস্ত্রের ঝনঝনানিতে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত। শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত। বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রকাশ্যে গুলি চললেও প্রশাসনের ভূমিকা পুরোপুরি নির্বিকার। দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানায় ছাত্র অধিকার পরিষদ।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ছাত্রসংগঠনগুলো হবে শিক্ষার্থীবান্ধব। কিন্তু দলীয় লেজুড়বৃত্তিসহ ক্ষমতাকেন্দ্রিক রাজনীতির কারণে দলীয় রাজনীতির ক্রীড়নক হয়ে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ। পবিত্র শিক্ষাঙ্গন হয়ে উঠেছে ভয়ের অভয়ারণ্য। এমন অবস্থায় শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ ক্যাম্পাস, গণতান্ত্রিক চর্চা ও সুষ্ঠু ধারার রাজনীতির পরিবেশ সৃষ্টিতে ক্যাম্পাসে ক্রিয়াশীল ছাত্রসংগঠনের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের অনুরোধ জানায় ছাত্র অধিকার পরিষদ। একই সঙ্গে তারা অবিলম্বে ডাকসু নির্বাচনের দাবি জানায়।

কয়েক দিন ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস উত্তপ্ত। ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের ওপর দফায় দফায় হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। সর্বশেষ গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্ট চত্বরের ভেতরে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের পিটিয়ে রক্তাক্ত করে ছাত্রলীগ। এতে ছাত্রদলের অন্তত ৪৭ নেতা-কর্মী আহত হন। এর আগে গত মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের মিছিলে বেপরোয়া হামলা চালায় ছাত্রলীগ। তিন দিনের সংঘাতে দুই সংগঠনের অন্তত ১৩০ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ২৮ বছরের অচলায়তন ভেঙে সর্বশেষ ২০১৯ সালের ১১ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) অনুষ্ঠিত হয়েছিল। নির্বাচনের তিন বছর পূর্ণ হলেও পরবর্তী নির্বাচনের জন্য নেই কোন পদক্ষেপ। অনেকে বলছে, ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ছাত্রদের আগ্রহ থাকলেও প্রশাসনের অনীহা রয়েছে।

;

১৬৮ টি আসন কমালো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
১৬৮ টি আসন কমালো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

১৬৮ টি আসন কমালো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

  • Font increase
  • Font Decrease

শিক্ষা ও গবেষণার মান সমুন্নত রাখতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ১৬৮টি আসন কমানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) বিকেলে জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গবেষণা ও শিক্ষার মান সুষ্ঠুভাবে ধরে রাখা এবং পাঠদান দ্বিমুখী করতে বিভাগগুলো থেকে আসন কমানোর সুপারিশ করায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫টি বিভাগে মোট ১৬৮টি আসন কমানো হয়েছে। গতবার কোটা বাদে মোট আসন ছিল ৪ হাজার ১৭৩টি। কিন্তু এবছর তা কমে মোট আসন হয়েছে ৪ হাজার ৫টি।

অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ইতিহাস বিভাগে আসন কমেছে ১০টি, বাংলা বিভাগে ২০টি ও নাট্যকলাতে ৫টি আসন কমেছে। সমাজবিজ্ঞান অনুষদের অর্থনীতি বিভাগে আসন কমেছে ১০টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের কমেছে ১০টি, সমাজকর্ম বিভাগে ২০টি, সমাজবিজ্ঞান বিভাগে ২০টি, লোকপ্রশাসনে ১০টি, নৃবিজ্ঞানে ৬টি ও ফোকলোরে কমেছে ৬টি আসন।

