ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষের ঘটনায় ঢাবি প্রশাসনের মামলা



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় অজ্ঞাত অন্তত ৪০০ জনকে আসামি করে মামলা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) প্রশাসন।

বুধবার (২৫ মে) সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী।

এর আগে দুটি ছাত্র সংগঠনের মধ্যকার সংঘর্ষের ঘটনার পর গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী এস্টেট ম্যানেজার মো. আলী আশ্রাফ বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এ মামলায় এখন পর্যন্ত ২ জনকে আটক করেছে শাহবাগ থানা পুলিশ।

প্রক্টর গোলাম রব্বানী বলেন, অজ্ঞাত ৩০০-৪০০ জনকে আসামি করে বিশ্ববিদ্যালয়ের এস্টেট অফিস থেকে গতকাল মামলা করা হয়েছে। বুধবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতাউল্লাহ মামলার এজাহার গ্রহণ করে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৩০ জুন দিন ধার্য করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের ৩৫ জন শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন হচ্ছিল। এ সময় একদল দুষ্কৃতকারী লাঠি, রড ও নানা ধরনের দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঢাকা মেডিকেলের বহির্বিভাগের সামনে এক জোট হয়ে নির্বাচন বানচাল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ বিঘ্নিত করতে অপতৎপরতা শুরু করে। বিষয়টি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে জানালে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেখান থেকে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এতে আরও বলা হয়, গত ২৪ মে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুনরায় শিক্ষা ভবনের সামনের দিক থেকে ৩০০-৪০০ জন দুষ্কৃতকারী কার্জন হলের গেট দিয়ে জোরপূর্বক প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় গেটের নিরাপত্তা প্রহরী কামাল হোসেন তাদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তার মাথায় লাঠি ও রড দিয়ে আঘাত করতে গেলে তিনি হাত দিয়ে তা ঠেকানোর চেষ্টা করেন। এতে তার হাত জখম হয়। এছাড়া শিক্ষার্থীদের বহনে ব্যবহার করা দুটি বিআরটিসি বাস ভাঙচুর করে জাতীয় সম্পদ নষ্ট করা হয়।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মওদূত হাওলাদার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ৪০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। তবে তাদের সবাই অজ্ঞাতনামা। আমরা শিগগিরই তদন্ত শুরু করবো। তদন্তের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এ মামলায় আটক ২ জনকে কোর্টে চালান করেছি।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, সংঘর্ষে যারা জড়িত ছিলো ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের শনাক্ত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আমাদের কাছে প্রতিবেদন জমা দেবে। ‘হামলাকারীদের মধ্যে যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাদের বিরুদ্ধে আমরা একাডেমিক ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’

৯ দিনের ঈদের ছুটিতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
৯ দিনের ঈদের ছুটিতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

৯ দিনের ঈদের ছুটিতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

  • Font increase
  • Font Decrease

 

আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে নয়দিনের ছুটিতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। আগামী ৮ জুলাই থেকে পবিত্র ঈদুল আযহার ছুটি শুরু হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রবীর কুমার সরকার।

প্রবীর কুমার সরকার শনিবার (২৫ জুন) জানান, আগামী ৭ জুলাই আমাদের শেষ কর্ম দিবস ; কেননা ৮ জুলাই সাপ্তাহিক ছুটির দিন। আর ৯ জুলাই থেকে ঈদের ছুটি শুরু হবে। ক্যাম্পাস বন্ধ থাকবে ১৬ জুলাই পর্যন্ত। ঈদের ছুটি শেষে ১৭ জুলাই থেকে ক্লাস ও অফিস কার্যক্রম শুরু হবে।

আরবি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আগামী ১ জুলাই (চাঁদ দেখা সাপেক্ষে) থেকে জিলহজ মাস শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। ধর্মীয় হিসাব অনুযায়ী, জিলহজ মাসের ১০ তারিখে ঈদুল আযহা উদযাপিত হয়ে থাকে। এদিকে চাঁদ দেখা সাপেক্ষ আগামী ১০ জুলাই দেশে ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে।

;

শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদ সম্মাননা পেলেন ৭ বিশিষ্ট শিল্পী



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদ সম্মাননা পেলেন ৭ বিশিষ্ট শিল্পী

শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদ সম্মাননা পেলেন ৭ বিশিষ্ট শিল্পী

  • Font increase
  • Font Decrease

শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদ ও প্রিন্টমেকিং বিভাগের যৌথ উদ্যোগে দেশের ৭ জন বিশিষ্ট শিল্পীকে ‘শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদ সম্মাননা-২০২২’ প্রদান করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়টির চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় এক অনুষ্ঠানে সম্মাননা প্রাপ্ত শিল্পীদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।