এ ছাড়া জীববিজ্ঞান অনুষদের মনোবিজ্ঞান বিভাগে কমেছে ৫টি ও জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগে কমেছে ১৫টি আসন। প্রকৌশল অনুষদের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ১০টি এবং ভূ-বিদ্যা অনুষদের ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগে আসন কমেছে ৬টি। চারুকলা অনুষদের চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগে আসন কমেছে ১৫টি।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার দুপুর ১২টা থেকে রাবির ২০২১-২২ সেশনে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হয়েছে। আবেদন প্রক্রিয়া চলবে আগামী ৯ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত। প্রাথমিকভাবে আবেদনকারীদের এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতি ইউনিটে ৭২ হাজার ভর্তিচ্ছু চূড়ান্ত আবেদনের জন্য নির্বাচিত হবেন।

;

৩১ ঘণ্টায় রাবিতে আবেদন পড়েছে ৭১ হাজার



রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
৩১ ঘণ্টায় রাবিতে আবেদন পড়েছে ৭১ হাজার

৩১ ঘণ্টায় রাবিতে আবেদন পড়েছে ৭১ হাজার

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ৩১ ঘণ্টার ব্যবধানে ২০২১-২২ সেশনে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন জমা পড়েছে ৭১ হাজার ৭৮৪টি । বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক বাবুল ইসলাম এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

অধ্যাপক বাবুল ইসলাম বলেন, বুধবার দুপুর ১২টায় প্রাথমিক আবেদন শুরুর পর থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ৭১ হাজার ৭৮৪ টি আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে মানবিক বিভাগে (‘এ’ ইউনিট) ২৬ হাজার ১৭৮জন, বাণিজ্য বিভাগে (‘বি’ ইউনিট) ১৮ হাজার ৩২৪ জন এবং বিজ্ঞান বিভাগে (‘সি’ ইউনিট) ২৭ হাজার ২৮২ জন ভর্তিচ্ছু প্রাথমিক আবেদন করেছেন। আবেদনকারীর সংখ্যা প্রতি মুহূর্তে বাড়ছে।

প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার থেকে রাবির ২০২১-২২ সেশনে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হয়েছে। আবেদন প্রক্রিয়া চলবে আগামী ৯ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত। প্রাথমিকভাবে আবেদনকারীদের এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতি ইউনিটে ৭২ হাজার ভর্তিচ্ছু চূড়ান্ত আবেদনের জন্য নির্বাচিত হবেন।

;

জবি শিক্ষার্থীদের জন্য চালু হচ্ছে চক্রাকার বাস সার্ভিস



জবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
জবি শিক্ষার্থীদের জন্য চালু হচ্ছে চক্রাকার বাস সার্ভিস

জবি শিক্ষার্থীদের জন্য চালু হচ্ছে চক্রাকার বাস সার্ভিস

  • Font increase
  • Font Decrease

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে সুবিধায় চালু হতে যাচ্ছে চক্রাকার বাস সার্ভিস। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব অর্থায়নে ক্রয়কৃয় দ্বিতল বাসটির মাধ্যমে আগামী রোববার থেকে এই সার্ভিস দেওয়া হবে। প্রতিদিন দুপুর ও সন্ধ্যায় নির্ধারিত সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে শিক্ষার্থীদের নিয়ে গন্তব্য স্থানের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে বাসটি।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ২৯ মে রোববার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব অর্থায়নে ক্রয়কৃত দ্বিতল বাসটি দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে ও সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে ছেড়ে যাবে। বাসটি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে ছেড়ে দয়াগঞ্জ, সায়েদাবাদ, খিলগাঁও রেলগেট, মালিবাগ, মৌচাক, বাংলা মোটর, শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও গুলিস্তান হয়ে আবারও ক্যাম্পাসে ফিরে আসবে।

এদিকে চক্রাকার বাস সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ৷ তাদের দাবি এতে করে যাদের ক্লাস আগে শেষ হয় তাদেরকে আর রেগুলার বাস সার্ভিসের জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। আবার যেসব শিক্ষার্থী পাঠাগারে পড়াশোনা করে তাদের জন্যও সুবিধা হবে।

এ বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ বলেন, শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে চক্রাকার বাস সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আগামী রোববার থেকে সার্ভিস চালু হবে।

;