সম্মাননা প্রাপ্ত শিল্পীরা হলেন- শিল্পী অধ্যাপক মোহাম্মদ কিবরিয়া (মরণোত্তর), শিল্পী অধ্যাপক রফিকুন নবী, শিল্পী মনিরুল ইসলাম, শিল্পী অধ্যাপক মাহমুদুল হক, শিল্পী কালিদাস কর্মকার (মরণোত্তর), শিল্পী শহিদ কবীর এবং শিল্পী অধ্যাপক আবুল বারক্ আলভী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের আধুনিক শিল্পকলা জগতের পথিকৃৎ শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, তিনি অত্যন্ত সৎ, নিষ্ঠাবান, বিনয়ী, শান্ত ও স্বল্পভাষী মানুষ ছিলেন। সাহসী এই শিল্পী মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে অসংখ্য ছবি এঁকেছেন। শিল্পের উৎকর্ষ সাধনে তিনি আজীবন কাজ করে গেছেন। তার জীবন, কর্ম, শিল্প ও রুচিবোধ, দেশপ্রেম, ক্সশল্পিক চিন্তা এবং মানবিক মূল্যবোধ বহন করে সামনে এগিয়ে নেওয়ার জন্য তিনি তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রিন্টমেকিং বিভাগের চেয়ারম্যান শেখ মোহাম্মদ রোকনুজ্জামানের সভাপতিত্বে সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন, শিল্পী আহমেদ নাজির, দুর্জয় ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান দুর্জয় রহমান জয়, শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদ জন্মশতবর্ষ উদ্যাপন পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক রোকেয়া সুলতানা, সদস্য-সচিব অধ্যাপক মো. আনিসুজ্জামান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, দেশের আধুনিক ছাপচিত্রের জনক শিল্পগুরু সফিউদ্দীন আহমেদ। ছাপচিত্রের পাশাপাশি রেখাচিত্র ও তেলচিত্রের ভুবনকেও উৎকর্ষমণ্ডিত করেছেন এই পথিকৃৎ শিল্পী। দেশের শিল্প-আন্দোলন ও প্রয়াসকে নানাভাবে সঞ্জীবিত করেছেন। ১৯২২ সালের সালের ২৩ জুন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন এ বরেণ্য শিল্পী।

;

ঢাবি আইবিএ'র বিবিএ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ঢাবি আইবিএ'র বিবিএ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ঢাবি আইবিএ'র বিবিএ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ)-এর বিবিএ প্রোগ্রামের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ জুন) সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়টি গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে। আইবিএ’র ভর্তি পরীক্ষায় মোট ১২০টি আসনের বিপরীতে ৬,৩৩৬ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।

এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, উপ-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মোহাম্মদ আব্দুল মোমেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী, বিবিএ প্রোগ্রামের কো-অর্ডিনেটর ড. রেজওয়ানুল হক খানসহ ইনস্টিটিউটের শিক্ষক ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

;

‘স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই’ লিখে বিপাকে জবি শিক্ষার্থী



জবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই

স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই

  • Font increase
  • Font Decrease

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক শিক্ষার্থী মিডটার্ম পরীক্ষার খাতায় ‘স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই’ লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করায় শাস্তির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) লেখাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষার্থীর নাম তানভীর মাহতাব। তিনি ইংরেজী বিভাগের (২০২০-২০২১) শিক্ষাবর্ষে অধ্যয়নরত। তার দেশের বাড়ি নোয়াখালী জেলার সুবর্ণচরে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মিডটার্ম পরীক্ষার অতিরিক্ত একটি উত্তরপত্র নিয়ে যান ওই শিক্ষার্থী। পরে বুধবার রাতে সেই উত্তরপত্রে ‘স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই’ লিখে নিজের ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দেন তিনি। তারপর লেখাটি ভাইরাল হয়ে যায়। পরে ওই শিক্ষার্থী পোস্টটি ডিলিট করে দেন।

এ বিষয়ে তানভীর মাহতাব বলেন, তিনি এ নিয়ে তার টাইমলাইনে ফানি পোস্ট দিয়েছেন। পরে বুঝতে পেরে তিনি পোস্টটি ডিলিট দিয়ে দেন। তিনি বুঝতে পারেননি বিষয়টি এইরকম ভাইরাল হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, ইনভিজিলেটরের স্বাক্ষর তিনি করেছেন।

ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মমিন উদ্দীন বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমরা পরিষ্কারভাবে এখনও কিছু জানি না। ওই শিক্ষার্থীকে রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে দেখা করতে বলা হয়েছে। তখন আমরা বিষয়টি সম্পর্কে সম্পূর্ণভাবে জেনে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবো। ভাইরাল হওয়া অতিরিক্ত উত্তরপত্রে ইনভিজিলেটর স্বাক্ষরটি ইংরেজি বিভাগের কোনো শিক্ষকের নয় বলে জানিয়েছেন বিভাগের চেয়ারম্যান।

বিষয়টি গুরুতর অপরাধ হলে ওই শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা বহিষ্কার করতে পারি না। এটা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে। তবে আমরা বিষয়টি নিয়ে রোববার ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত দিবো।

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমি এখনও কিছু জানি না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এ কে এম আক্তারুজ্জামান বলেন, বিষয়টি নিয়ে বিভাগ যা বলবে তা। তাছাড়া উত্তরপত্রটি আমি দেখিনি। তাই এবিষয়ে কিছু বলা যাচ্ছে না।

;